নিজের উইকেট আর মরিসের ছক্কায় খুশি মুস্তাফিজ

রাজস্থান রয়্যালসের হয়ে দ্বিতীয় ম্যাচে এসে মিলেছে নিজের প্রথম উইকেটের স্বাদ। একই ম্যাচে ধরা দিয়েছে আরেকটি শিকার। পরে ক্রিস মরিসের চার ছক্কায় দল পেয়েছে রোমাঞ্চকর এক জয়। সব মিলিয়ে আইপিএলে দারুণ এক ম্যাচ শেষে উচ্ছ্বসিত মুস্তাফিজুর রহমান।

স্পোর্টস ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 16 April 2021, 05:30 AM
Updated : 16 April 2021, 05:30 AM

গত সোমবার রাজস্থানের হয়ে নিজের অভিষেক ম্যাচটি মুস্তাফিজের জন্য ছিল হতাশাজনক। প্রতিপক্ষের বিশাল সংগ্রহের দিনে ৪ ওভারে ৪৫ রান দিয়ে উইকেটশূন্য ছিলেন এই বাঁহাতি পেসার। রাজস্থান তাকে আরেকটি সুযোগ দেয় বৃহস্পতিবার। মুম্বাইয়ে দিল্লি ক্যাপিটালসের বিপক্ষে এই ম্যাচে তিনি প্রমাণ করেন দলের সিদ্ধান্তের যৌক্তিকতা।

সপ্তম ওভারে আক্রমণে এসে বাংলাদেশের বাঁহাতি পেসার নিজের প্রথম ওভারেই আউট করেন দিল্লির বড় ভরসাদের একজন মার্কাস স্টয়নিসকে। টানা তিনটি ডটবলের পর দারুণ এক কাটারে বিভ্রান্ত স্টয়নিস ক্যাচ দেন শর্ট কাভারে।

দ্বিতীয় উইকেটের দেখা পান তিনি নিজের শেষ ও ইনিংসের ১৯তম ওভারে। প্রায় ইয়র্কার লেংথের স্লোয়ার ডেলিভারি ক্রস ব্যাটে খেলতে গিয়ে বোল্ড হন ২১ রান করা টম কারান।

নিজের শেষ দুই ওভারে তিনটি আলগা বলে বাউন্ডারি হজম করেন, তার পরও মুস্তাফিজের বোলিং ফিগার বেশ ভালো, ৪-০-২৯-২।

পরে ১৪৮ রান তাড়ায় ব্যাটিং বিপর্যয়ে পড়ে রাজস্থান। ৪২ রানে হারায় তারা ৫ উইকেট। সেখান থেকে দলকে টেনে নেয় ডেভিড মিলারের ৪৩ বলে ৬২ রানের ইনিংস। জয়ের সমীকরণ এরপরও ছিল কঠিন। শেষ দুই ওভারে প্রয়োজন পড়ে ২৭ রানের। ১৯তম ওভারে কাগিসো রাবাদাকে দুই ছক্কা ও শেষ ওভারে টম কারানকে দুই ছক্কায় দলকে জয়ের আনন্দে ভাসান মরিস (১৮ বলে অপরাজিত ৩৬)।

ম্যাচের পর মুস্তাফিজ প্রতিক্রিয়া জানান টুইটারে।

“ মৌসুমে আমাদের প্রথম জয় ও নিজের প্রথম উইকেটে আমি খুশি। দুর্দান্ত হিটিং, ক্রিস মরিস।”

মুস্তাফিজদের পরের প্রতিপক্ষ চেন্নাই সুপার কিংস, মুম্বাইয়েই সোমবার।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক