ক্যারিয়ার সেরা র‍্যাঙ্কিংয়ে সাউদি-সাইফার্ট

পাকিস্তানকে টি-টোয়েন্টি সিরিজে হারানোয় দুইজনের ছিল গুরুত্বপূর্ণ অবদান। ব্যাট হাতে দুর্দান্ত ছিলেন টিম সাইফার্ট, বল হাতে টিম সাউদি। দারুণ পারফরম্যান্সের প্রতিফলন পড়েছে র‍্যাঙ্কিংয়ে। নিউ জিল্যান্ডের এই দুই ক্রিকেটারই আইসিসির র‍্যাঙ্কিংয়ে ক্যারিয়ার সেরা স্থানে উঠে এসেছেন।

স্পোর্টস ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 23 Dec 2020, 12:26 PM
Updated : 23 Dec 2020, 12:26 PM

নিউ জিল্যান্ড-পাকিস্তানের মধ্যে তিন ম্যাচের সিরিজ শেষে টি-টোয়েন্টি র‍্যাঙ্কিংয়ের হালানাগাদ বুধবার প্রকাশ করেছে আইসিসি। ব্যাটসম্যানদের তালিকায় সেরা দশে ঢোকা ওপেনার সাইফার্ট আছেন নয়ে। সাউদিও প্রথমবার জায়গা পেয়েছেন দশের ভেতর, বোলারদের মধ্যে ৬ ধাপ এগিয়ে আছেন সাত নম্বরে।

সিরিজ জুড়ে দুর্দান্ত ধারাবাহিক ছিলেন সাইফার্ট। দুই ফিফটিতে রান করেছেন সর্বোচ্চ ১৭৬। সিরিজ সেরা হওয়া এই ক্রিকেটার র‍্যাঙ্কিংয়ে এগিয়েছেন ২৪ ধাপ।

নিউ জিল্যান্ডের ব্যাটসম্যানদের মধ্যে র‍্যাঙ্কিংয়ে উন্নতি হয়েছে ডেভন কনওয়ের (১০ ধাপ এগিয়ে ৬২তম) ও গ্লেন ফিলিপসেরও (১৫ ধাপ এগিয়ে ক্যারিয়ার সেরা ৭২তম)। বোলারদের তালিকায় স্কট কুগেলাইন ৪২ ধাপ এগিয়ে ৯২তম স্থানে উঠেছেন। দুই ধাপ পিছিয়ে মিচেল স্যান্টনার এখন নয়ে।

সিরিজে পাকিস্তানের মোহাম্মদ হাফিজ ক্যারিয়ার সেরা অপরাজিত ৯৯ রান সহ মোট ১৪০ রান করেন। তার উন্নতি ১৪ ধাপ, আছেন ৩৩তম স্থানে। নেপিয়ারে ম্যাচ জেতানো ৮৯ রানের ইনিংস খেলা মোহাম্মদ রিজওয়ান এগিয়েছেন ১৫২ ধাপ! আছেন ১৫৮তম স্থানে।

পাকিস্তানের ফাহিম আশরাফ ২২ ধাপ এগিয়ে বোলারদের র‍্যাঙ্কিংয়ে ১৩তম এবং শাহিন শাহ আফ্রিদি ১১ ধাপ এগিয়ে ক্যারিয়ার সেরা ১৬তম স্থানে। উন্নতি হয়েছে হারিস রউফেরও।

ব্যাটসম্যান, বোলার ও অলরাউন্ডারদের র‍্যাঙ্কিংয়ে শীর্ষ স্থানগুলোয় পরিবর্তন আসেনি।

ব্যাটসম্যানদের মধ্যে সেরা দাভিদ মালান, বোলারদের র‍্যাঙ্কিংয়ে শীর্ষে রশিদ খান আর অলরাউন্ডারদের তালিকার চূড়ায় মোহাম্মদ নবি।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক