মোসাদ্দেকের ব্যাটে রান

দলের প্রয়োজনের সময় হাল ধরলেন মোসাদ্দেক হোসেন। মারাঠা অ্যারাবিয়ান্সকে নিয়ে গেলেন একশ রানের কাছে। তবে অধিনায়কের লড়াই যথেষ্ট ছিল না। দিল্লি বুলসের কাছে বড় ব্যবধানেই হেরেছে তারা।

স্পোর্টস ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 29 Jan 2021, 04:38 PM
Updated : 29 Jan 2021, 04:38 PM

আবু ধাবি টি-টেনে এক পেশে লড়াইয়ে ৯ উইকেটে হেরেছে মারাঠা। তাদের ৮৭ রান পাঁচ ওভারেই ছাড়িয়ে গেছে দিল্লি।

বোলিংয়ে ভালো করতে পারেননি সোহাগ গাজী ও মুক্তার আলি। খরুচে বোলিং করেছেন অফ স্পিনার সোহাগ। ঝড় বয়ে গেছে পেসার মুক্তারের উপর দিয়ে।

আবু ধাবির শেখ জায়েদ স্টেডিয়ামে শুক্রবার টস হেরে ব্যাট করতে নেমে শুরুটা ভালো হয়নি মারাঠার। চতুর্থ ওভারে ২৬ রানের মধ্যে হারিয়ে ফেলে ৩ উইকেট।

সেখান থেকে দলকে টানেন মোসাদ্দেক। অনেকটা সময় তাকে সঙ্গ দিলেও ঝড় তুলতে পারেননি জাভেদ আহমাদি। চেষ্টা করে গেছেন মোসাদ্দেক। ২২ বলে ৫ চার ও এক ছক্কায় খেলেন অপরাজিত ৩৫ রানের ইনিংস।

রান তাড়ায় শুরুতেই রহমানউল্লাহ গুরবাজকে হারায় দিল্লি। পরের জুটি আর ভাঙতে পারেনি মারাঠা। ২৮ বলে ৮৫ রানের খুনে জুটিতে দলকে সহজ জয় এনে দেন এভিন লুইস ও রবি বোপারা।

১২ বলে ৫ চারে ২৮ রানে অপরাজিত থাকেন বোপারা। ১৬ বলে ৭ ছক্কা ও ২ চারে ৫৫ রান করেন লুইস। ক্যারিবিয়ান ওপেনারের ঝড়ের বড় অংশটা গেছে মুক্তারের উপর দিয়ে। এই অলরাউন্ডারের ওভার থেকে পাঁচ ছক্কায় নেন ৩৩ রান।

আগের ম্যাচে বোলিং-ব্যাটিং কিছুই না পাওয়া সোহাগ বল হাতে নিয়েই হজম করেন ছক্কা। তার সেই ওভার থেকে আসে ১৬ রান।

এর আগে দিনের প্রথম ম্যাচে বোলিংয়ে সুবিধা করতে পারেননি নাসির হোসেন। তার দল পুনে ডেভিলস ৯ উইকেটে হারে কালান্দার্সের বিপক্ষে।

২ উইকেটে ১০৭ রান করে পুনে। ৭.১ ওভারে কেবল টম ব্যান্টনের উইকেট হারিয়ে লক্ষ্য ছুঁয়ে ফেলে কালান্দার্স। আগের ম্যাচে ৩ উইকেট নেওয়া নাসির ১ ওভারেই দেন ২১ রান।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক