নিউ জিল্যান্ডের সেরা রস টেইলর

ব্যাট হাতে দুর্দান্ত একটি মৌসুম কাটানোর স্বীকৃতি পেলেন রস টেইলর। নিউ জিল্যান্ড ক্রিকেট অ্যাওয়ার্ডে বর্ষসেরা ক্রিকেটারের খেতাব ‘স্যার রিচার্ড হ্যাডলি পদক’ জিতেছেন এই অভিজ্ঞ ব্যাটসম্যান। এই নিয়ে তৃতীয়বার বর্ষসেরা হলেন ৩৬ বছর বয়সী টেইলর।

স্পোর্টস ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 1 May 2020, 06:08 AM
Updated : 1 May 2020, 06:23 AM

করোনাভাইরাস পরিস্থিতিতে এবার এইঅ্যাওয়ার্ড অনুষ্ঠানের পুরো আয়োজন ছিল ভার্চুয়াল। চার দিন ধরে পর্যাক্রমে ঘোষণা করাহয়েছে বিভিন্ন ক্যাটেগরিতে বিজয়ীদের নাম। সবশেষ ধাপে শুক্রবার এসেছে বর্ষসেরা ক্রিকেটারেরঘোষণা।

তিন সংস্করণ মিলিয়ে গত মৌসুমে ১হাজার ৩৮৯ রান করেছেন টেইলর। স্টিভেন ফ্লেমিংকে ছাড়িয়ে নিউ জিল্যান্ডের হয়ে সবচেয়েবেশি টেস্ট রানের রেকর্ড নিজের করে নিয়েছেন এই সময়টাতেই। ২০১৯ বিশ্বকাপে দলের ফাইনালখেলায় ছিল তার অবদান। বিশ্বের প্রথম ক্রিকেটার হিসেবে তিন সংস্করণে ম্যাচ খেলার সেঞ্চুরিকরেছেন গত মৌসুমেই।

স্বীকৃতি পেয়ে টেইলর স্বাভাবিকভাবেইছিলেন উচ্ছ্বসিত।

“ বছরটা অসাধারণ ছিল। উঠা-নামাওছিল বেশ। বিশ্বকাপ ফাইনাল খেলার আনন্দ… এরপর ফাইনালে হেরে যাওয়া! বক্সিং ডে টেস্টেরঅংশ হওয়াটা ছিল দারুণ গর্বের। কিউই দর্শকেরা যেভাবে মাঠে এসে আমাদের সমর্থন করেছে,কখনোই ভুলব না তা। বছর জুড়ে ধারাবাহিকতা ধরে রাখতে পারায় ও দলে অবদান রাখতে পারায় আমিখুশি।”

যার সম্মানে বর্ষসেরা পদকের নামকরণ,সেই কিংবদন্তি অলরাউন্ডার রিচার্ড হ্যাডলি শুভেচ্ছা জানিয়েছেন টেইলরকে।

“ ২০০৬ সালে নির্বাচক থাকার সময়থেকে আমি তোমার ক্যারিয়ার অনুসরণ করে আসছি, যখন তুমি আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে এসেছো। গত১৪ বছর ধরে দেখছি এবং এখনও পর্যন্ত অসাধারণ পারফরম্যান্সের জন্য অভিনন্দন জানাচ্ছিতোমাকে।”

“ তুমি অসাধারণ এক পারফরমার, নিউজিল্যান্ডের হয়ে তোমার রেকর্ড দুর্দান্ত। শুধু নিউ জিল্যান্ড ক্রিকেটই নয়, বিশ্ব ক্রিকেটেওঅবদানের জন্য তোমাকে ধন্যবাদ।”

নিউ জিল্যান্ড ক্রিকেট অ্যাওয়ার্ডে সেরা যারা:

স্যার রিচার্ড হ্যাডলি মেডেল (বর্ষসেরাক্রিকেটার) : রস টেইলর

বর্ষসেরা টেস্ট ক্রিকেটার: টিম সাউদি

বর্ষসেরা ওয়ানডে ক্রিকেটার: কেনউইলিয়ামসন

বর্ষসেরা টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটার:রস টেইলর

মেয়েদের বর্ষসেরা ওয়ানডে ক্রিকেটার:সুজি বেটস

মেয়েদের বর্ষসেরা টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটার:সোফি ডিভাইন

বর্ষসেরা আম্পায়ার: কিম কটন

বার্ট সাটক্লিফ মেডেল (ক্রিকেটেঅসাধারণ অবদান): ইয়ান স্মিথ

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক