বোলারদের ম্যাচে লিটনের তাণ্ডব

দুই দলের আগের ম্যাচে হয়েছিল রান উৎসব। আবাহনী-মোহামেডানের এবারের লড়াইয়ে রাজত্ব করেছেন বোলাররা। তার মধ্যে বিধ্বংসী এক ইনিংসে ব্যবধান গড়ে দিয়েছেন লিটন দাস।

ক্রীড়া প্রতিবেদকবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 27 May 2017, 09:33 AM
Updated : 27 May 2017, 09:35 AM

ঢাকা প্রিমিয়ার ডিভিশন ক্রিকেট লিগের চলতি আসরে মোহামেডানকে তৃতীয় সর্বনিম্ন রানে অলআউট করে আবাহনী জিতেছে ৫ উইকেটে। সুপার লিগে এটি তাদের টানা দ্বিতীয় জয়। আগের ম্যাচে গাজী গ্রুপ ক্রিকেটার্সকে হারানো মোহামেডানের সুপার লিগে এটা প্রথম পরাজয়।

বিকেএসপির তিন নম্বর মাঠে শনিবার টস জিতে ব্যাট করতে নেমে ৩৩.৪ ওভারে ১০০ রানে অলআউট হয়ে যায় মোহামেডান। জবাবে ১৫.৩ ওভারে ৫ উইকেট হারিয়ে লক্ষ্যে পৌঁছে যায় আবাহনী।

ছোটো লক্ষ্য তাড়ায় দলকে উড়ন্ত সূচনা এনে দেন লিটন। ষষ্ঠ ওভারে ফিরে যাওয়ার আগে ৪টি চার আর ৫টি ছক্কায় ২২ বলে খেলেন ৫০ রানের বিধ্বংসী এক ইনিংস।

সাজেদুল ইসলাম ৬১ রানের উদ্বোধনী জুটি ভাঙার পর লড়েছে মোহামেডান। দ্রুত ফিরিয়েছে মোহাম্মদ মিঠুন, নাজমুল হোসেন শান্ত, আফিফ হোসেন ও কাজী অনিককে। শুভাগত হোম চৌধুরীকে নিয়ে বাকিটুকু সহজেই সেরেছেন উদ্বোধনী ব্যাটসম্যান সাদমান ইসলাম।

মোহামেডানের শামসুর রহমান ও জুবায়ের হোসেন নেন দুটি করে। লেগ স্পিনার জুবায়ের এক বছরের বেশি সময় পর খেললেন লিস্ট ‘এ’ ক্রিকেট। গত বছরের ১৬ মে শেষ এই সংস্করণে খেলেছিলেন তিনি।

লিটনের ঝড়ের মূল ঝাপটা গেছে তাইজুল ইসলামের ওপর দিয়ে। ৩ ওভারে ৪৩ রান দিয়ে উইকেটশূন্য বাঁহাতি এই স্পিনার।

এর আগে মোহামেডানের শুরু দেখে বোঝা যায়নি তাদের সামনে কী অপেক্ষা করছে। ২২ বলে দুটি করে ছক্কা-চারে ২৩ রানের ইনিসে দলকে ভালো শুরুই এনে দিয়েছিলেন শামসুর।

পরপর দুই বলে শামসুর ও রনি তালুকদারকে বিদায় করে খেলার চিত্রটা পাল্টে দেন সাকলাইন সজীব। বাঁহাতি স্পিনারের তৃতীয় শিকার শামসুরের সঙ্গে ৩২ রানের উদ্বোধনী জুটি গড়া সৈকত আলী।

১০ রানের মধ্যে ৫ উইকেট হারিয়ে ফেলা মোহামেডান আর কক্ষপথে ফিরতে পারেনি। উদ্বোধনী জুটিকে ছাড়িয়ে যেতে পারেনি কোনো জুটি।

মোহামেডানের রান তিন অঙ্কে নিয়ে যায় তাইজুল, সাজেদুল ও নাজমুল হোসেন মিলনের ছোট ছোট অবদান।

আবাহনীর ভারতীয় অলরাউন্ডার মনন শর্মা ৪ উইকেট নেন ২১ রানে। শুরুতে মোহামেডানকে কাঁপিয়ে দেওয়া সাকলাইন ২৪ রানে ৩ উইকেট নিয়ে ম্যাচ সেরা।

সংক্ষিপ্ত স্কোর:

মোহামেডান: ৩৩.৪ ওভারে ১০০ (শামসুর ২৩, সৈকত ১০, রনি ০, জাবিদ ২, বিপুল ১, তাইজুল ১৪, নাজমুল ১৭, সাজেদুল ১৬, রাব্বি ১, আজিম ৪*, জুবায়ের ০; জায়েদ ২/২৩, সাইফউদ্দিন ১/১৭, মনন ৪/২১, সাকলাইন ৩/২৪, শুভাগত ০/৯, অনিক ০/৪)

আবাহনী: ১৫.৩ ওভারে ১০৪/৫ (লিটন ৫০, সাদমান ২৪*, মিঠুন ১৬, নাজমুল ৮, আফিফ ০, অনিক ০, শুভাগত ৬*; তাইজুল ০/৪৩, বিপুল ০/১৪, সাজেদুল ১/২২, জুবায়ের ২/১৮, শামসুর ২/৭)

ফল: আবাহনী ৫ উইকেটে জয়ী

ম্যান অব দ্য ম্যাচ: সাকলাইন সজীব

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক