তামিমের পঞ্চাশের পঞ্চাশ

বাংলাদেশের ব্যাটিং রেকর্ডে অনেকগুলো ‘প্রথম’ জন্ম হয়েছে যার ব্যাট থেকে, সেই তামিম ইকবাল গড়লেন আরেকটি কীর্তি। বাংলাদেশের প্রথম ব্যাটসম্যান হিসেবে স্পর্শ করলেন ওয়ানডেতে ফিফটির ফিফটি।

ক্রীড়া প্রতিবেদকবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 23 March 2021, 03:03 AM
Updated : 23 March 2021, 03:04 PM

নিউ জিল্যান্ডের বিপক্ষে দ্বিতীয় ওয়ানডেতে মঙ্গলবার ক্রাইস্টচার্চে ফিফটি করেন তামিম। ওয়ানডেতে যেটি তার পঞ্চাশতম পঞ্চাশ। সঙ্গে ১৩টি সেঞ্চুরি তো আছেই, যেখানেও তিনি দেশের সবার ওপরে।

ম্যাচের প্রথম ওভারে ট্রেন্ট বোল্টকে দারুণ ফ্লিকে বাউন্ডারি মেনে শুরু করেন তামিম। দ্বিতীয় ওভালে লিটন দাসের আউটের পর একটু সতর্ক ব্যাটিং করতে থাকেন অধিনায়ক। পরে অষ্টম ওভারে দুর্দান্ত তিন শটে তিনটি বাউন্ডারি আদায় করেন ম্যাট হেনরির বলে।

পরে এক প্রান্ত আগলে টেনে নেন তিনি দলের ইনিংস। মিচেল স্যান্টনারের বলে সিঙ্গেল দিয়ে ফিফটি স্পর্শ করেন ৮৪ বলে। ম্যাচের প্রেক্ষাপটে দারুণ গুরুত্বপূর্ণ ইনিংস। ওই ওভারেই দুটি বাউন্ডারিতে উদযাপন করেন নিজের ফিফটি।

ইনিংসটির পথচলায় অবশ্য নাটকীয়তার জন্ম হয়েছে একবার। পঞ্চদশ ওভারে তামিমের ড্রাইভে অনেকটা নিচু হয়ে ফিরতি ক্যাচ নেন ৬ ফুট ৮ ইঞ্চি উচ্চতার বোলার কাইল জেমিসন। বোলারসহ কিউই ফিল্ডাররা উল্লাসে মাতেন। কিন্তু ক্যাচ নিয়ে সংশয়ে সিদ্ধান্ত যায় টিভি আম্পায়ারের কাছে। মাঠের আম্পায়ারের সফট সিগনাল ছিল ‘আউট।’

টিভি আম্পায়ার বারবার রিপ্লে দেখে রায় দেন, ক্যাচ নেওয়ার পর একদম শেষ মুহূর্তে বল পুরো নিয়ন্ত্রণে ছিল না জেমিসনের, বল খানিকটা স্পর্শ করে মাটিতে। মাঠের বড় পর্দায় ‘নট আউট’ সিদ্ধান্ত দেখে হতাশার ভঙ্গি করেন জেমিসন। তামিম এগিয়ে যান ফিফটির পথে।

বাংলাদেশের হয়ে ৪৮ ফিফটি নিয়ে দুইয়ে আছেন সাকিব আল হাসান। মুশফিকুর রহিমের ফিফটি ৩৯টি, মাহমুদউল্লাহর ২২টি।

তামিম ফিফটি ছোঁয়ার ওভার শেষে ২৫ ওভারে বাংলাদেশের রান ২ উইকেটে ১০৭। লিটন দাস শূন্য রানে আউট হওয়ার পর সৌম্য সরকারের সঙ্গে ৮১ রানের জুটি গড়েন তামিম। ৪৬ বলে ৩২ রান করে সৌম্য স্টাম্পড হন স্যান্টনারের বলে।

তামিম ইনিংসটিকে সেঞ্চুরিতে নিতে পারলে অবশ্য ফিফটি আবার হয়ে যাবে ৪৯টি। তাতে নিশ্চয়ই তামিম বা দল, কারও অখুশি হওয়ার কারণ নেই!

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক