‘সিরিজ চলার সময় আর্চারের সঙ্গে কোনো বন্ধুত্ব নয়’

জন্ম বার্বাডোজে। অনূর্ধ্ব-১৯ পর্যায়ে খেলেছেন ওয়েস্ট ইন্ডিজের হয়ে। স্বাভাবিকভাবেই জফ্রা আর্চারের বন্ধু আছে ক্যারিবিয়ান দলে। সেটাই ফুটে উঠল ওয়েস্ট ইন্ডিজের কেমার রোচের কথায়। তবে অভিজ্ঞ এই পেসার পরিষ্কার জানিয়ে দিলেন, আসছে তিন ম্যাচের সিরিজ চলার সময়ে আর্চারের সঙ্গে বন্ধুত্বের কথা ভুলে থাকবেন তারা।

স্পোর্টস ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 14 June 2020, 05:56 PM
Updated : 14 June 2020, 05:56 PM

ওয়েস্ট ইন্ডিজ অনূর্ধ্ব-১৯ দলের হয়ে তিনটি ম্যাচ খেলা আর্চার পরে বেছে নেনইংল্যান্ডকে। কদিন বাদে শুরু হতে যাচ্ছে স্বাগতিক ইংল্যান্ড ও ওয়েস্ট ইন্ডিজের মধ্যেতিন ম্যাচের টেস্ট সিরিজ। ২৫ বছর বয়সী এই পেসা্রের সঙ্গে সফরকারীদের অনেকেরই ঘনিষ্টতারয়েছে। তবে রোচ জানালেন, মাঠের লড়াই চলার সময় কোনো বন্ধুত্ব নয়।

“জফ্রা তার সিদ্ধান্ত নিয়েছে, যা তার ক্যারিয়ারের জন্য দারুণ কাজ করেছে। এইসিরিজে ওর সঙ্গে কোনো বন্ধুত্ব নেই।”

ওয়েস্ট ইন্ডিজ দলের শেই হোপ, শেমার হোল্ডারের সঙ্গে বন্ধুত্ব আছে আর্চারের।অনূর্ধ্ব-১৯ দলে সতীর্থ ছিলেন আলজারি জোসেফ, প্রেস্টন ম্যাকসুইন। রোচ জানান, সময়ই বলেদেবে আর্চারের সঙ্গে মাঠে তাদের আচরণ কেমন হবে, আপাতত এ নিয়ে ভাবছেন না তারা।

কেমার রোচ

গত বিশ্বকাপে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে ওয়ানডেতে খেলেছেন আর্চার। ৮ জুলাই শুরুহতে যাওয়া প্রথম টেস্ট দিয়ে এই সংস্করণে ক্যারিবিয়ানদের বিপক্ষে খেলবেন প্রথমবার।

সাউথ্যাম্পটন ও ম্যানচেস্টারে ‘জীবাণুমক্ত পরিবেশে’ হবে তিনটি টেস্ট। থাকবেনা কোনো দর্শক। রোচ মনে করেন, স্বাগতিকদের উৎসাহ দিতে মাঠে দর্শকনা থাকায় বাড়তি সুবিধা পাবে ওয়েস্ট ইন্ডিজ।

গত বছর ক্যারিবিয়ানে ২-১ ব্যবধানে সিরিজ জিতেছিল স্বাগতিকরা। রোচ জানান, ইংল্যান্ডেওই একই রকমের আক্রমণাত্মক দেখা যাবে তাদের বোলিং।

সবশেষ ১৯৮৮ সালে ইংল্যান্ডের মাটিতে কোনো টেস্ট সিরিজ জিতেছিল ওয়েস্ট ইন্ডিজ।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক