‘ইশ্বরের এই অবস্থা!’, টেন্ডুলকারকে দেখে বলেছিলেন শোয়েব

বলা হতো, ক্রিকেট খেলা ভারতে ধর্মের মতো আর শচিন টেন্ডুলকার সেই ধর্মের দেবতা। ভক্তদের অনেকের কাছেই ভারতীয় ব্যাটিং বিস্ময়ের পরিচয় ছিল ‘ক্রিকেট ইশ্বর।’ শোয়েব আখতারের মনেও গেঁথে ছিল টেন্ডুলকারের সেই ছবি। কিন্তু মাঠে দুজনের প্রথম দেখায় হতাশ হয়েছিলেন শোয়েব, পরে বল হাতে হতাশ করেছিলেন টেন্ডুলকারকে। ২১ বছর পর সেই স্মৃতি মনে করলেন সাবেক পাকিস্তানি ফাস্ট বোলার। যথারীতি সেখানে মিশে থাকল বিতর্কের রেশ।

স্পোর্টস ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 2 August 2020, 07:20 AM
Updated : 2 August 2020, 07:39 AM

১৯৯৯ সালে ভারত-পাকিস্তানের কলকাতা টেস্টের ঘটনা সেটি। উইকেটে থিতু হয়ে যাওয়া রাহুল দ্রাবিড়কে দারুণ এক ইয়র্কারে বোল্ড করার পর টেন্ডুলকারকে সামনে পান শোয়েব। প্রথম বলেই আরেকটি গতিময় অসাধারণ ইনসুইং ইয়র্কারে তিনি উপড়ে দেন টেন্ডুলকারের স্টাম্প। কানায় কানায় পূর্ণ ইডেনের গ্যালারি স্তব্ধ হয়ে যায় মুহূর্তেই।

এমন দুর্দান্ত সব ডেলিভারির জন্য যেমন, তেমনি ক্যারিয়ারজুড়ে শোয়েব আলোচিত ছিলেন নানা বিতর্কের সঙ্গী হয়েও। ক্যারিয়ার শেষেও তিনি বারবার খবরের শিরোনামে উঠে আসছেন বিতর্কিত সব মন্তব্য করে। পাকিস্তানের এআরওয়াই নিউজ চ্যানেলে শনিবার শোয়েব তেমনই এক মন্তব্য করলেন টেন্ডুলকারকে নিয়ে।

“ আমি শুনেছিলাম, শচিন নাকি ইশ্বর। দেখা হওয়ার পর বললাম, ‘এটিই ইশ্বর? এর তো অবস্থা ভালো নয়।’ সে আমাকে চেনেনি, আমিও তাকে চিনিনি। সে তার মতো ছিল, আমিও আমার মতো। তবে আমি চেয়েছিলাম তাকে প্রথম বলেই আউট করতে এবং সেটিই করেছিলাম।”

আন্তর্জাতিক ক্যারিয়ারে সব মিলিয়ে ৮ বার টেন্ডুলকারের উইকেট নিয়েছেন শোয়েব। ৮ বার করে আউট করেছেন জ্যাক ক্যালিস, রিকি পন্টিং ও সৌরভ গাঙ্গুলিকেও। সবচেয়ে বেশি ৯ বার শিকার করেছেন তিনি রাহুল দ্রাবিড়ের উইকেট।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক