সিমির অলরাউন্ডার নৈপুণ্যে সিরিজ হার এড়াল আয়ারল্যান্ড

টপ অর্ডারের ব্যর্থতার দিনে ক্যারিয়ার সেরা ব্যাটিংয়ে দলকে এনে দিলেন লড়াইয়ের পুঁজি। পরে বল হাতে গড়লেন কম খরচে পাঁচ উইকেট নেওয়ার দারুণ কীর্তি। সিমি সিংয়ের এমন দাপুটে অলরাউন্ডার নৈপূণ্যে সংযুক্ত আরব আমিরাতকে উড়িয়ে সিরিজ হার এড়াল আয়ারল্যান্ড।

স্পোর্টস ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 18 Jan 2021, 02:34 PM
Updated : 18 Jan 2021, 02:34 PM

আবু ধাবির শেখ আবু জায়েদ স্টেডিয়ামে সোমবার সিরিজের চতুর্থ ও শেষ ওয়ানডেতে ১১২ রানে জিতেছে আয়ারল্যান্ড। ২২৯ রানের লক্ষ্যে ১১৬ রানে গুটিয়ে যায় স্বাগতিকদের ইনিংস।

ব্যাট হাতে অপরাজিত ৫৪ রানের পর বল হাতে ১০ রানে ৫ উইকেট নেন স্পিনিং অলরাউন্ডার সিমি। ওয়ানডে ইতিহাসে কম খরচে পাঁচ উইকেট নেওয়ার তালিকায় সিমির এই পারফরম্যান্স পঞ্চম।

চার ম্যাচের সিরিজ শেষ হলো ১-১ সমতায়। করোনাভাইরাসের কারণে দ্বিতীয় ও তৃতীয় ম্যাচ পরিত্যক্ত হয়েছিল।

টস হেরে ব্যাটিংয়ে নামা আইরিশদের শুরুটা ভালো ছিল না। মাত্র ১০ রানে তারা হারায় দুই ওপেনার পল স্টার্লিং ও কেভিন ও’ব্রায়েন এবং অধিনায়ক অ্যান্ড্রু বালবার্নিকে।

চতুর্থ উইকেটে হ্যারি টেক্টর ও লর্কান টাকারের ৭২ রানের জুটিতে ঘুরে দাঁড়ায় সফরকারীরা। ৬০ বলে ৩৩ রান করা টেক্টরকে বোল্ড করে জুটি ভাঙেন আহমেদ রাজা।

এরপর কার্টিস ক্যাম্পারের সঙ্গে ৯১ রানের জুটি গড়েন সিমি। ৭২ বলে দুই চার ও এক ছক্কায় ৫৬ রান করা ক্যাম্পারকে এলবিডব্লিউ করে জুটি ভাঙেন জহুর খান।

অবিচ্ছিন্ন ষষ্ঠ উইকেট জুটিতে আসে ১৯ বলে ৩৮ রান। ক্যারিয়ারের প্রথম ফিফটি করে অপরাজিত থাকেন সিমি। তার ৫৭ বলে ৫৪ রানের ইনিংসে চার ও ছক্কা দুটি করে।

রান তাড়ায় সংযুক্ত আরব আমিরাতের শুরুটা ছিল বেশ ভালো। উদ্বোধনী জুটি থেকে আসে ৪৬ রান।

এরপরই বল হাতে চিত্রপট পাল্টে দেন সিমি; একে একে ফেরত পাঠান প্রথম পাঁচ ব্যাটসম্যানকে। ১৮ রানের মধ্যে ৬ উইকেট হারায় সংযুক্ত আরব আমিরাত।

২১ ওয়ানডের ক্যারিয়ারে প্রথম পাঁচ উইকেটের স্বাদ পেলেন ভারতীয় বংশদ্ভুত এই ডানহাতি অফ স্পিনার। ১০ ওভারে মাত্র ১০ রান দেওয়ার পথে চারটি নেন মেডেন।

এরপর আর কেউ দাঁড়াতে পারেননি। সর্বোচ্চ ২৮ রান করেন ওপেনার জাওয়ার ফরিদ। ১৪ ওভার বাকি থাকতেই শেষ হয় সংযুক্ত আরব আমিরাতের ইনিংস।

সংক্ষিপ্ত স্কোর:

আয়ারল্যান্ড: ৫০ ওভারে ২২৮/৬ (স্টার্লিং ৪, ও’ব্রায়েন ২, বালবার্নি ৩, টেক্টর ৩৩, টাকার ৪২, ক্যাম্পার ৫৬, সিমি ৫৪*, ডেলানি ১৫*; জহুর ৮-১-৩৫-৩, কাশিফ ৮-০-৪৩-১, রোহান ১০-০-৩৫-০, ওয়াহিদ ৪-০-১৮-০, রাজা ১০-০-৩৭-২, পালানিয়াপান ৭-০-৩৭-০, বসিল ৩-০-১৬-০)।

সংযুক্ত আরব আমিরাত: ৩৬ ওভারে ১১৬ (জাওয়ার ২৮, আরাভিন্দ ১৮, রিজওয়ান ১, বসিল ২, উসমান ৩, রোহান ৭, কাশিফ ২০, ওয়াহিদ ৯, রাজা ১৪, পালানিয়াপান ১৪, জহুর ১*; ম্যাককার্থি ৫-০-২৬-০, ইয়াং ৬-১-২৬-০, সিমি ১০-৪-১০-৫, ক্যাম্পার ৪-১-৩-০, ও’ব্রায়েন ৪-১-২২-১, ম্যাকব্রাইন ৫-০-১৯-১, ডেলানি ২-০-১০-১)।

ফল: আয়ারল্যান্ড ১১২ রানে জয়ী।

ম্যান অব দা ম্যাচ: সিমি সিং।

ম্যান অব দা সিরিজ: কার্টিস ক্যাম্পার।

সিরিজ: চার ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজ ১-১ ড্র।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক