জাকিরের টানা দ্বিতীয় সেঞ্চুরি

দলের ১৩ রানে নেই দুই উইকেট। ৫০ রানের মধ্যে আরও একটি। বিপদে পড়া দলের হাল ধরলেন জাকির হাসান। টানা দ্বিতীয় ম্যাচে করলেন সেঞ্চুরি। সঙ্গে জাকের আলির ফিফটিতে শুরুর ধাক্কা সামলে বড় সংগ্রহের পথে সিলেট। তবে শুভাগত হোমের হাত ধরে দিনের শেষ সেশনে দ্রুত তিন উইকেট তুলে নিয়েছে ঢাকা।

ক্রীড়া প্রতিবেদকবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 29 March 2021, 11:52 AM
Updated : 29 March 2021, 01:10 PM

জাতীয় ক্রিকেট লিগের প্রথম স্তরে দ্বিতীয় রাউন্ডে সোমবার ৬ উইকেটে ২৮২ রান তুলে প্রথম দিন শেষ করেছে সিলেট। ২৪ রানে ব্যাট করছেন আসাদুল্লাহ আল গালিব, সঙ্গে আছেন অধিনায়ক এনামুল হক জুনিয়র (০*)।

চারে নেমে ১৫৯ রানের ইনিংস খেলেন জাকির। জাকের করেন ৬৭ রান। চতুর্থ উইকেটে দুজনে গড়েন ১৫৫ রানের জুটি। এই দুজনের উইকেটসহ ৫৬ রানে তিন উইকেট নিয়ে দিনের সেরা বোলার শুভাগত।

কক্সবাজারের শেখ কামাল ইন্টারন্যাশনাল ক্রিকেট স্টেডিয়াম একাডেমি গ্রাউন্ডে টস হেরে ব্যাটিংয়ে নামে প্রথম রাউন্ডে খুলনার কাছে হারা সিলেট। চার ওভারের মধ্যে প্যাভিলিয়নে ফেরেন দুই ওপেনার সায়েম আলম ও শানাজ আহমেদ।

প্রথম ওভারেই সুমন খানের বলে দ্বিতীয় স্লিপে শানাজের ক্যাচ নেন শুভাগত। সালাউদ্দিন শাকিলের বলে লেগ স্লিপে সায়েমের ক্যাচ নেন জয়রাজ শেখ।

অমিত হাসানের সঙ্গে জাকিরের জুটি জমতে দেননি তরুণ ডানহাতি পেসার সুমন। শর্ট থার্ড ম্যানে অমিতের ক্যাচ নেন সাইফ হাসান, ভাঙে ৩৭ রানের সম্ভাবনাময় জুটি।

এরপরই জাকিরের সঙ্গে কিপার-ব্যাটসম্যান জাকেরের প্রতিরোধ। দুজনের ২৮৯ বলে ১৫৫ রানের জুটির পথে ৯০ বলে ফিফটি স্পর্শ করেন জাকির। শুভাগতর বল ডিপ এক্সট্রা কাভারে ঠেলে তিন রান নিয়ে ১৬১ বলে পূর্ণ করেন প্রথম শ্রেণির ক্যারিয়ারে নিজের সপ্তম সেঞ্চুরি।

শুভাগতর বলে জাকের প্রথম স্লিপে নাদিফ চৌধুরিকে ক্যাচ দিলে ভাঙে এই জুটি। ৯৮ বলে ফিফটি করা জাকের ১৫৩ বলে সাত চারে করেন ৬৭ রান।

সেঞ্চুরির পর দ্রুত এগিয়ে যান খুলনার বিপক্ষে ১৪০ রান করা জাকির, দেড়শয় পৌঁছাতে লাগে ৫৩ বল। শুভাগতর বলে লং অফে ধরা পড়ার আগে আসাদুল্লাহ আল গালিবের সঙ্গে গড়েন ৫৯ রানের আরেকটি কার্যকর জুটি। এর ৪৭ রানই জাকিরের।

২৩ বছর বয়সী এই বাঁ হাতি ব্যাটসম্যান ২২৮ বলে ১৫৯ রানের ইনিংসটি সাজান ১৭ চার ও দুই ছক্কায়।

এরপর অফ স্পিনার শুভাগতর বলে লং অফে ক্যাচ দিয়ে ফেরেন রাহাতুল ফেরদৌস। প্রথম রাউন্ডে রংপুরের বিপক্ষে ঢাকার জয়ের নায়ক নাজমুল ইসলাম অপু ২৫ ওভারে ৮১ রান দিয়ে এদিন উইকেটশূন্য।

এরপর আর বিপদ হতে দেননি আসাদুল্লাহ ও এনামুল জুনিয়র। ৭৯ বলে ২৪ রান করে অপরাজিত আছেন আসাদুল্লাহ।

সংক্ষিপ্ত স্কোর:

সিলেট প্রথম ইনিংস: ৯০ ওভারে ২৮২/৬ (সায়েম ১১, শানাজ ০, অমিত ১৩, জাকির ১৫৯, জাকের ৬৭, আসাদুল্লাহ ২৪*, রাহাতুল ৫, এনামুল জুনিয়র ০*; সুমন ১৫-২-৪৮-২, শাকিল ১৫-২-৪৮-১, নাজমুল অপু ২৫-২-৮১-০, শুভাগত ১৯-৩-৫৬-৩, সানি জুনিয়র ১-০-৬-০, তাইবুর ১০-০-২৯-০, সাইফ ৫-১-১৩-০)

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক