মুমিনুল-সৌম্য গাজী গ্রুপে, প্রাইম ব্যাংকে রুবেল

বঙ্গবন্ধু ঢাকা প্রিমিয়ার ডিভিশন ক্রিকেট লিগের আসন্ন আসরের জন্য দলবদল করেছেন মুমিনুল হক, সৌম্য সরকার, ইমরুল কায়েস, রুবেল হোসেন। বাংলাদেশ টেস্ট অধিনায়ক খেলবেন গাজী গ্রুপ ক্রিকেটার্সে। একই দলে নাম লিখিয়েছেন বাঁহাতি ওপেনার সৌম্য। শেখ জামাল ধানমণ্ডি ক্লাবে যোগ দিয়েছেন ইমরুল। জাতীয় দলের পেসার রুবেল খেলবেন প্রাইম ব্যাংক ক্রিকেট ক্লাবের হয়ে।

ক্রীড়া প্রতিবেদকবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 4 March 2020, 12:40 PM
Updated : 4 March 2020, 03:42 PM

দেশের প্রধান ঘরোয়া পঞ্চাশ ওভারের টুর্নামেন্টের দলবদলের দ্বিতীয় দিন বুধবার দল বদল করেছেন ২০ ক্রিকেটার। মিরপুর শের-ই-বাংলা জাতীয় স্টেডিয়ামের সিসিডিএম কার্যালয়ে মঙ্গলবার, প্রথম দিন করেছিলেন ৫৪ জন।
 
সিলেটে বৃহস্পতিবার শেষ দিন দলবদল করবেন জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে ওয়ানডে সিরিজের দলে থাকা ক্রিকেটাররা।
 
বেলা সাড়ে ১১ টায় দলবদলের প্রক্রিয়া শেষ করেন গত আসরে গাজী গ্রুপের হয়ে খেলা ইমরুল। ১১ ম্যাচে এক সেঞ্চুরিতে ২৬২ রান করেছিলেন এই বাঁহাতি।
 
দুপুর দুইটায় আসেন গত আসরে আবাহনীর হয়ে খেলা রুবেল। ৬ ম্যাচে ডানহাতি এই পেসার নিয়েছিলেন ৭ উইকেট।
 
বিকেল সাড়ে তিনটা নাগাদ সিসিডিএম কার্যালয়ে আসেন গাজী গ্রুপের সঙ্গে চুক্তি করা ক্রিকেটাররা। মুমিনুল, সৌম্যর সঙ্গে ছিলেন আরিফুল হক, ইয়াসির আলী চৌধুরী ও যুব বিশ্বকাপ জয়ী অধিনায়ক আকবর আলী।
 
মুমিনুল গত আসরে খেলেন রানার্সআপ দল লেজেন্ডস অব রূপগঞ্জের হয়ে। সেবার ১২ ম্যাচে ৫ ফিফটিতে করেছিলেন ৪৭৪ রান।
 
গতবারের চ্যাম্পিয়ন আবাহনীতে ছিলেন সৌম্য। টুর্নামেন্টের শুরুতে ফর্মের খোঁজে থাকা এই ব্যাটসম্যান শেষদিকে ছিলেন অপ্রতিরোধ্য। শেখ জামালের বোলারদের তুলোধুনো করে ১৫৩ বলে ১৬ ছক্কায় খেলেন অপরাজিত ২০৮ রানের অসাধারণ এক ইনিংস। লিস্ট ‘এ’ ক্রিকেটে বাংলাদেশের কোনো ব্যাটসম্যানের প্রথম ডাবল সেঞ্চুরি এটি। টুর্নামেন্ট শেষে সৌম্যর নামের পাশে ছিল ১৩ ম্যাচে দুই সেঞ্চুরিতে ৫১১ রান।

প্রিমিয়ার লিগের শেষ আসরে বিকেএসপির হয়ে খেলেছিলেন আকবর। তরুণ উইকেটকিপার-ব্যাটসম্যান ১৩ ম্যাচ খেলে করেন ২৯৫ রান।
মিডল অর্ডার ব্যাটসস্যান ইয়াসির আলী গত আসরে ব্রাদার্স ইউনিয়নের হয়ে ১৩ ম্যাচে এক সেঞ্চুরি ও দুই ফিফটিতে করেন ৪৪১ রান।

চোটের কারণে খেলার বাইরে থাকা তরুণ ওপেনার সাদমান ইসলাম নাম লিখিয়েছেন রূপগঞ্জে। যদিও টুর্নামেন্টের প্রথম দিকে খেলতে পারেন না তিনি। চিকিৎসা করাতে অস্ট্রেলিয়া যাবেন গতবার শাইনপুকুর ক্রিকেট ক্লাবে খেলা বাঁহাতি এই ব্যাটসম্যান। ৮ ম্যাচে তিন ফিফটিতে ৩৭৯ রান করে ছিলেন দলের সর্বোচ্চ রান সংগ্রাহক।
 
দ্বিতীয় দিনের শেষ বেলায় এসে দলবদলের কাজ শেষ করেন লেগ স্পিনার জুবায়ের হোসেন। প্রিমিয়ার লিগের শেষ আসরে মোহামেডান স্পোর্টিং ক্লাবে থাকলেও তাকে খেলানো হয়নি কোনো ম্যাচ। এবার পারটেক্স স্পোর্টিং ক্লাবে যোগ দিয়েছেন তিনি।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক