ব্যাকআপ খেলোয়াড় থাকায় খুশি সাকিব

বৃষ্টির বাধায় নতুন সূচিতে নতুন করে বিপিএল শুরু হওয়ায় ক্রিকেটারদের বিশ্রামের সুযোগ অনেকটা কমে গেছে। টানা খেলা থাকায় ক্রিকেটারদের চোটের শঙ্কা আছে। তবে যথেষ্ট বিকল্প হাতে থাকায় এ নিয়ে তেমন কোনো দুর্ভাবনা নেই ঢাকা ডায়নামাইটস অধিনায়ক সাকিব আল হাসানের।

ক্রীড়া প্রতিবেদকবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 7 Nov 2016, 12:26 PM
Updated : 7 Nov 2016, 01:07 PM

মঙ্গলবার দ্বিতীয় ম্যাচে বরিশাল বুলসের মুখোমুখি হবে ঢাকা। তার আগের দিন অনুশীলনের পর সাংবাদিকদের দলের অধিনায়ক জানান, এই মুহূর্তে তারা ব্যস্ত একাদশ ঠিক করা নিয়ে।

“আমাদের দলে থাকা সবাই খেলার মতো। আমাদের ব্যাকআপ খেলোয়াড়ও ভালোই আছে। এখন আমাদেরকে খুঁজে বের করতে হবে কারা প্রথমে খেলবে, এবং যদি কেউ চোটে পড়ে তখন কাকে দিয়ে সে জায়গাটা পূরণ করবো।”

“বিদেশি খেলোয়াড় নিয়েও আমার মনে হয় না কোনো ঝামেলা আছে। বিদেশি কেউ চোটে পড়লেও আমাদের সে রকম ব্যাকআপ খেলোয়াড় আছে। আমার মনে হয় না, এটা খুব বেশি একটা সমস্যা হবে। তবে হ্যাঁ, যদি রেস্ট ডে গুলো থাকতো তাহলে ভালো হতো।”

সাকিবের দলে এবার বিদেশি তারকার ছড়াছড়ি। ডায়নামাইটসের গত আসরের অধিনায়ক কুমার সাঙ্গাকারা আছেন এবার, সঙ্গে তার কাছের বন্ধু, আরেক লঙ্কান কিংবদন্তি মাহেলা জয়াবর্ধনে। বিশ্ব টি-টোয়েন্টির বাজারে ‘হটকেক’ ডোয়াইন ব্রাভো ও আন্দ্রে রাসেল, গত বিপিএলের সেঞ্চুরিয়ান এভিন লুইস, বাংলাদেশের ঘরোয়া ক্রিকেটে দারুণ সফল রবি বোপারা, দক্ষিণ আফ্রিকান অলাউন্ডার ওয়েইন পার্নেল, লঙ্কান অলরাউন্ডার সিকুগে প্রসন্ন, তরুণ পাকিস্তানি লেগ স্পিনার উসামা মির।

দল নিয়ে খুশি বিশ্বের অন্যতম সেরা অলরাউন্ডার, এবার মাঠে নিজেদের সামর্থ্যটা দেখাতে মুখিয়ে আছেন তিনি।

“আমি যে দলে খেলি ওই দলেই তারকা বেশি থাকে। বিষয়টা আমি বুঝি না (হাসি...)। গত বছর সবাই বলছিল, রংপুর সব থেকে ভালো দল। আসলে ভালো দল তারাই, যারা মাঠে ভালো খেলবে। এটাই আসলে গুরুত্বপূর্ণ। হ্যাঁ, আমাদের অবশ্যই ভালো দল আছে, কম্বিনেশনও ভালো হয়েছে। এখন মাঠে পারফর্ম করাটাই সব থেকে গুরুত্বপূর্ণ।”

সাকিব মনে করেন, বৃষ্টির জন্য খেলা না হলেও বাড়তি অনুশীলন করায় দল গোছানোর কাজটা সহজ হয়েছে।

“সবার সাথে কথা বলার সুযোগ হয়েছে। আমার মনে হয়, দলটাকে এক সাথে করার জন্য এটা খুবই ভালো কাজে দিয়েছে।”

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক