কুকের রেকর্ডের দিন রাঙালেন আব্বাস-হাসান

অবিশ্বাস্য ধারাবাহিকতার প্রতিদান অসাধারণ মাইলফলকে। টানা সবচেয়ে বেশি টেস্ট খেলার রেকর্ড স্পর্শ করলেন অ্যালেস্টার কুক। রেকর্ডের দিনে ব্যাট হাতেও তিনি উজ্জ্বল। তবে লড়াইয়ে সঙ্গী পেলেন না তেমন কাউকে। ইংলিশ ওপেনারকে ছাপিয়ে প্রথম দিনের নায়ক দুই পাকিস্তানী পেসার মোহাম্মদ আব্বাস ও হাসান আলি।

স্পোর্টস ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 24 May 2018, 06:14 PM
Updated : 24 May 2018, 06:15 PM

অনভিজ্ঞ পাকিস্তানদলের বিপক্ষে ফেভারিট হয়েই সিরিজ শুরু করেছিল ইংল্যান্ড। কিন্তু প্রথম দিনে দাপুটেছিল পাকিস্তানই। বৃহস্পতিবার লর্ডস টেস্টের প্রথম ইনিংসে ১৮৪ রানেই গুটিয়ে গেছে ইংল্যান্ড।পাকিস্তান দিন শেষ করেছে ১ উইকেটে ৫০ রান নিয়ে।

এই ম্যাচের একাদশেথেকেই কুক নাম লিখিয়েছেন রেকর্ড বইয়ে। ছুঁয়েছেন অ্যালান বোর্ডারের টানা ১৫৩ টেস্ট খেলাররেকর্ড। দলের বিপর্যয়ে এক প্রান্ত আগলে খেলেছেন ৭০ রানের ইনিংস। কিন্তু আব্বাস ও হাসানেরদারুণ বোলিংয়ে ধুঁকেছেন ইংল্যান্ডের বাকিরা।

লর্ডসের উইকেটে আছেঘাসের ছোঁয়া। দিনের শুরুতে আকাশ ছিল ধূসর। টস জিতে এই চ্যালেঞ্জিং কন্ডিশনেই ব্যাটিংনেওয়ার সাহস দেখিয়েছিলেন জো রুট। কিন্তু সেই সাহসের প্রতিফলন পড়েনি ইংলিশদের ব্যাটিংয়ে।

নতুন বলে মোহাম্মদআমির ও আব্বাস নাড়িয়ে দেন ইংলিশ ব্যাটিং। বিশেষ করে আব্বাস ছিলেন দুর্দান্ত। ছোট ছোটসুইংয়ে তার বোলিং এই কন্ডিশনের জন্য ছিল আদর্শ। সঙ্গে এই পেসারের লাইন-লেংথও ছিল নিখুঁত।মার্ক স্টোনম্যানকে ফেরান তিনি বেশ এক চোট ভোগানোর পর।

প্রথম পরিবর্তন হিসেবেবোলিংয়ে এসে হাসান শুরুতে লাইন-লেংথ খুব ভালো রাখতে পারেননি। তবে বরাবরই উইকেট শিকারীএই পেসার ঠিকই দলকে এনে দেন দ্রুত দুটি উইকেট। বাইরের বল তাড়া করে ফেরেন রুট। দাভিদমালানকে আউট করেছেন দারুণ এক ডেলিভারিতে।

৩ উইকেটে ৪৩ থেকেইংল্যান্ডকে টেনে নেন কুক ও জনি বেয়ারস্টো। কুক খেলেছেন নিজের মতোই। রক্ষণে আঁটসাঁট,সুযোগ পেলে খেলেছেন শট। ব্যাটিং অর্ডারে নতুন পজিশন পাঁচ নম্বরে দারুণ খেলছিলেন বেয়ারস্টো।

জমে ওঠা এই জুটিভাঙেন অলরাউন্ডার ফাহিম আশরাফ। ২৭ রান করা বেয়ারস্টোকে বোল্ড করে এই পেসার জুটি থামান৫৭ রানে।

কুকের সঙ্গে বেনস্টোকসের জুটিও আশা দেখাচ্ছিল ইংল্যান্ডকে। পাকিস্তানকে তখন কাঙ্ক্ষিত উইকেটটি এনেদেন আমির। দর্দুান্ত ডেলিভারিতে বোল্ড করেন কুককে। ১৪৮ বলে ৭০ রানের ইনিংসে আছে ১৪টিচার।

বাকি৫ উইকেট ভাগাভাগি করে নিয়ে ইংল্যান্ডের ইনিংস শেষ করেছেন আব্বাস ও হাসান। স্টোকসকে৩৮ রানে থামিয়েছেন আব্বাস। দলে ফেরা জস বাটলার ১৪ রানে শিকার হাসানের।

৩৫রানের মধ্যে ইংল্যান্ড হারায় শেষ ৬ উইকেট। আব্বাস ও হাসান নিয়েছেন চারটি করে উইকেট।

ব্যাটিংয়েনেমে পাকিস্তানও উইকেট হারিয়েছিল শুরুতে। আগের টেস্টে অভিষেকে আলো ছড়ানো ইমাম-উল-হককেফেরান স্টুয়ার্ট ব্রড। তবে দ্বিতীয় উইকেটে দারুণ লড়াইয়ে জুটি গড়েছেন আজহার আলি ও হারিসসোহেল। দুজনের অবিচ্ছিন্ন জুটিতে আর উইকেট হারায়নি পাকিস্তান। দিনটাও তাই পুরোপুরিহয়ে উঠেছে তাদেররই।

সংক্ষিপ্ত স্কোর:

ইংল্যান্ড ১ম ইনিংস:৫৮.২ ওভারে ১৮৪ (কুক ৭০, স্টোনম্যান ৪, রুট ৪, মালান ৬, বেয়ারস্টো ২৭, স্টোকস ৩৮, বাটলার১৪, বেস ৫, উড ৭, ব্রড ০, অ্যান্ডারসন ০*; আমির ১/৪১, আব্বাস ৪/২৩, হাসান ৪/৫১, ফাহিম১/২৮, শাদাব ০/৩৪)

পাকিস্তান ১ম ইনিংস:২৩ ওভারে ৫০/১ (আজহার ১৮*, ইমাম ৪, সোহেল ২১*; অ্যান্ডারসন ০/১১, ব্রড ১/১০, উড ০/৯,স্টোকস ০/৯, বেস ০/৪)

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক