শ্রীলঙ্কায় তামিমের টানা দ্বিতীয় শতক

নিউ জিল্যান্ড সিরিজ শেষে আক্ষেপটা জানিয়েছিলেন তামিম ইকবাল, থিতু হয়েও ইনিংস বড় করতে পারছেন না। যে ছন্দে আছেন বাঁহাতি উদ্বোধনী ব্যাটসম্যান তাতে তিন অঙ্কের রান ছিল সময়ের ব্যাপার। সেই শতক এলো গুরুত্বপূর্ণ সময়ে। শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে প্রথম ওয়ানডেতে।

ক্রীড়া প্রতিবেদকডাম্বুলা থেকেবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 25 March 2017, 12:31 PM
Updated : 25 March 2017, 06:01 PM

শ্রীলঙ্কায় স্বাগতিকদের বিপক্ষে ওয়ানডেতে এটি তামিমের দ্বিতীয় শতক। দেশটিতে স্বাগতিকদের বিপক্ষে বাংলাদেশের ব্যাটসম্যানদের মধ্যে একমাত্র তারই তিন অঙ্কের রান রয়েছে। অন্য কেউ শতকের কাছাকাছিও যেতে পারেননি। তামিমের পর সর্বোচ্চ নাসির হোসেনের অপরাজিত ৭৩।  

শ্রীলঙ্কায় ওয়ানডেতে নিজের সর্বশেষ ইনিংসেই শতক পেয়েছিলেন তামিম। ২০১৩ সালে হাম্বানটোটায় সিরিজের প্রথম ওয়ানডেতে ১১২ রানের চমৎকার এক ইনিংস খেলেও দলকে জেতাতে পারেননি বাঁহাতি এই উদ্বোধনী ব্যাটসম্যান। সেই ম্যাচে পাওয়া চোটে ওয়ানডে সিরিজে আর মাঠেই নামতে পারেননি।

রনগিরি ডাম্বুলা আন্তর্জাতিক স্টেডিয়ামে শনিবার প্রাপ্তির এক ম্যাচ খেলেন তামিম। দিনের প্রথম ওভারেই রানের খাতা খুলে বাংলাদেশের প্রথম ব্যাটসম্যান হিসেবে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে তিন সংস্করণ মিলিয়ে পৌঁছান ১০ হাজার রানের মাইলফলকে।

৪৩তম ওভারে লাহিরু কুমারার বলে এক রান নিয়ে বাংলাদেশের ব্যাটসম্যানদের মধ্যে সর্বোচ্চ অষ্টম শতকে পৌঁছান তামিম। ১২৭ বলে তিন অঙ্কে পৌঁছতে ১২টি চার হাঁকান এই বাঁহাতি ব্যাটসম্যান। ৭৬ বলে ৬টি চারে এসেছিল তার অর্ধশতক। 

এই ইনিংস খেলার পথে সাব্বির রহমানের সঙ্গে গড়েন ৯০ রানের চমৎকার এক জুটি। সাকিব আল হাসানের সঙ্গে উপহার দেন শতরানের আরেকটি কার্যকর জুটি।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক