• শীর্ষে ফেরা শামসির ঘাড়ে হেইজেলউডের নিঃশ্বাস
    বছর খানেক আগেও অস্ট্রেলিয়ার টি-টোয়েন্টি দলে সুযোগ হতো না নিয়মিত। সেই জশ হেইজেলউড এই সংস্করণেও এখন বেশ সফল। যার ছাপ পড়েছে তার র‍্যাঙ্কিংয়ে। শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে চলমান সিরিজে দুর্দান্ত বোলিং উপহার দিয়ে আইসিসি টি-টোয়েন্টি বোলারদের র‍্যাঙ্কিংয়ে জায়গা করে নিয়েছেন ক্যারিয়ার সেরা দ্বিতীয় স্থানে।
  • মিলার নয়, সেরা শামসি
    শেষ দিকে ঝড় তুললেন ডেভিড মিলার, কার্যকর ইনিংস খেললেন টেম্বা বাভুমা। তবে মিতব্যয়ী বোলিংয়ে গুরুত্বপূর্ণ তিন উইকেট নিয়ে দলের জয়ে সবচেয়ে বড় ভূমিকা রাখলেন তাবরাইজ শামসি। শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে রোমাঞ্চকর লড়াইয়ে ম্যাচ সেরার পুরস্কারটিও তাই জিতলেন টি-টোয়েন্টির এক নম্বর বোলার।
  • ‘লোকে যতটা বলে, দক্ষিণ আফ্রিকা অতটা বাজে নয়’
    আগের সেই প্রতাপ নেই। নেই ধারাবাহিকতা। ক্রিকেট বিশ্ব কাঁপানো তারকা ক্রিকেটারও নেই দলে। দক্ষিণ আফ্রিকা দলটাকে অনেকে মনে করেন অতীতের কঙ্কাল। তবে লোকের এই ধারণায় প্রবল আপত্তি তাবরাইজ শামসির। এই চায়নাম্যান স্পিনারের মতে, বড় তারকা না থাকলেও দক্ষিণ আফ্রিকার সেরা দলগুলির চেয়ে পিছিয়ে নেই এখনকার দল।
  • শ্রীলঙ্কাকে উড়িয়ে সিরিজ দক্ষিণ আফ্রিকার
    হারলেই হাতছাড়া হয়ে যাবে সিরিজ, এমন সমীকরণে খেলতে নামা শ্রীলঙ্কার ব্যাটিং লাইনআপ মুখ থুবড়ে পড়ল। এইডেন মারক্রাম ও তাবরাইজ শামসির স্পিনে স্বাগতিকরা গুটিয়ে গেল একশ পার হতেই। ছোট লক্ষ্য তাড়ায় কুইন্টন ডি ককের ব্যাটে রেকর্ড গড়া জয় নিয়ে সিরিজ ঘরে তুলল দক্ষিণ আফ্রিকা।
  • মালানের সেঞ্চুরি ও শামসির ৫ উইকেটে সমতায় দ. আফ্রিকা
    দেয়ালে ঠেকে গেছে পিঠ, হারলেই ফসকে যাবে সিরিজ। এমন সমীকরণের সামনে থাকা দলকে ব্যাটিংয়ে পথ দেখালেন ইয়ানেমান মালান। দারুণ এক সেঞ্চুরিতে এনে দিলেন বড় পুঁজি। পরে বল হাতে আলো ছড়ালেন তাবরাইজ শামসি। ক্যারিয়ার সেরা বোলিংয়ে শ্রীলঙ্কাকে গুঁড়িয়ে দলকে ফেরালেন সমতায়।
  • মিলার ঝড়ে সিরিজ দক্ষিণ আফ্রিকার
    শূন্য রানে নেই দুই উইকেট, ৫৮ রানের মধ্যে আরও তিন উইকেট হারিয়ে মহাবিপদে দল। সেখান থেকে ঝড়ো বাটিংয়ে লড়াকু ভিত গড়ে দিলেন ডেভিড মিলার। পরে তাবরাইজ শামসি-বিয়ন ফোরটানদের দারুণ বোলিংয়ে আয়ারল্যান্ডকে অল্পতে গুটিয়ে দিয়ে এক ম্যাচ হাতে রেখে সিরিজ জয় নিশ্চিত করল দক্ষিণ আফ্রিকা।
  • শামসির স্পিনে দ. আফ্রিকার অনায়াস জয়
    শুরুতে আশা জাগানো আয়ারল্যান্ডের শেষটায় সঙ্গী কেবল হতাশা। প্রতিপক্ষকে অল্পতে গুটিয়ে দেওয়ার যে সম্ভাবনা জাগিয়েছিল তারা, পরে তা সফল হয়নি। ব্যাটসম্যানরাও পারেননি ভালো কিছু করতে। তাবরাইজ শামসির দারুণ বোলিংয়ে সহজ জয় পেয়েছে দক্ষিণ আফ্রিকা।
  • শেষ বলে ছক্কাতেও উইন্ডিজের ১ রানের হার
    শেষ বলে ছক্কা, তবু শটের পর ব্যাটসম্যান ফ্যাবিয়ান অ্যালেনের চোখে-মুখে বিষাদ। বোলার কাগিসো রাবাদা ও তার দলের উল্লাস। ওই ছক্কায় ব্যবধান কমল বটে ওয়েস্ট ইন্ডিজের, কিন্তু যন্ত্রণা যে বাড়ল! উচ্ছ্বাস ও হতাশার পার্থক্য সেখানে ১ রানের।
  • র‌্যাঙ্কিংয়ে তামিম, মিঠুনের উন্নতি
    নিউ জিল্যান্ডের বিপক্ষে প্রথম ওয়ানডের দুঃস্বপ্ন ভুলে পরের ম্যাচে লড়াই করেছে বাংলাদেশ। সুযোগগুলো কাজে লাগাতে পারলে হয়তো পাওয়া যেত অনির্বচনীয় জয়ের স্বাদ। তা হয়নি, তবে এই ম্যাচে লড়াইয়ের পুঁজি গড়ে দেওয়া তামিম ইকবাল ও মোহাম্মদ মিঠুনের পারফরম্যান্সের প্রতিফলন পড়েছে র‌্যাঙ্কিংয়ে। আইসিসি ওয়ানডে ব্যাটসম্যানদের র‌্যাঙ্কিংয়ে উন্নতি হয়েছে এই দুই ব্যাটসম্যানের।
  • রশিদ খানের খুব কাছে শামসি
    পাকিস্তানের বিপক্ষে তাবরাইজ শামসির দারুণ বোলিংয়ের প্রতিফলন পড়েছে আইসিসি টি-টোয়েন্টি বোলারদের র‍্যাঙ্কিংয়ে। তিন ধাপ এগিয়ে দুই নম্বরে উঠেছেন তিনি। অনেক দিন ধরে এই সংস্করণে চূড়ায় থাকা রশিদ খানের খুব কাছে এখন দক্ষিণ আফ্রিকার বাঁহাতি এই রিস্ট স্পিনার।