বাংলাদেশের টেস্ট বিরতিতে বিস্মিত ব্রড

টেস্ট খেলার সংখ্যা যদি বিবেচনায় নেওয়া হয়, বাংলাদেশ আর ইংল্যান্ড পুরো উল্টো মেরুতে। ব্যবধানটা এতই বেশি যে বিশ্বাসই করতে পারছিলেন না স্টুয়ার্ট ব্রড। বাংলাদেশের দীর্ঘ সময় টেস্ট না খেলার দুবর্লতাকে কাজে লাগাতে চান ইংলিশ পেসার।

ক্রীড়া প্রতিবেদকবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 15 Oct 2016, 01:57 PM
Updated : 15 Oct 2016, 01:59 PM

টেস্ট ক্রিকেটে বাংলাদেশের সবশেষ দিনটি ছিল গত বছরের ৩ অগাস্ট। বাংলাদেশের শীত ঘুমে থাকার এই প্রায় ১৫ মাসে ইংল্যান্ড খেলেছে ১৬টি টেস্ট! এই পরিসংখ্যানই বলে দিচ্ছে বাস্তবতা।

বরাবরই সবচেয়ে বেশি টেস্ট খেলা দেশগুলোর একটি ইংল্যান্ড। টানা এক বছরের বেশি টেস্ট না খেলা তাদের কাছে অকল্পনীয়। বাংলাদেশের বিরতির কথা জেনে তাই ভীষণ অবাক ব্রড। চট্টগ্রামে প্রথম প্রস্তুতি ম্যাচ শেষে জানালেন, এই ঘাটতির ফায়দা তুলবেন তারা।

“বাংলাদেশ এত লম্বা সময় টেস্ট খেলে না জেনে আমি বেশ অবাক হয়ে গিয়েছিলাম। এজন্যই প্রথম বল থেকেই আমাদের নিখুঁত থাকা জরুরি। নিশ্চিত করতে হবে আমাদের স্কিল যেন কার্যকরী হয়। কারণ টানা এত লম্বা সময় সাদা বলের ক্রিকেট খেলে এসে পুরো একটা সেশন বা পুরো একটা দিন ব্যাট করা মানে মানসিকতার বিশাল পরিবর্তনের ব্যাপার। এটা হবে বিরাট চ্যালেঞ্জ।”

ব্রডের চাওয়া, সতীর্থ বোলারদের নিয়ে শুরুতে বাংলাদেশের ব্যাটসম্যানদের চাপে ফেলা।

“দায়িত্বটি আমাদের বোলারদের, প্রথম ২০ রানের জন্য ওদের ব্যাটসম্যানদের কাজ কঠিন করে তোলা। আমাদের বোলারদের দায়িত্ব ওদের চাপে রাখা। এই অঞ্চলে খেলতে এসে গুরুত্বপূর্ণ হলো, চার মারার বল বেশি না দেওয়া, বরং ব্যাটসম্যানদের ঝুঁকি নিয়ে বড় শট খেলতে প্রলুব্ধ করা।”

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক