ব্রড অপরাজিত ৫১ ও অপরাজিত ৪৯৯

প্রথম বোলার হিসেবে আইসিসি টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপে উইকেটের হাফসেঞ্চুরি ছুঁয়ে ফেললেন স্টুয়ার্ট ব্রড। ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে ওল্ড ট্র্যাফোর্ড টেস্টের তৃতীয় দিন শেষে এই আসরে তার উইকেট ৫১টি। আরও বড় একটি মাইলফলক থেকে মাত্র এক কদম দূরে আছেন ইংলিশ পেসার। টেস্ট ক্যারিয়ারে ৫০০ উইকেট ছুঁতে তার প্রয়োজন কেবল আর ১ উইকেট।

স্পোর্টস ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 26 July 2020, 06:31 PM
Updated : 26 July 2020, 06:32 PM

এই ব্রডকেই সিরিজের প্রথম টেস্টের একাদশে রাখেনি ইংল্যান্ড। ৩৪ বছর বয়সী পেসার নিজের ক্ষোভ ও হতাশা উগড়ে দিয়েছিলেন প্রকাশ্যেই। পরের ম্যাচ থেকে সুযোগ পেয়ে জ্বলে উঠেছেন। তার ক্ষোভের আগুনে পুড়ছে ক্যারিবিয়ান ব্যাটিং। দ্বিতীয় টেস্টে ৬ উইকেট নিয়ে বড় অবদান রেখেছিলেন দলের সমতা ফেরানো জয়ে। চলতি টেস্ট তো পুরোই ব্রডময়।

৪৯১ উইকেট নিয়ে এই টেস্ট শুরু করেছিলেন ব্রড। বল হাতে প্রথম ইনিংসে ৬ উইকেট নেন কেবল ৩১ রান দিয়ে। দ্বিতীয় ইনিংসের শুরুতেই দুবার ছোবল দিয়ে ফেলেছেন। ক্যারিবিয়ান ওপেনার জন ক্যাম্পবেলকে আউট করে পূরণ করেন টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপে ৫০ উইকেট। এরপর ফেরান নাইটওয়াচম্যান কেমার রোচকেও।

দিনের খেলা শেষ হয়ে যাওয়ায় ৫০০ উইকেট পূরণের সুযোগ এ দিন আর পাননি। দিন শেষ করেছেন ৪৯৯ উইকেট নিয়ে। এই টেস্টের প্রথম ইনিংসে ব্যাট হাতে ৪৫ বলে ৬২ রানের ঝড়ো এক ইনিংসও খেলেছিলেন দশ নম্বরে নেমে।

টেস্ট ইতিহাসে এখনও পর্যন্ত ৫০০ উইকেটের অভিজাত ক্লাবে জায়গা করে নিতে পেরেছেন মোটে ৬ জন বোলার। টেস্টের শীর্ষ তিন উইকেট শিকারিই স্পিনার, মুত্তিয়া মুরালিধরন (৮০০), শেন ওয়ার্ন (৭০৮) ও অনিল কুম্বলে (৬১৯)। এরপর তিন পেসার জেমস অ্যান্ডারসন (৫৮৯), গ্লেন ম্যাকগ্রা (৫৬৩) ও কোর্টনি ওয়ালশ (৫১৯)। ব্রড মাইলফলকে পা রাখলে পেসারদের পাল্লা হবে ভারী।

টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপে চলতি ম্যাচসহ ১১ ম্যাচে ৫১ উইকেট ব্রডের। ১০ টেস্টে ৪৯ উইকেট নিয়ে ঠিক পেছনেই অস্ট্রেলিয়ান ফাস্ট বোলার প্যাট কামিন্স, ১০ টেস্টে ৪৭ উইকেট অফ স্পিনার ন্যাথান লায়নের।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক