ইতিহাস গড়ার উচ্ছ্বাসে ভেসে যাচ্ছে না বাংলাদেশ

বড় ম্যাচে তালগোল পাকানো বাংলাদেশের ক্রিকেটের নিয়মিত চিত্র। বর্তমান যুব দলটিরও আছে এই অভিজ্ঞতা। সেটা মাথায় রেখেই প্রথমবারের মতো অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপের ফাইনালে ওঠার উচ্ছ্বাসে ভেসে যাচ্ছেন না আকবর আলি। ভারতের বিপক্ষে শিরোপা নির্ধারণী ম্যাচ আর আট-দশটা ম্যাচের মতো করে খেলতে সতীর্থদের তাগিদ দিলেন বাংলাদেশ অধিনায়ক।

ক্রীড়া প্রতিবেদকবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 6 Feb 2020, 05:09 PM
Updated : 6 Feb 2020, 05:29 PM

পচেফস্ট্রুমে বৃহস্পতিবার দ্বিতীয় সেমি-ফাইনালে নিউ জিল্যান্ডকে ৬ উইকেটে হারায় বাংলাদেশ। বাউন্ডারি মেরে দলকে ফাইনালে নিয়ে যাওয়া আকবর পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে জানান, লক্ষ্য পূরণ করতে আগামী রোববারের ফাইনালে নিজেদের মেলে ধরার দিকে তাকিয়ে আছেন তারা।

“আমরা অন্য আট-দশটা ম্যাচের মতোই খেলব। আমাদের প্রথম ফাইনাল, এটা ভেবে চাপ নেব না। ভারত খুব ভালো দল। আমাদের নিজেদের খেলাটা খেলতে হবে। তিন বিভাগেই আমাদের সেরাটা দিতে হবে।”

ভারতের বিপক্ষে দুটি ফাইনালে হারার তেতো অভিজ্ঞতা আছে বাংলাদেশের। ইংল্যান্ডে আড়াইশর বেশি রান করে জিততে পারেনি ত্রিদেশীয় সিরিজের শিরোপা। অনূর্ধ্ব-১৯ এশিয়া কাপে হেরে গিয়েছিল একশর একটু বড় লক্ষ্য তাড়া করতে গিয়ে।

স্বপ্ন পূরণ থেকে স্রেফ এক ধাপ দূরে বাংলাদেশ। পচেফস্ট্রুমে আগামী রোববার ফাইনাল জিতে প্রথম শিরোপা নিয়ে ফিরতে চান আকবর। এর জন্য চাইলেন দেশবাসীর অকুণ্ঠ সমর্থন।

গ্রুপ পর্বে সেরা হয়ে নক আউট পর্বে যাওয়া বাংলাদেশ হারিয়েছে দক্ষিণ আফ্রিকা ও নিউ জিল্যান্ডকে। যুব ওয়ানডেতে টানা নয় ম্যাচ জিতে গড়েছে রেকর্ড। এর আগে ২০০৫ সালে সর্বোচ্চ টানা আট ম্যাচ জিতেছিল তারা।

রেকর্ড গড়া জয়ের নায়ক সেঞ্চুরিয়ান মাহমুদুল হাসান। তিন নম্বরে নেমে করেছেন দারুণ এক সেঞ্চুরি। শুরুতে দুই ওপেনারকে হারানোর পর তৃতীয় উইকেটে মাহমুদুল ও তৌহিদ হৃদয়ের ৬৮ রানের জুটি পথ দেখায় দলকে। অধিনায়ক প্রশংসায় ভাসালেন দুই ব্যাটসম্যানকে।

“ওরা (মাহমুদুল ও হৃদয়) যেভাবে ব্যাটিং করেছে, সেটা অসাধারণ। ওরা কঠোর পরিশ্রম করেছে। এটা প্রশংসনীয়।”

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক