বাবরের অধিনায়কত্ব নিয়ে প্রশ্ন শোয়েবের

ইংল্যান্ডের বিপক্ষে দুইশর কাছাকাছি রান করে হারের পর পাকিস্তান অধিনায়ক বাবর আজমের কড়া সমালোচনা করেছেন শোয়েব আখতার। সাবেক পাকিস্তানি এই পেসার বাবরের নেতৃত্বের সামর্থ্য নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন। মাঠে তার আচরণ ও চলাফেরা দেখে মনে হচ্ছিল সে যেন নিজেকে হারিয়ে খুঁজছে।

স্পোর্টস ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 31 August 2020, 11:59 AM
Updated : 31 August 2020, 12:23 PM

উত্তরসূরিকে সমালোচনার তীরে বিদ্ধ করেছেন দেশটির আরেক সাবেক ক্রিকেটার রমিজ রাজাও। সাবেক এই অধিনায়কের মতে, দলনায়ক হিসেবে বাবরের আরও দায়িত্ব নেওয়া উচিত।

ম্যানচেস্টারে রোববার সিরিজের দ্বিতীয় টি-টোয়েন্টিতে বাবর ও মোহাম্মদ হাফিজের ফিফটিতে ৪ উইকেটে ১৯৫ রানের সংগ্রহ গড়ে পাকিস্তান। ওয়েন মর্গ্যান ও দাভিদ মালানের ফিফটিতে ইংল্যান্ড সেটি পেরিয়ে যায় ৫ উইকেট ও ৫ বল হাতে রেখে। পাকিস্তানের বিপক্ষে এটাই ইংলিশদের সবচেয়ে বড় রান তাড়া করে জয়।

মাঠে বাবর ঠিকমতো সিদ্ধান্ত নিতে পারেননি বলে সোমবার নিজের ইউটিউব চ্যানেলে মন্তব্য করেন শোয়েব। একই সঙ্গে দেন পরামর্শ।

“বাবর আজমকে দেখে মনে হচ্ছিল, সে যেন নিজেকে খুঁজে ফিরছে। সে মাঠে ছিল, কিন্তু জানত না কী করতে হবে। তার নিজে থেকে সিদ্ধান্ত নেওয়াটা গুরুত্বপূর্ণ। আর তা করতে পারলে ভবিষ্যতে সে ভালো অধিনায়ক হতে পারবে।” 

“বাবরকে বুঝতে হবে, সে এখন যে সুযোগ পেয়েছে তা সারাজীবন পাবে না। তাই সুযোগের সদ্ব্যবহার করতে হবে।”

শুধু বাবরকে নয়, মাঠে পাকিস্তান দলের অন্য খেলোয়াড়দের আচরণেরও সমালোচনা করেছেন সাবেক গতিতারকা শোয়েব।

“পাকিস্তান দল বায়ো সিকিউর পরিবেশে খেলছে। সেখানে প্রতিটি খেলোয়াড় যেন নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছে। তাদের কারোর মধ্যে ভালো অধিনায়ক বা ভালো একটি দল হওয়ার প্রচেষ্টা ছিল না। উল্টাপাল্টা দল নির্বাচন, বিশৃঙ্খল টিম ম্যানেজমেন্ট, অধিনায়কের আত্মবিশ্বাসের অভাব-এভাবে একটা দল দাঁড়াতে পারে না।”

বাবরের নিজে নিজে সিদ্ধান্ত নেওয়া গুরুত্বপূর্ণ বলে মনে করেন রমিজও। অধিনায়ক হিসেবে তাকে আরও বেশি কর্তৃত্ব দেখানোর পরামর্শ দিয়েছেন সাবেক এই অধিনায়ক।

"মাঠে অনেকবার সিনিয়র খেলোয়াড়দের বাবর আজম ও বোলারদেরকে ডেকে নিতে দেখা গেছে। ভালোর জন্যই হয়তো তারা এটা করেছে। তবে আমার মনে হয় এতে কখনও কখনও অধিনায়ক আত্মবিশ্বাসের সঙ্গে সিদ্ধান্ত নিতে পারে না। আবার যখন একই সময়ে অনেকে পরামর্শ দেয়, তখন সে চাপে পড়ে যায়। তাই বাবর আজমকে অধিনায়ক হিসেবে আরও বেশি কর্তৃত্ব দেখাতে হবে ও নিয়ন্ত্রণ নিতে হবে।”

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক