বাংলাদেশ দলের ভেতরও রশিদকে নিয়ে আলোচনা

সংবাদমাধ্যমের প্রশ্নের পর প্রশ্ন। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে নানা শঙ্কা। আফগানিস্তানের বিপক্ষে টি-টোয়েন্টি সিরিজ চূড়ান্ত হওয়ার পর থেকেই আলোচনা রশিদ খানকে সামলানো নিয়ে। শুধু বাইরেই নয়, একই আলোচনা চলছে বাংলাদেশ দলের ভেতরও। হিসেবি ঝুঁকিতেই খোঁজা হচ্ছে এই লেগ স্পিনারকে সামলানোর সমাধান।

ক্রীড়া প্রতিবেদকবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 27 May 2018, 01:03 PM
Updated : 27 May 2018, 01:03 PM

আইসিসি টি-টোয়েন্টি র‌্যাঙ্কিংয়ে বোলারদের শীর্ষে এখন রশিদ। ক্রিকেট বিশ্ব জুড়ে টি-টোয়েন্টি লিগগুলোয় তার তুমল চাহিদা, দুর্দান্ত পারফরম্যান্স। শচিন টেন্ডুলকার থেকে শুরু করে অনেকের মতেই বিশ্বের সেরা টি-টোয়েন্টি স্পিনার রশিদ। তার বলে খাবি খাচ্ছেন বিশ্বের সেরা সব ব্যাটসম্যানরা।

বাংলাদেশ বরাবরই দুর্বল লেগ স্পিনে। আফগানিস্তানের বিপক্ষে সিরিজ তাই সবচেয়ে বড় হুমকির নাম নি:সন্দেহে রশিদ খান। সফর পূর্ব সংবাদ সম্মেলনে সহ-অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ জানালেন, তারা নিজেরাও ক্রমাগত আলোচনা করছেন রশিদকে খেলার উপায় নিয়ে।

“যখন আমরা অনুশীলন করি কিংবা নেটে ব্যাটিং করে আসি, আমার সঙ্গে হয়ত মুশফিক কিংবা তামিম বসে আছে, কিংবা সাব্বির-মোসাদ্দেক, আমরা যখন বসি, তখন বিষয়টা নিয়ে কথা বলি। আলোচনা করি রশিদকে খেলা নিয়ে। কারন আমরা সবাই জানি টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটে সে বিশ্বের সেরা বোলার। সেই সমীহটুকু তাকে করতেই হবে।”

তবে সেই সমীহ মানে অতি সমীহ নয়। আগের দিন তামিম ইকবাল বলেছিলেন, রশিদকে নিয়ে বেশি ভাবতে গেলে দলের জন্য কাল হতে পারে। মাহমুদউল্লাহর কণ্ঠেও একই সুর।

“আমার মনে হয়, নিজেদের শক্তির জায়গাটা আমাদের বোঝা দরকার। সবারই বুঝতে হবে, আমরা কে কিভাবে ক্রিকেট খেলি। প্রতিপক্ষের শক্তির জায়গার ব্যাপারেও ধারণা থাকা উচিত। সেটির ওপর ভিত্তি করে হিসেবি ঝুঁকি নিয়ে নিয়ে যার যার শক্তি অনুযায়ী আমাদের ক্রিকেট খেলতে হবে।”

“রশিদ অনেক ভালো বোলার অবশ্যই। তবে তাকে খেলাই যাবে না, এটা ভাবা যাবে না। আমরা বল দেখব, বল যদি আমাদের জোনে থাকে তাহলে অবশ্যই স্কোরিং শট খেলব। ওদের বোলিং আক্রমণ অনেক ভালো। আমাদের ব্যাটসম্যনাদের অনেক বেশি সচেতন থাকতে হবে। ব্যাটসম্যানরা যদি নিজেদের সেরা খেলাটা খেলতে পারে, তাহলে ইতিবাচক ফল আশা করতে পারি।”

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক