‘পান্তকে পান্তের মতো থাকতে দাও’

স্তুতির জোয়ারে এখন যেমন ভাসছেন রিশাভ পান্ত, তেমনি সমালোচনাও নানা সময়ে কম শুনতে হয়নি তাকে। তার ঘরানার ব্যাটসম্যানের পারফরম্যান্স আতশি কাঁচের নিচে থাকে নিত্য। ম্যাচ জেতানো ইনিংস যেমন তারা খেলতে পারেন, দৃষ্টিকটু আউটও হন অনেক। রোহিত শর্মার তাই অনুরোধ, পান্তকে নিয়ে বেশি কাঁটাছেড়া না করে তাকে স্বাধীনভাবে খেলতে দেওয়া হোক।

স্পোর্টস ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 11 March 2021, 06:35 AM
Updated : 11 March 2021, 06:35 AM

ইংল্যান্ডের বিপক্ষে সদ্য সমাপ্ত সিরিজে চোখধাঁধানো সব শটের পসরা সাজিয়ে পান্ত খেলেছেন দুর্দান্ত কিছু ইনিংস। দলের বিপর্যয়ে নেমে বারবার তার বিধ্বংসী ইনিংস পাল্টে দিয়েছে ম্যাচের চিত্র। এই সিরিজের আগে অস্ট্রেলিয়া সফরেও তার পারফরম্যান্স ছিল নজরকাড়া।

২৩ বছর বয়সী এই কিপার-ব্যাটসম্যানের ব্যাটিং নিয়ে চলছে বিশ্লেষণ। সঙ্গে চেপে বসছে প্রত্যাশার ভারও।

পান্ত এখান থেকে আরও এগিয়ে যাবেন বলেই বিশ্বাস রোহিত শর্মার। তবে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে টি-টোয়েন্টি সিরিজ শুরুর আগে একটি শঙ্কার কথা বললেন ভারতের এই সিনিয়র ক্রিকেটার।

“ সে আরও ভালো হয়ে সামনে ছুটবে। পিছু তাকানোর কিছু নেই। অস্ট্রেলিয়া সফর থেকে শুরু করে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে ঘরের মাঠের সিরিজে অসাধারণ পারফর্ম করেছে সে। আমি তো দেখছি যে তাকে থামানোর কোনো উপায় নেই, যদি না আপনারা তাকে চাপে ফেলে দেন।”

রোহিতের নিজেরও এই অভিজ্ঞতার সঙ্গে পরিচয় আছে। প্রত্যাশার চাপের সঙ্গে তাল মেলাতে না পেরে একসময় হারিয়েই যেতে বসেছিলেন। তবে মানিয়ে নিয়ে নিজেকে নতুন ভাবে মেলে ধরেন। এখন তার চাওয়া, পান্তকে নিজের মতো খেলতে দেওয়া হোক।

“ তাকে নিজের মতো থাকতে দেওয়া গুরুত্বপূর্ণ। খেলাটা সে উপভোগ করে, মাঠে তা নিশ্চয়ই দেখেছেন। টিম ম্যানেজমেন্ট থেকে আমরা এটাই দেখতে চাই, মাঠে নেমে সে উপভোগ করবে খেলা এবং যা মন চায়, করবে। জরুরি হলো, আমরা যেন তাকে তার মতো থাকতে দেই এবং স্বাধীন হয়ে খেলার সুযোগ দেই। এই স্বাধীনতা তার প্রয়োজন।”

“ তাকে মুক্ত করে দিতে হবে। আমরা যদি পান্তকে পান্তের মতো থাকতে দেই, তাহলে সে এরকম পারফরম্যান্স আরও উপহার দেবে। আগেও আমি অনেকবার বলেছি, ‘তাকে তার মতো থাকতে দাও’, তাহলেই তার সেরাটা পাওয়া যাবে।”

পান্ত মানে শুধু দুঃসাহসী স্ট্রোক খেলাই নয়, রোহিত এখন তাকে পরিণত হতেও দেখছেন।

“ তার খেলায় এখন সবচেয়ে উল্লেখযোগ্য ব্যাপার হলো, ম্যাচের পরিস্থিতি বুঝে উঠতে শুরু করেছে সে। এখানে উন্নতির ছাপ আছে। কিপিংয়ে ও ব্যাটিংয়ের ধরনে খুব ভালো মনে হচ্ছে তাকে। এই সিরিজের পারফরম্যান্সও তার আত্মবিশ্বাস আরও উঁচুতে নিয়ে যাবে।”

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক