সিলেটের স্পিন সামলে ম্যাচ বাঁচাল ঢাকা

এনামুল হক জুনিয়রের স্পিনে একটা সময় জয়ের সম্ভাবনা জেগেছিল সিলেটের। তবে শুভাগত হোম চৌধুরি ও আরাফাত সানি জুনিয়রের ব্যাটে ম্যাচ বাঁচিয়েছে ঢাকা বিভাগ।

ক্রীড়া প্রতিবেদকবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 1 April 2021, 01:31 PM
Updated : 1 April 2021, 01:31 PM

জাতীয় ক্রিকেট লিগে জয়ের জন্য প্রথম স্তরের ম্যাচের শেষ দিনে ঢাকার প্রয়োজন দাঁড়ায় ৩১০ রান। বড় লক্ষ্য তাড়ার চেষ্টা খুব একটা দেখা যায়নি জয় দিয়ে আসর শুরু করা দলটির মাঝে। শেষ পর্যন্ত ৬৪ ওভারে তারা ৫ উইকেটে ১৪৭ রান করলে ড্র মেনে নেন দুই অধিনায়ক। 

কক্সবাজারের শেখ কামাল আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়াম একাডেমি মাঠে বৃহস্পতিবার ৬ উইকেটে ১৮৩ রান নিয়ে দিন শুরু করে সিলেট। আগের দিন দারুণ দৃঢ়তা দেখানো আসাদুল্লাহ আল গালিব ও তানজিম হাসানের জুটি এদিন টেকেনি বেশিক্ষণ।

৬১ রানের সঙ্গে তারা যোগ করতে পারেন কেবল ১৫ রান। সালাউদ্দিন শাকিলের বলে কট বিহাইন্ড হয়ে থামেন টানা দুই ইনিংসে নিজের আগের সেরাকে ছাড়িয়ে যাওয়া আসাদুল্লাহ। ১৬৪ বলে খেলা তার ৮২ রানের ইনিংসে ৭ চারের পাশে একটি ছক্কা।

এরপর বেশিদূর এগোয়নি সিলেটের ইনিংস। অভিষিক্ত তানজিম করেন ৩৩। এদিন তারা যোগ করতে পারে কেবল ৩৬ রান। 

৩১০ রানের লক্ষ্য পাওয়া ঢাকা শুরুতেই হারায় জয়রাজ শেখকে। লম্বা সময় ক্রিজে থাকলেও আব্দুল মজিদ করতে পারেন কেবল ১২ রান। তাকে বোল্ড করে শিকার শুরু করেন এনামুল জুনিয়র।

সাইফ হাসান এগিয়ে যাচ্ছিলেন স্বচ্ছন্দে। মাহিদুল ইসলামের সঙ্গে জমে গিয়েছিল তার জুটি। তাকে থামিয়ে ৪৭ রানের জুটি ভাঙেন এনামুল জুনিয়র। ৮৯ বলে খেলা সাইফের ৬৪ রানের ইনিংস গড়া ৫ চার ও ২ ছক্কায়।

প্রথম ইনিংসে ৭ উইকেট নেওয়া রাহাতুল ফেরদৌস ভাঙেন মাহিদুলের প্রতিরোধ। তাইবুর রহমানকে দ্রুত ফিরিয়ে ম্যাচ জমিয়ে তোলেন এনামুল জুনিয়র।

তবে ১১৬ রানে ৫ উইকেট হারানো ঢাকা প্রতিরোধ গড়ে শুভাগত ও সানি জুনিয়রের ব্যাটে। ১৯.১ ওভারে দুই জনে গড়েন ৩১ রানের জুটি। এতে সানি জুনিয়রের অবদান ৭৪ বলে ১৩।

প্রথম ইনিংসের সেঞ্চুরিয়ান শুভাগত ৫৪ বলে অপরাজিত থাকেন ২০ রানে। প্রথম ইনিংসের সেঞ্চুরি আর ম্যাচে ৬ উইকেটের জন্য তিনিই জেতেন ম্যাচ সেরার পুরস্কার।

৩১ রানে ৩ উইকেট নেন এনামুল জুনিয়র। প্রথম ইনিংসে প্রায় একাই ঢাকাকে ধসিয়ে দেওয়া রাহাতুল এবার ২০ ওভারে নিতে পারেন কেবল ১ উইকেট।  

এই ড্রয়ে প্রথম স্তরের পয়েন্ট তালিকার শীর্ষে উঠে এসেছে ঢাকা। তাদের মোট পয়েন্ট ১৩ দশমিক ৪৪। রংপুর বিভাগের কাছে ৭ উইকেটে হারা খুলনা বিভাগ ১২ দশমিক ০৩ পয়েন্ট নিয়ে আছে দ্বিতীয় স্থানে। রংপুরের পয়েন্ট ১১.৬৪। ১ দশমিক ৫ পয়েন্ট নিয়ে তলানিতে সিলেট।

সংক্ষিপ্ত স্কোর:

সিলেট প্রথম ইনিংস: ১১৪.৪ ওভারে ৩৭০ রান।

ঢাকা প্রথম ইনিংস: ৭৯.১ ওভারে ২৮০

সিলেট দ্বিতীয় ইনিংস: (আগের দিন ১৮৩/৬) ৮১.৫ ওভারে ২১৯ (আসাদুল্লাহ ৮২, তানজিম ৩৩, এনামুল জুনিয়র ৬, আবু জায়েদ ১৩*, রুয়েল ০; সুমন ১৬-৭-৩৬-২, সালাউদ্দিন ৯-১-১৩-১, নাজমুল ১৮.৫-৩-৬২-২, সানি জুনিয়র ৫-০-২৫-০, তাইবুর ৭-০-১৮-১, শুভাগত ১৪-২-৩৯-২, সাইফ ১২-৪-১৯-২)

ঢাকা দ্বিতীয় ইনিংস: ৬৪ ওভারে ১৪৭/৫ (জয়রাজ ৩, মজিদ ১২, সাইফ ৬৪, মাহিদুল ২৬, তাইবুর ৮, শুভাগত ২০* সানি জুনিয়র ১৩*; আবু জায়েদ ৮-৩-৯-০, রুয়েল ৯-২-৩২-১, তানজিম ৭-০-২৪-০, রাহাতুল ২০-৩-৪৭-১,এনামুল জুনিয়র ১৭-৪-৩১-৩, আসাদুল্লাহ ৩-১-৩-০)

ফল: ম্যাচ ড্র

ম্যান অব দা ম্যাচ: শুভাগত হোম

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক