মেলবোর্নে ভারতকে উড়িয়ে দেবে অস্ট্রেলিয়া: ওয়ার্ন

অ্যাডিলেইডে চরম ব্যর্থতার পর মানসিকভাবে বিপর্যস্ত ভারত, মনে করছেন শেন ওয়ার্ন। মেলবোর্নে তাই অস্ট্রেলিয়াকে অনেকটা এগিয়ে রাখছেন তিনি। কিংবদন্তি লেগ স্পিনারের মতে, বক্সিং ডে টেস্টেও সফরকারীদের স্রেফ উড়িয়ে দিবে টিম পেইনের দল।

স্পোর্টস ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 24 Dec 2020, 11:16 AM
Updated : 24 Dec 2020, 11:16 AM

সিরিজের প্রথম ম্যাচের দ্বিতীয় ইনিংসে ভারতকে তাদের টেস্ট ইতিহাসের সর্বনিম্ন ৩৬ রানে অলআউটের তেতো স্বাদ দেয় অস্ট্রেলিয়া। দুর্দান্ত পারফরম্যান্সে ৮ উইকেটের সহজ জয় তুলে নেয় তারা। আগামী শনিবার দ্বিতীয় টেস্টে মুখোমুখি হবে দুই দল।

দারুণ ছন্দে থাকা অস্ট্রেলিয়ার আত্মবিশ্বাস যেখানে তুঙ্গে, ভারতের সেখানে তলানিতে। সঙ্গে অধিনায়ক বিরাট কোহলি, অভিজ্ঞ পেসার মোহাম্মদ শামিকে পাচ্ছে না তারা। সব মিলিয়ে ফক্স ক্রিকেটে প্রকাশিত বৃহস্পতিবারের সাক্ষাৎকারে ওয়ার্ন জানান, পরের টেস্টেও দলটির ঘুরে দাঁড়ানোর কোনো সম্ভাবনা দেখছেন না তিনি।

“আমার মনে হয়, অস্ট্রেলিয়া সম্ভবত তাদেরকে (ভারত) উড়িয়ে দিবে। তাদের দলে লোকেশ রাহুলের মতো ক্লাস ক্রিকেটাররা আসছে। তরুণ গিলও আসবে। রাহানে দারুণ একজন। আমরা জানি, পুজারা কি করতে পারে।”

“তবে, মোহাম্মদ শামি তাদের জন্য বড় ঘাটতি। সে মানসম্পন্ন একজন বোলার যে সিমে হিট করে এবং বাউন্স আদায় করে নেয়। একই সঙ্গে স্টাম্প সোজা গুড লেংথে বোলিং করে।”

অ্যাডিলেইড টেস্টে কেবল ভারতের ব্যর্থতাকেই দেখছেন না লাল বলের ক্রিকেটে ৭০৮ উইকেট নেওয়া ওয়ার্ন। তার নজরে, এমন ফলাফলের জন্য বেশি কৃতিত্ব অস্ট্রেলিয়ান বোলারদের।

দুর্দান্ত বোলিংয়ে সেদিন ভারতীয় ব্যাটিং লাইন-আপে ধস নামিয়েছিলেন প্যাট কামিন্স, জশ হেইজেলউড। বিব্রতকর রেকর্ড গড়া ভারতের ওই ইনিংসে এই দুই পেসারের প্রাপ্তি ৯ উইকেট। কামিন্স নেন ২১ রান ৪টি, মাত্র ৮ রান দিয়ে হেইজেলউড নেন ৫টি।

কামিন্স, হেইজেলউড, মিচেল স্টার্ক ও ন্যাথান লায়নরা নিজেদের অন্য পর্যায়ে নিয়ে যাচ্ছেন বলে মনে করেন ওয়ার্ন।

“হ্যাঁ, ভারতীয়দের ব্যর্থতার কথা বলা যায়। তবে আমার মনে হয়, অস্ট্রেলিয়ানরা যেভাবে বোলিং করেছে তাতে কৃতিত্বটা তাদেরই দেওয়া উচিত ।”

“অস্ট্রেলিয়ার বোলিং আক্রমণ ছিল অসাধারণ। চারজন বোলারের সঙ্গে (অলরাউন্ডার) গ্রিন। দীর্ঘ দিন ধরেই তারা দারুণ বোলিং করে আসছে। নিজেদেরকে গ্রেট বোলারে পরিণত করছে তারা। অ্যাডিলেইডে তাদের বোলিং দেখা ছিল দারুণ।”

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক