আতহার-রফিকের সেই জুটি ছাড়িয়ে গেলেন তামিম-সৌম্য

ওয়ানডেতে তখনও জয়ের দেখা পায়নি বাংলাদেশ। সুযোগ এলো ১৯৯৮ সালে ভারতে ত্রিদেশীয় সিরিজে। কেনিয়ার বিপক্ষে লক্ষ্য ২৩৭। রান তাড়ায় বাজি খেলল বাংলাদেশের টিম ম্যানেজমেন্ট। আতহার আলি খানের সঙ্গে ওপেনিংয়ে নামানো হলো মোহাম্মদ রফিককে। দুজনের ব্যাটে গড়া হলো নতুন ইতিহাস। ১৩৭ রানের উদ্বোধনী জুটি গড়ে দিল জয়ের ভিত। ২১ বছর পর সেই জুটিকে ছাড়িয়ে গেলেন তামিম ইকবাল ও সৌম্য সরকার।

ক্রীড়া প্রতিবেদক ডাবলিন থেকেবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 7 May 2019, 04:49 PM
Updated : 7 May 2019, 11:00 PM

১৯৯৮ সালের মে মাসেই হায়দরাবাদে গড়া আতহার ও রফিকের জুটি এতদিন ছিল দেশের বাইরে বাংলাদেশের সেরা উদ্বোধনী জুটি। এবার সেটিকে পেছনে ফেলে তামিম ও সৌম্য গড়লেন নতুন রেকর্ড। ত্রিদেশীয় সিরিজে মঙ্গলবার ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে দুজনে গড়েছেন ১৪৪ রানের জুটি।

কেনিয়ার বিপক্ষে সেই ম্যাচে বাংলাদেশ জিতেছিল ৬ উইকেটে। ওয়েস্ট ইন্ডিজের ২৬১ রান তাড়ায়ও দলকে এগিয়ে দিয়েছে সৌম্য ও তামিমের জুটি। ৬৮ বলে ৭৩ রান করে সৌম্যর বিদায়ে ভেঙেছে এই জুটি।

গত সেপ্টেম্বরে আতহার ও রফিকের সেই জুটির কাছাকাছি গিয়েছিলেন লিটন দাস ও মেহেদী হাসান মিরাজ। এশিয়া কাপের ফাইনালে দুবাইয়ে ভারতের বিপক্ষে দুজনের জুটি থেমেছিল ১২০ রানে।

দেশের বাইরে বাংলাদেশের শতরানের উদ্বোধনী জুটি আছে আর কেবল দুটি। ২০০৪ সালে হারারেতে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে ১০৫ রানের জুটি গড়েছিলেন হান্নান সরকার ও মানজারুল ইসলাম রানা। ২০১৬ সালে নিউ জিল্যান্ডের বিপক্ষে নেলসনে ১০২ রানের জুটি গড়েছিলেন তামিম ও ইমরুল কায়েস।

তামিম ও সৌম্যর জুটিতে এদিন রেকর্ড হয়েছে আরেকটি। ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে দেশে ও বাইরে মিলিয়েই বাংলাদেশের উদ্বোধনী জুটিতে শতরান এলো এই প্রথমবার। ২০১২ সালে খুলনায় তামিম ও এনামুল হকের ৮৮ রানের জুটি ছিল আগের সর্বোচ্চ।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক