• মাশরাফি-তামিমদের নেতৃত্ব পেয়ে ‘চাপ নেই’ মাহমুদউল্লাহর
    বাংলাদেশের সফলতম ওয়ানডে অধিনায়ক ও বিপিএলের সফলতম অধিনায়ক এই দলে। আছেন এখনকার ওয়ানডে অধিনায়কও। দলে নেতৃত্ব দেওয়ার মতো অভিজ্ঞ ক্রিকেটার আছেন আরও কজন। তবে শেষ পর্যন্ত মাশরাফি বিন মুর্তজা, তামিম ইকবাল বা অন্য কেউ নন, বিপিএলে মিনিস্টার ঢাকার নেতৃত্ব পেলেন বাংলাদেশের টি-টোয়েন্টি অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ।
  • হার দিয়ে শুরু যুবাদের শিরোপা ধরে রাখার অভিযান
    ইংলিশ বোলিংয়ের বিপক্ষে কোনো জবাবই যেন ছিল না বাংলাদেশের ব্যাটসম্যানদের। নিয়মিত বিরতিতে উইকেট হারিয়ে একশ রানও করতে পারল না যুব বিশ্বকাপের গতবারের চ্যাম্পিয়নরা। পরে ছোট্ট পুঁজি নিয়ে বোলাররা চেষ্টা করলেও এড়াতে পারেনি হার।
  • ট্রফি ধরে রাখার অভিযানে মাঠে নামছে যুবারা
    কখনও ‘ডার্ক হর্স’ হিসেবে, কখনও সম্ভাবনাময় দল, নানা সময়ে নানাভাবে বিভিন্ন বৈশ্বিক আসর শুরু করেছে বাংলাদেশ। এবার হতে যাচ্ছে ভিন্ন এক অভিজ্ঞতা। একটি টুর্নামেন্টের পথচলা শুরু হচ্ছে বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন হিসেবে। অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপে শিরোপা ধরে রাখার অভিযানে প্রথম লড়াইয়ে মাঠে নামছে বাংলাদেশ।
  • ঢাকায় জাতীয় দলের কোচ কাবরেরা
    ফুটবলারদের সবাই টিকা না নেওয়ায় ইন্দোনেশিয়া সফরে যাওয়া হচ্ছে না বাংলাদেশ জাতীয় ফুটবল দলের। তবে কাজ শুরু করতে ঠিকই সময়মতো ঢাকায় পৌঁছেছেন নতুন কোচ হাভিয়ের কাবরেরা।
  • এক টেস্ট জিতেই খুশি থাকার সুযোগ নেই: মুমিনুল
    নিউ জিল্যান্ড থেকে এমন ফেরা আগে কখনও হয়নি বাংলাদেশ দলের। আগের সব সফরেই দল ফিরেছে সব ম্যাচ হেরে। এবার সেখানে টেস্ট সিরিজ ড্র করার অভাবনীয় প্রাপ্তি নিয়ে ফেরা! তবে সেই সাফল্যের স্রোতে ভেসে যাচ্ছেন না মুমিনুল হক। বরং দেশে ফিরেই বাংলাদেশের টেস্ট অধিনায়ক বলছেন, তিনি তাকিয়ে সামনের চ্যালেঞ্জগুলির দিকে।
  • বরিশালকে বিপিএল ট্রফি এনে দিতে চান সাকিব
    বিপিএলে সাকিব আল হাসান কখনও বরিশালের কোনো ফ্র্যাঞ্চাইজিতে খেলেননি। বরিশালের কোনো ফ্র্যাঞ্চাইজি এখনও পর্যন্ত বিপিএলের শিরোপা জিততে পারেননি। প্রথমটি এবার হয়েই যাচ্ছে। অপেক্ষা এখন দ্বিতীয়টির। প্রথমবার বরিশাল দলে আসা সাকিবের চাওয়া, বরিশালবাসীকে প্রথম বিপিএল ট্রফি উপহার দেওয়া।
  • বিপিএলে নেই ডিআরএস, ধারাভাষ্যে প্রাধান্য স্থানীয়দের
    কোভিড মহামারিকালের প্রথম বিপিএলে থাকছে না ডিআরএস (ডিসিশন রিভিউ সিস্টেম)। করোনাভাইরাসের নতুন ধরন ওমিক্রনের সংক্রমণের কারণে বিশ্বজুড়ে অনিশ্চয়তা সৃষ্টি হওয়াতেই ডিআরএস রাখা যাচ্ছে না বলে দাবি বিপিএল গর্ভনিং কাউন্সিলের। ধারাভাষ্যকারদের ক্ষেত্রেও বেশি ‘ফোকাস’ রাখা হচ্ছে স্থানীয়দের দিকেই।
  • মুস্তাফিজ-হৃদয়ের নৈপুণ্যে ফাইনালে দক্ষিণাঞ্চল
    চমৎকার বোলিংয়ে সুর বেঁধে দিলেন মুস্তাফিজুর রহমান। শেষ দুই ওভারে রান বিলিয়ে বোলিং ফিগারটা যদিও তার হয়ে গেল কিছুটা বিবর্ণ। অন্য বোলাররা মিলে লক্ষ্যটা রাখলেন নাগালে। পরে পিনাক ঘোষ ও তৌহিদ হৃদয়ের ফিফটিতে ওয়ালটন মধ্যাঞ্চলকে হারিয়ে ফাইনালে উঠল বিসিবি দক্ষিণাঞ্চল।
  • মাহমুদউল্লাহর অলরাউন্ড পারফরম্যান্স ছাপিয়ে নায়ক ইমরুল
    শুরুতে বিপর্যয়ে পড়া দলকে পথে রাখতে দারুণ এক ফিফটি করলেন মাহমুদউল্লাহ। মার্শাল আইয়ুবের সঙ্গে তার শতরানের জুটিতে কোনোরকম লড়াইয়ের পুঁজি পেল বিসিবি উত্তরাঞ্চল। পরে বল হাতেও আলো ছড়ালেন বাংলাদেশের টি-টোয়েন্টি অধিনায়ক। কিন্তু রান তাড়ায় ইমরুল কায়েসের দুর্দান্ত ইনিংসে সহজ জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ল ইসলামী ব্যাংক পূর্বাঞ্চল।
  • টিকা না নেওয়ায় ইন্দোনেশিয়ায় খেলা হচ্ছে না বাংলাদেশের
    কদিন আগে নিয়োগ পাওয়া কোচ হাভিয়ের কারবেরার অধীনে ইন্দোনেশিয়ায় দুটি ম্যাচ খেলার কথা ছিল বাংলাদেশ দলের। কিন্তু জাতীয় দলের অনেক খেলোয়াড় টিকা না নেওয়ায় ইন্দোনেশিয়া যাওয়াই হচ্ছে না দলের।
  • বড়দের পারফরম্যান্সে উজ্জীবিত বাংলাদেশের যুবারা
    বাংলাদেশ ক্রিকেটের একমাত্র বৈশ্বিক ট্রফিটি এসেছে যুব ক্রিকেট থেকে। যুবারা তাই একদিক থেকে বড়দের জন্যও প্রেরণার। তবে এবার নিউ জিল্যান্ডে বাংলাদেশ জাতীয় দলের সাফল্য দারুণভাবে নাড়া দিয়েছে যুবাদেরও। মাউন্ট মঙ্গানুই টেস্টে ঐতিহাসিক জয় থেকে অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপে শিরোপা ধরে রাখার লড়াইয়ে অনুপ্রেরণার জ্বালানী খুঁজে নিচ্ছে বাংলাদেশ যুব দল।
  • বাংলাদেশের দায়িত্বে থাকছেন না গিবসন
    পাকিস্তান সুপার লিগের দল মুলতান সুলতানস বুধবার রাতে টুইটারে জানায়, তাদের সহকারী ও ফাস্ট বোলিং কোচের দায়িত্ব নিচ্ছেন ওটিস গিবসন। সেই খবরে বিস্ময় ও প্রশ্নের জোয়ার বয়ে যায় বাংলাদেশের ক্রিকেটে। গিবসন যে বাংলাদেশের বোলিং কোচ! অবশেষে বৃহস্পতিবার সকালে নিশ্চিত হওয়া গেল, এই দায়িত্ব ছেড়ে নতুন অভিযানে নামছেন সাবেক ক্যারিবিয়ান ফাস্ট বোলার।
  • বিপিএলের ম্যাচ শুরু দুপুর সাড়ে ১২টায়
    এবারের বিপিএলের প্রথম ম্যাচে মুখোমুখি হবে চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্স ও ফরচুন বরিশাল। উদ্বোধনী দিনের আরেক ম্যাচে লড়বে খুলনা টাইগার্স ও মিনিস্টার গ্রুপ ঢাকা। টুর্নামেন্টের প্রথম ধাপের খেলা হবে মিরপুর শের-ই-বাংলা স্টেডিয়ামে।
  • ক্যারিয়ার সেরা র‍্যাঙ্কিংয়ে লিটন
    নিউ জিল্যান্ড সফরে দুর্দান্ত ব্যাটিং উপহার দিয়েছেন লিটন কুমার দাস। সিরিজের দুই টেস্টেই হেসেছে তার ব্যাট। এতে আইসিসি টেস্ট ব্যাটসম্যানদের র‍্যাঙ্কিংয়ে ক্যারিয়ার সেরা ১৫তম স্থানে জায়গা করে নিয়েছেন বাংলাদেশের এই কিপার-ব্যাটসম্যান।
  • জিম্বাবুয়েকে উড়িয়ে বাংলাদেশের যুবাদের প্রস্তুতি
    মূল আসরের আগে একটিই প্রস্তুতি ম্যাচ। সেটি বেশ ভালোভাবেই কাজে লাগাল বাংলাদেশ অনূর্ধ্ব-১৯ দল। আইচ মোল্লার দুর্দান্ত ইনিংস আর বোলারদের সম্মিলিত পারফরম্যান্সে কোনোরকম লড়াই করতেও পারল না জিম্বাবুয়ে অনূর্ধ্ব-১৯ দল।
  • ব্যাটে-বলে মধ্যাঞ্চলের নায়ক মোসাদ্দেক
    পাঁচ নম্বরে ব্যাটিংয়ে নেমে অপরাজিত ফিফটি। বল হাতে ইনিংস শুরু করে প্রথম ওভারেই সাফল্য। পরে আরেকটি গুরুত্বপূর্ণ উইকেট। অলরাউন্ড পারফরম্যান্সে পার্থক্য গড়ে দিলেন মোসাদ্দেক হোসেন। অধিনায়কের নৈপুণ্যে টানা দ্বিতীয় জয়ে ফাইনালের পথে এগিয়ে গেল ওয়ালটন মধ্যাঞ্চল।
  • ফেরার ম্যাচে নিষ্প্রভ তামিম, উজ্জ্বল মুস্তাফিজ
    চোট কাটিয়ে লম্বা সময় পর মাঠে ফেরা তামিম ইকবাল ধুঁকলেন ব্যাট হাতে। টিকে থাকার লড়াই চালিয়ে ফিরলেন ব্যর্থ হয়ে। মুস্তাফিজুর রহমান, নাহিদুল ইসলামদের দুর্দান্ত বোলিং সামলে ইসলামী ব্যাংক পূর্বাঞ্চলকে কোনোরকম লড়াইয়ের পুঁজি এনে দিলেন ইমরুল কায়েস। রান তাড়ায় ব্যাটসম্যানদের মিলিত চেষ্টায় লক্ষ্য সহজেই ছুঁয়ে ফেলল বিসিবি দক্ষিণাঞ্চল।
  • যে জন্য টেইলরকে প্রথম ইনিংসে গার্ড অব অনার
    কাগজে-কলমে আরও একটি ইনিংস বাকি তখনও। কিন্তু প্রথম ইনিংসেই রস টেইলরকে ‘গার্ড অব অনার’ দেয় বাংলাদেশ। ম্যাচ শেষে মুমিনুল হক দিলেন এর ব্যাখ্যা। জানালেন, দলের সবার মিলিত সিদ্ধান্তেই বিদায়ী কিউই ব্যাটসম্যানকে প্রথম ইনিংসে সম্মান জানাতে চেয়েছিলেন তারা।
  • বাংলাদেশকে সবাই নতুনভাবে দেখবে, বিশ্বাস মুমিনুলের
    অনেক প্রতীক্ষার পর এবার মিলেছে নিউ জিল্যান্ডকে তাদেরই মাটিতে হারানোর স্বাদ। মাউন্ট মঙ্গানুইয়ের সেই জয় তাই পুরো বাংলাদেশের কাছেই অনেক আরাধ্য। দারুণ এই প্রাপ্তির মাঝে এতদিনের একটা সুবিধা হাতছাড়া হয়ে গেছে বলে মনে হচ্ছে মুমিনুল হকের। এখন আর দেশের বাইরে কোনো দলকে অসতর্ক অবস্থায় পাওয়া যাবে না বলে মনে করেন বাংলাদেশের টেস্ট অধিনায়ক।
  • ইয়াসিরের উদ্দেশ্যে অনুপযুক্ত ভাষা ব্যবহারে জেমিসনের শাস্তি
    ক্রাইস্টচার্চ টেস্টে বাংলাদেশের ব্যাটসম্যান ইয়াসির আলিকে আউট করার পর অনুপযুক্ত ভাষা ব্যবহার করায় শাস্তি পেয়েছেন কাইল জেমিসন। নিউ জিল্যান্ডের এই পেসারকে ম্যাচ ফির ১৫ শতাংশ জরিমানা করা হয়েছে। সঙ্গে তার নামের পাশে যোগ হয়েছে একটি ডিমেরিট পয়েন্ট।
  • ‘লিটন যেন অনেক বেশি সময় পায়’
    নিল ওয়্যাগনারের যে বাউন্সার সতীর্থদের জন্য ছিল বিভীষিকা, সেটাই লিটন দাসের জন্য যেন ছিল চারের আমন্ত্রণ। অনায়াসে চমৎকার সব পুল শটে মারছিলেন একের পর এক বাউন্ডারি। বাইরে থেকে সতীর্থরা ভাবছিলেন, এত সহজে কীভাবে খেলছেন লিটন। তার সাবলীল ব্যাটিং দেখে অধিনায়ক মুমিনুল হকের মনে হচ্ছিল, বাড়তি সময় পাচ্ছেন এই সতীর্থ।
  • নিউ জিল্যান্ড সফরে সবচেয়ে বড় প্রাপ্তি ‘বিশ্বাস’
    ব্যর্থতার বৃত্ত কাটানো জয়ের সঙ্গে টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপে ১২ পয়েন্ট। নিউ জিল্যান্ডে প্রথমবারের মতো কোনো সিরিজে হার এড়ানো। মাউন্ট মঙ্গানুই টেস্টে পেসারদের বোলিং, ক্রাইস্টচার্চে লিটন দাসের সেঞ্চুরি। বছরের প্রথম সিরিজে বাংলাদেশের প্রাপ্তি আছে বেশ কিছু। তবে এসব ছাপিয়ে মুমিনুল হকের কাছে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ মনে হচ্ছে, দেশের বাইরে জেতার বিশ্বাস।
  • স্ট্রোকের ফুলঝুরি ছুটিয়ে লিটনের সেঞ্চুরি
    একটি সেঞ্চুরির জন্য কত অপেক্ষা। তবে সেটি পেয়ে যাওয়ার পর দ্বিতীয়টির জন্য খুব বেশি দিন অপেক্ষা করতে হলো না লিটন দাসের। স্ট্রোকের ফুলঝুরি ছুটিয়ে ছুঁলেন তিন অঙ্ক, দেখালেন নিউ জিল্যান্ডে রানের পথ।
  • বড় হারের আগে লিটনের চোখধাঁধানো সেঞ্চুরি
    নান্দনিকতা ও নিয়ন্ত্রণ, কতৃত্ব আর কাব্যিক শটের মহড়া, সবকিছুই ফুটে উঠল একটি ইনিংসে। দল বড় হারের পথে। ম্যাচ তিন দিনেই খতম হওয়ার দিকে। প্রতিপক্ষের পেস আক্রমণের একের পর এক থাবা। সবকিছু একদিকে, লিটন কুমার দাস যেন ভিন্ন এক ভুবনে। কখনও তিনি শিল্পী। হ্যাগলি ওভালের সবুজ ক্যানভাসে আঁকলেন তুলি আঁচড়। কখনও তিনি রাজা। প্রবল দাপটে আছড়ে ফেললেন ‘শত্রুর’ সব বাধা!
  • ওয়্যাগনারের ছোবলে এলোমেলো বাংলাদেশ
    একটি অসাধারণ ক্যাচ, একটি বাজে শট আর একটি খুনে বাউন্সার, এই তিন চোটে আহত বাংলাদেশের লড়াইয়ের চেষ্টা। আগের দিনের চেয়ে যদিও অনেকটাই গোছানো হলো ব্যাটিং, তবে প্রথম সেশনের প্রতিরোধ ভেঙে পড়ল দ্বিতীয় সেশনে। নিউ জিল্যান্ডের সামনে তাই হাতছানি তিন দিনেই ম্যাচ জয়ের।
  • দুই উইকেট আর কিছুটা প্রতিরোধের সেশন বাংলাদেশের
    প্রথম দিনের উইকেট ছিল অনেকটা আউটফিল্ডের মতোই সবুজ। দ্বিতীয় দিনে সবুজের আভা কমে আসে অনেকটা। তৃতীয় দিনে উইকেট প্রায় সাদা চেহারার। ব্যাটিংয়ের জন্য বলা যায় আদর্শ। সেই উইকেটে চার কিউই পেসারের সামনে বেশ প্রতিরোধ গড়ল ফলো-অনে পড়া বাংলাদেশ। তবে সঙ্গী এলো প্রথম ও দ্বিতীয় ঘণ্টার শেষ দিকে দুই থিতু ব্যাটসম্যানকে হারানোর হতাশা।
  • দারুণ ক্যাচে সাদমানকে হারাল বাংলাদেশ
    প্রথম দিনের উইকেট ছিল অনেকটা আউটফিল্ডের মতোই সবুজ। দ্বিতীয় দিনে সবুজের আভা কমে আসে অনেকটা। তৃতীয় দিনে উইকেট প্রায় সাদা চেহারার। ব্যাটিংয়ের জন্য আদর্শ বলা যায়। সেই উইকেটে চার কিউই পেসারকে নিরাপদেই খেলে পার করছিলেন বাংলাদেশের দুই ওপেনার। কিন্তু দিনের প্রথম পানি পানের বিরতির ঠিক আগে আউট হয়ে গেলেন সাদমান ইসলাম।
  • প্রিন্সের ভালো লেগেছে সোহানের মানসিকতা ও ইয়াসিরের নিবেদন
    ১২৬ রানে গুটিয়ে যাওয়া ব্যাটিং পারফরম্যান্সে এমনিতে প্রাপ্তি খুঁজে পাওয়া ভার। ক্রাইস্টচার্চ টেস্টে বাংলাদেশের প্রথম ইনিংসে ইয়াসির আলি চৌধুরি ও নুরুল হাসান সোহানের ব্যাটিংয়ে তবু ছিল আশার ঝিলিক। ব্যাটিং কোচ অ্যাশওয়েল প্রিন্সেরও নজর কেড়েছে এই দুজনের ব্যাটিং।
  • বল না ছাড়ার আক্ষেপ বাংলাদেশের ব্যাটিং কোচের
    আগের টেস্টে নিজেদের ভালো করার অভিজ্ঞতা আছে। চলতি টেস্টে নিউ জিল্যান্ডকে দেখেও করণীয় স্পষ্ট হয়েছে। তবু মূল কাজটি ঠিকঠাক করতে পারেনি বাংলাদেশ। ব্যাটিং ব্যর্থতার কারণ অনুসন্ধানে বাংলাদেশের ব্যাটিং কোচ অ্যাশওয়েল প্রিন্সের কাছে সবচেয়ে বড় সমস্যা মনে হয়েছে সেটিই, যথেষ্ট পরিমাণে বল ছাড়তে পারেনি ব্যাটসম্যানরা।
  • ল্যাথাম ২৫২, বাংলাদেশ ১২৬
    সুইং করানোর সামর্থ্য তো টিম সাউদি ও ট্রেন্ট বোল্টের সহজাত। পাশাপাশি দুজন দেখিয়ে দিলেন সবুজ উইকেটে বল রাখার আদর্শ লেংথও। নিউ জিল্যান্ডের দুই অভিজ্ঞ পেসার দারুণ বোলিংয়ে গুঁড়িয়ে দিলেন বাংলাদেশের ব্যাটিং। ধ্বংসস্তুপে দাঁড়িয়ে কিছুটা লড়াই করতে পারলেন কেবল ইয়াসির আলি চৌধুরি ও নুরুল হাসান সোহান। নিউ জিল্যান্ডের বিশাল লিড তাতে অবশ্য আটকানো গেল না।
  • এক ঘণ্টায় নেই বাংলাদেশের ৪ উইকেট
    ক্রাইস্টচার্চ টেস্টে নিউ জিল্যান্ডের রান-পাহাড়ের জবাব দিতে নেমে বাংলাদেশের শুরুটা হলো দুঃস্বপ্নের মতো। এক ম্যাচ পর ফের ব্যর্থতার চক্রে তাদের টপ অর্ডার। দ্বিতীয় সেশনে স্রেফ এক ঘণ্টায় ফিরে গেলেন প্রথম চার ব্যাটসম্যান।
  • টেস্ট অভিষেকে নাঈমের শূন্য
    টেস্ট অভিষেকে একটা ইতিহাসের অংশ হয়ে গেছেন মোহাম্মদ নাঈম শেখ। বাংলাদেশের শততম টেস্ট ক্রিকেটার তিনি। কিন্তু ব্যাট হাতে শতরান বা ভালো ইনিংস খেলে উপলক্ষ্য রাঙানো তো বহুদূর, রানই করতে পারলেন না বাঁহাতি এই ওপেনার।
  • চমৎকার সেশনে বাংলাদেশের ৪ উইকেট
    আগের দিনের দুই অপরাজিত ব্যাটসম্যান সাত সকালেই স্পর্শ করেছেন মাইলফলক। ডাবল সেঞ্চুরি ছুঁয়ে এখনও ক্রিজে টিকে আছেন টম ল্যাথাম। তবে এরপরও প্রথম সেশন নিজেদের করে নিয়েছে বাংলাদেশ। শরিফুল ইসলাম ও ইবাদত হোসেনের হাত ধরে চার উইকেট তুলে নিয়ে লড়াই করছে ম্যাচে ফিরতে।
  • সাকিব-সৌম্যদের দারুণ জয়
    সবুজের ছোঁয়া থাকা উইকেটে অনেকটা সময় ক্রিজে থেকেও ইনিংস বড় করতে পারলেন না সাকিব আল হাসান। চমৎকার কিছু শটে ভালো শুরুর আভাস দিয়ে ত্রিশের ঘরেই আটকে গেলেন মোহাম্মদ মিঠুন। লাল বলে ভালো করা সৌম্য সরকার সাদা বলে হলেন ব্যর্থ। তাদের আক্ষেপের দিনে কম রানেই গুটিয়ে গেল ওয়ালটন মধ‍্যাঞ্চল। তবে মোসাদ্দেক হোসেন, সাকিব, হাসান মুরাদদের দারুণ বোলিংয়ে সেই রানই যথেষ্ট হলো। কম রানের রোমাঞ্চকর ম‍্যাচে ইসলামী ব‍্যাংক পূর্বাঞ্চলকে হারিয়ে শুভ সূচনা করল বিসিএল চ‍্যাম্পিয়নরা।
  • নাঈমের অলরাউন্ড নৈপুণ্যে দক্ষিণাঞ্চলকে উড়িয়ে দিল উত্তরাঞ্চল
    দুর্দান্ত পারফরম্যান্সে লক্ষ্যটা নাগালে রাখলেন বোলাররা। রান তাড়ায় ব্যাট হাতে আলো ছড়ালেন পারভেজ হোসেন। দারুণ বোলিংয়ের পর ব্যাটিংয়েও অবদান রাখলেন নাঈম ইসলাম। তার অলরাউন্ড নৈপুণ্যে বিসিবি দক্ষিণাঞ্চলকে গুঁড়িয়ে দিল বিসিবি উত্তরাঞ্চল।
  • খেলতে মরিয়া হয়েও পারেননি মুশফিক
    ম্যাচের আগের দিন ছিল আভাস। ম্যাচের সকালে পেল চূড়ান্ত প্রকাশ। কুঁচকির চোটে ক্রাইস্টচার্চ টেস্ট থেকে ছিটকে যেতে হলো মুশফিকুর রহিমকে। যদিও মাঠে নামার প্রবল চেষ্টা তিনি করেছেন বলে জানালেন বোলিং কোচ ওটিস গিবসন। তবে উতরাতে পারেননি ফিটনেস পরীক্ষায়।
  • সবুজ উইকেটে ল্যাথাম-কনওয়ের ব্যাটে পিষ্ট বাংলাদেশের আশা
    মেঘলা আকাশ, ঘাসে ভরা উইকেট। ম্যাচের আগে রস টেইলর যেমন বলেছিলেন, ‘বোলারদের জিভে জল আনা উইকেট।’ কাঙ্ক্ষিত টসও জিতলেন মুমিনুল হক। এরপর কেবল প্রয়োজন ওই সবুজের গালিচায় লাল বলে আগুনের হলকা ছড়ানো। কিন্তু মুমিনুলের পেস আক্রমণ পুরো সময়ই রইল মিইয়ে। বাংলাদেশের আশায় জল ঢেলে রানের জোয়ার বইয়ে দিল নিউ জিল্যান্ড।
  • একটি উইকেট ও অনেক হতাশার দুই সেশন বাংলাদেশের
    রেকর্ড গড়া জুটির পর একটি উইকেট অবশেষে ধরা দিল। একটি সুযোগও হাতছাড়া হলো। সঙ্গে ভীড় করল আরও অনেক হতাশা। সবুজ উইকেটেও বাংলাদেশের ধরে রাখল ধারহীন বোলিংয়ের ধারা। টম ল্যাথামের দুর্দান্ত সেঞ্চুরি আর দুটি জুটিতে নিউ জিল্যান্ড দুইশ ছাড়িয়ে গেল দুই সেশনেই।
  • বাংলাদেশকে হতাশ করে নিউ জিল্যান্ডের দুর্দান্ত শুরু
    ইবাদত হোসেনের প্রথম ওভারেই আম্পায়ার আঙুল তুললেন দুই দফায়। কিন্তু আউট হলেন না ব্যাটসম্যান। দুটি সিদ্ধান্তই বদলে গেল রিভিউয়ে। লাঞ্চের সময় অবশ্য বাংলাদেশের প্রয়োজন নিজেদের বোলিংয়ে ‘রিভিউ’। সবুজ ঘাসে ভরা উইকেটে কাঙ্ক্ষিত টস জিতেও বাংলাদেশ যে পারল না ফায়দা নিতে! চ্যালেঞ্জিং উইকেটে নিউ জিল্যান্ডকে দারুণ শুরু এনে দিলেন টম ল্যাথাম ও উইল ইয়াং।
  • নাঈমকে দিয়ে বাংলাদেশের ‘সেঞ্চুরি’
    মোহাম্মদ নাঈম শেখের টেস্ট স্কোয়াডে ডাক পাওয়া নিয়ে আলোচনা-সমালোচনা কম হয়নি। সেই তিনিই এবার সৌভাগ্যক্রমে হয়ে গেলেন বাংলাদেশের ক্রিকেট ইতিহাসের অংশ। নিউ জিল্যান্ডের বিপক্ষে ক্রাইস্টচার্চ টেস্টে তিনি পেলেন টেস্ট ক্যাপ। বাঁহাতি এই ওপেনার বাংলাদেশের শততম টেস্ট ক্রিকেটার।
  • বোলিংয়ে বাংলাদেশ, নাঈমের অভিষেক, নেই মুশফিক
    টসের আগে বড় দুঃসংবাদ। কুঁচকির চোটের কারণে খেলতে পারবেন না মুশফিকুর রহিম। টসে অবশ্য ভাগ্যকে পাশে পেল বাংলাদেশ। ক্রাইস্টচার্চে কাঙ্ক্ষিত টসটি জিতে বাংলাদেশ অধিনায়ক মুমিনুল হক ব্যাটিংয়ে পাঠালেন নিউ জিল্যান্ডকে।
  • সাকিবের বরিশালে ব্রাভো ও মুনিম
    ড্রাফটের আগেই দলে পাওয়া দানুশকা গুনাথিলাকা শেষ পর্যন্ত আসতে পারছেন না। তবে খুব ভালো একজন বিদেশি ক্রিকেটার পেয়ে গেল ফরচুন বরিশাল। লঙ্কান ওপেনারের বদলে তারা দলে নিল ক্যারিবিয়ান অলরাউন্ডার ডোয়াইন ব্রাভোকে। এবারের বিপিএলে সাকিব আল হাসানের দল ব্রাভোর পাশাপাশি দলে নিয়েছে স্থানীয় টপ অর্ডার ব্যাটসম্যান মুনিম শাহরিয়ারকে।
  • ‘স্পেশাল কিছুর’ আশায় বাংলাদেশ, ‘নার্ভাস’ নিউ জিল্যান্ড
    বিশেষ কোনো অর্জন আর প্রাপ্তি বিশ্বাস জোগায় নতুন ইতিহাস গড়ার। দীর্ঘদিনের বন্ধ আগল খুলতে পারলে তা খুলে দেয় নতুন সম্ভাবনার দুয়ার। বাংলাদেশের সামনে এখন তেমন কিছুরই হাতছানি। নিউ জিল্যান্ডে প্রথমবার টেস্ট জয়ের পর লক্ষ্য এবার সিরিজ জয়।
  • কমনওয়েলথ গেমস বাছাইয়ের দলে নেই জাহানারা
    বাংলাদেশের মেয়েদের পেস বোলিংয়ের সবচেয়ে বড় বিজ্ঞাপন জাহানারা আলম জায়গা হারিয়েছেন টি-টোয়েন্টি দলে। প্রায় দুই বছর আগে এই সংস্করণের বিশ্বকাপে তিন ম‍্যাচে উইকেটশূন‍্য থাকা অভিজ্ঞ পেসারের জায়গা হয়নি কমনওয়েলথ গেমসের বাছাইয়ের দলে।
  • বিসিএল-বিপিএল সাকিবের কাছে ‘আফগানিস্তান সিরিজের প্রস্তুতি’
    বিপিএল ও ঢাকা প্রিমিয়ার লিগ ছাড়া ঘরোয়া ক্রিকেটে সাকিব আল হাসানের খেলা বিরল ব্যাপার। সেই তিনিই এবার খেলবেন বাংলাদেশ ক্রিকেট লিগের (বিসিএল) ওয়ানডে সংস্করণে। এরপর বিপিএল তো আছেই। সাকিব এই দুই ঘরোয়া টুর্নামেন্টকে দেখছেন আফগানিস্তানের বিপক্ষে আগামী মাসের সিরিজের জন্য প্রস্তুতি হিসেবে।
  • ‘আমরা ৪-৫ জন ছাড়া খেলোয়াড় নেই, সেটা ভুল প্রমাণ হলো’
    বাংলাদেশের অনেক স্মরণীয় জয়ে সরাসরি অবদান আছে সাকিব আল হাসানের। সেই তিনি স্মরণীয়তম জয়টি দেখলেন অনেক দূর থেকে। তাতে তার আক্ষেপ নেই একটুও, বরং দারুণ খুশি ও গর্বিত বলেও দাবি করলেন। ছুটিতে থাকা সাকিবকে ছাড়াও বাংলাদেশ এই সফরে পায়নি চোটাক্রান্ত তামিম ইকবালকে। এটিও বাড়তি তৃপ্তি দিচ্ছে সাকিবকে। তরুণদের ওপর আস্থা রাখলে এরকম প্রতিদান মিলবে বলেই বিশ্বাস এই অলরাউন্ডারের।
  • মুমিনুল-জেমিসনের ভাইরাল ছবি নিয়ে হাথুরুসিংহের টুইট
    উচ্চতার জন‍্য কাইল জেমিসনের চোখে চোখ রাখা বাংলাদেশের যে কোনো ক্রিকেটারের জন‍্যই কঠিন। সবচেয়ে কঠিন সম্ভবত মুমিনুল হকের জন‍্য। তবে মাউন্ট মঙ্গানুই টেস্টের এক পর্যায়ে সম্ভবত সেই চেষ্টাই করলেন বাংলাদেশ অধিনায়ক। ওই ছবি তুমুল আলোচনার জন্ম দিল অন্তর্জালে। যা নিয়ে এবার টুইট করলেন বাংলাদেশের সাবেক কোচ চন্দিকা হাথুরুসিংহেও।
  • হ্যাগলি ওভালে বাংলাদেশের অপেক্ষায় সবুজ ও বাউন্সি উইকেট
    প্রথম টেস্ট শুরুর আগে টিভিতে আলোচনায় ধারাভাষ্যকার মার্ক রিচার্ডসন, ব্রেন্ডন ম্যাককালামরা বলছিলেন, “নিউ জিল্যান্ডে এত কম ঘাসের উইকেট গত কয়েক বছরে দেখিনি।” খেলা শুরুর পর দেখা যায়, শুধু ঘাসই কম নয়, নিউ জিল্যান্ড বিবেচনায় উইকেট বেশ মন্থরও। বাংলাদেশ ফায়দা নেয় দারুণভাবেই। তবে দ্বিতীয় টেস্টে ব্যাটসম্যানদের অপেক্ষায় আরও কঠিন চ্যালেঞ্জ।
  • ‘জিমে সাইফ উদ্দিনের সঙ্গে কেউ নেই কেন?’, প্রশ্ন মাশরাফির
    দেশের পেস বোলিংয়ে আলোর রেখা হয়ে এসেছে মাউন্ট মঙ্গানুই টেস্টে ইবাদত হোসেন চৌধুরি ও অন্য পেসারদের পারফরম্যান্স। তবে আলোর নিচে অন্ধকারও চোখে পড়ল মাশরাফি বিন মুর্তজার। শের-ই-বাংলা স্টেডিয়ামের জিমে গিয়ে তিনি দেখতে পেলেন চোট পাওয়া পেস বোলিং অলরাউন্ডার সাইফ উদ্দিন কাজ করছেন কোনো ফিজিও-ট্রেনার ছাড়াই। মাশরাফির তাই অভিমত, মাঠের বাইরে এরকম অযত্ন-অবহেলা থাকলে মাঠের সাফল্য ধরে রাখা সম্ভব হবে না।
  • ‘ইবাদতের সাফল্য ফ্লুক নয়’
    ২০০৯ সালে নিজের শেষ টেস্ট খেলেছেন মাশরাফি বিন মুর্তজা। চোট-আঘাতের থাবায় সম্ভাবনাময় ক্যারিয়ার থমকে গেছে স্রেফ ৭৮ উইকেটে। অথচ এখনও তিনিই দেশের সফলতম টেস্ট পেসার! এই সংস্করণে বাংলাদেশের পেস বোলিংয়ের বাস্তবতা তুলে ধরে স্রেফ এই তথ্যই। সেই দলই এবার অবিস্মরণীয় এক জয় পেয়েছে পেসারদের পারফরম্যান্সে। নিউ জিল্যান্ডকে হারানোর নায়ক ইবাদত হোসেন চৌধুরির উদাহরণ দিয়ে মাশরাফি বললেন, পর্যাপ্ত সময় আর যত্ন পেলে পেসাররাও এভাবেই হয়ে উঠবে রত্ন।
  • বিসিএলের সেরা মিঠুন-জাকির
    ওপেনিংয়ে উঠে এসে দুর্দান্ত একটি টুর্নামেন্ট কাটানো মোহাম্মদ মিঠুন নাকি পাঁচ ইনিংসে তিন সেঞ্চুরি করা জাকির হাসান, কে এগিয়ে? একজনকে বেছে নেওয়া যায়নি, তাই যৌথভাবে বাংলাদেশ ক্রিকেট লিগের (বিসিএল) নবম আসরে সেরা ক্রিকেটারের পুরস্কার জিতেছেন এই দুই জন।
  • সেরা জয়ে মুমিনুলকে টুপি খোলা অভিনন্দন মাশরাফির
    মাঠে থেকে বাংলাদেশের অনেক স্মরণীয় জয়ের স্বাক্ষী মাশরাফি বিন মুর্তজা। নেতৃত্বও দিয়েছেন কয়েকটিতে। অনেক জয় দেখেছেন বাইরে থেকে। তার চোখে আগের সব জয়কে ছাপিয়ে গেছে মাউন্ট মঙ্গানুই টেস্টে নিউ জিল্যান্ডের বিপক্ষে জয়। খর্বশক্তির দল নিয়েও এমন জয়ে বাংলাদেশের সফলতম ওয়ানডে অধিনায়ক বড় কৃতিত্ব দিলেন টেস্ট অধিনায়ক মুমিনুল হককে।
  • বিপিএলে চোখ রেখে বোলিংয়ে ফিরলেন মাশরাফি
    একসময় শের-ই-বাংলা স্টেডিয়ামে মাশরাফি বিন মুর্তজার ছিল নিত্য আনাগোনা। সময়ের পরিক্রমায় এখন তার এই মাঠে আসাও একটা বড় ঘটনা। বৃহস্পতিবার সকালে যেমন, তিনি মাঠে আসতেই সংবাদকর্মীদের ছুটোছুটি শুরু হয়ে গেল। মাঠে থাকা অন্য ক্রিকেটাররা, নেট বোলারদের মধ্যেও চাঞ্চল্য। তাদের সঙ্গে হাই-হ্যালো, করমর্দন, আলিঙ্গন শেষে মাশরাফি মন দিলেন মূল কাজে, যে জন্য এতদিন পর মাঠে আসা।
  • শুভাগতর জোড়া সেঞ্চুরিতে বিসিএল চ্যাম্পিয়ন মধ্যাঞ্চল
    প্রথম ইনিংসে বিপদে পড়া দলকে দারুণ এক সেঞ্চুরিতে পথ দেখানো শুভাগত হোম চৌধুরির ব্যাট হাসল দ্বিতীয় ভাগেও। বিসিবি দক্ষিণাঞ্চলের বিপক্ষে রান তাড়ায় অপরাজিত শতক উপহার দিলেন তিনি। তার ও জাকের আলির নৈপুণ্যে বাংলাদেশ ক্রিকেট লিগের শিরোপা ঘরে তুলল ওয়ালটন মধ্যাঞ্চল।
  • করোনাভাইরাসে আক্রান্ত মিনহাজুল আবেদীন
    দিন দুয়েক ধরে জ্বর ছিল। চিকিৎসকের পরামর্শে কোভিড পরীক্ষা করিয়ে মিনহাজুল আবেদীন পেলেন দুঃসংবাদ। কোভিড পজিটিভ হয়েছেন সাবেক এই অধিনায়ক ও জাতীয় দলের প্রধান নির্বাচক।
  • ২০০ মিটারেও সেরা সুমাইয়া
    ১০০ মিটারের পর ২০০ মিটারেও আলো ছড়ালেন সুমাইয়া দেওয়ান। শিরিন আক্তারকে পেছনে ফেলে দ্রুততম মানবীর মুকুট জয়ের পর ২০০ মিটারেও সেরা হয়েছেন তিনি। ছেলেদের ২০০ মিটারে সেরা হয়েছেন রাকিবুল ইসলাম।
  • শেষ দিনের রোমাঞ্চকর মোড়ে ফাইনাল
    মূল কাজ তার লেগ স্পিন বোলিং। ব্যাট হাতে টুকটাক অবদান রাখার সামর্থ্য থাকলেও ধারাবাহিক নন রিশাদ হোসেন। সেই তিনিই কিনা এবার নিজেকে মেলে ধরলেন প্রকৃত ব্যাটসম্যান হিসেবে। দুর্দান্ত ব্যাটিংয়ে সেঞ্চুরির আশা জাগালেও ফিরলেন ১ রানের আক্ষেপ নিয়ে। তার ওই ইনিংসের সুবাদেই বাংলাদেশ ক্রিকেট লিগের ফাইনালে ওয়ালটন মধ্যাঞ্চলকে দুইশ ছাড়ানো লক্ষ্য দিতে পেরেছে বিসিবি দক্ষিণাঞ্চল।
  • ‘আমি বিমান সেনা, স্যালুট দিতে জানি’
    ইবাদত হোসেন চৌধুরির উইকেট উদযাপনের রহস্য বাংলাদেশ ক্রিকেটের অনেকেরই জানা। এবার তা জেনে গেল ক্রিকেট বিশ্বও। নিউ জিল্যান্ডে বাংলাদেশের ইতিহাস গড়া জয়ের নায়ক মাথা উঁচু করে বললেন, বাংলাদেশ ক্রিকেট দল ও বাংলাদেশ বিমান বাহিনীর প্রতিনিধিত্ব করতে পেরে গর্বের কথা।
  • ‘এই জয়ে গর্ব করতে পারে বাংলাদেশ’
    সিরিজ শুরুর আগে বাংলাদেশের পক্ষে বাজি ধরার লোক খুব একটা ছিল না। এর যৌক্তিক কারণও ছিল। এক দিকে ঘরের মাঠে দারুণ রেকর্ড নিউ জিল্যান্ডের, অন্য দিকে বাংলাদেশের রেকর্ড বেশ বাজে। তিন সংস্করণ মিলিয়ে হেরেছে টানা ৩২ ম্যাচ। সেই দলটিই কিনা টেস্ট চ্যাম্পিয়নদের হারিয়ে দিল তাদের আঙিনায়! অভাবনীয় এই জয়ে বাংলাদেশ দল ভাসছে স্তুতির জোয়ারে।
  • ‘মুশফিক ভাই সবচেয়ে ইমোশনাল’
    ব্যাকওয়ার্ড পয়েন্ট দিয়ে বাউন্ডারি হাঁকিয়ে জয় নিশ্চিত করার পর যে চিৎকার দিলেন মুশফিকুর রহিম, সেটাই বলে দিল অনেক কিছু। দেড় দশকে নিউ জিল্যান্ডে তো কম সইতে হয়নি তাকে। তারই জবাব যেন ছিল এই হুঙ্কার। তার শরীরি ভাষায় যেটা ফুটে উঠছিল, ম্যাচ শেষে সেটাই বললেন মুমিনুল হক। তার দেখা সবচেয়ে আবেগপ্রবণ মানুষ মুশফিক।
  • সর্বশ্রেষ্ঠ যে জয়
    অপরূপ নৈসর্গিক সৌন্দর্যের দেশ নিউ জিল্যান্ড। অপূর্ব সব লেক, সাগরে স্বচ্ছ স্ফটিকের মতো নীল জলরাশি, মাইলের পর মাইল জুড়ে সবুজ প্রান্তর আর ছোট-বড় পাহাড় মিলিয়ে প্রকৃতি যেন খুব যত্ন করে সাজিয়েছে দেশটি। সৌন্দর্যের সেই লীলাভূমিতেই বাংলাদেশের ক্রিকেট পেল ইতিহাসের সুন্দরতম দিন।
  • সুজন ভাইয়ের অনেক অবদান: মুমিনুল
    বৃষ্টিতে আড়াই দিনের বেশি সময় ভেসে যাওয়া একটি ম্যাচে দুঃস্বপ্নের ব্যাটিংয়ে হারের পরপরই নিজেদের কঠিনতম গন্তব্যে একটিতে যাত্রা। সেখানে কোভিড জটিলতায় বেড়ে গেল কোয়ারেন্টিনের মেয়াদ। এর ডামাডোলে হারিয়ে গেল একটি প্রস্তুতি ম্যাচ। কোনো কিছুই ঠিক বাংলাদেশের পক্ষে ছিল না। বাজে সময়ের মধ্য দিয়ে যাওয়া নড়বড়ে এক দলকে মাউন্ট মঙ্গানুইয়ে দেখলে অবাক হওয়ার কিছু ছিল না। মুমিনুল হক জানালেন, খালেদ মাহমুদের তৎপরতায় উজ্জ্বীবিত হয়েই নিউ জিল্যান্ডের বিপক্ষে প্রথম টেস্টে খেলতে নেমেছিলেন তারা।
  • ‘ইবাদত যে দিন ভালো জায়গায় বল করবে, সেদিন ওই দল শেষ’
    গতি সব সময়ই ছিল কিন্তু ছিল না নিয়ন্ত্রণ। বিচ্ছিন্নভাবে দুয়েকটা স্পেলে ঝলক দেখালেও বেশিরভাগ সময় ছিলেন অকার্যকর। উইকেট নেওয়ায় ব্যর্থতার সঙ্গে ছিল রান বিলানোর প্রবণতা। সব মিলিয়ে ১০ উইকেট নেওয়া বোলারদের মধ্য টেস্ট ইতিহাসে সবচেয়ে বাজে গড় ছিল তার। স্বাভাবিকভাবেই তাকে খেলানো নিয়ে প্রশ্ন উঠছিল। রেকর্ড রাঙা বোলিংয়ে সব প্রশ্নের উত্তর দিলেন ইবাদত হোসেন চৌধুরি।
  • নির্ঘুম রাত শেষে মুমিনুলের আনন্দময় দিন
    চতুর্থ দিনের মাঠের লড়াই তো শেষ হলো। হোটেলে ফিরে রাতে মুমিনুল হকের লড়াই শুরু হলো নিজের সঙ্গে। চোখের পাতা যে এক করাই মুশকিল! রোমাঞ্চ-উত্তেজনার শিহরণ, শঙ্কা-সম্ভাবনার দোলাচল, পরদিন কী হয় না হয়, সবকিছু মিলিয়ে রাতটা একরকম নির্ঘুম কাটে বাংলাদেশ অধিনায়কের। দলের সবার অবস্থাও নিশ্চয়ই কম-বেশি এমনই! ভেতরের সেই ঝড়কে দমিয়ে মাঠে নেমে শেষ দিনেও দুর্দান্ত পারফর্ম করে দল। ধরা দেয় অসাধারণ জয়। অধিনায়কের কণ্ঠে এখন তাই তৃপ্তির সুর, মুখে মধুর হাসি।
  • এই জয় ভুলে যেতে চান মুমিনুল
    ক্রিকেট বিশ্বকে চমকে দেওয়া এক জয়। বাজে সময়ে স্বস্তির শ্বাস নেওয়ার সুযোগ করে দেওয়া এক জয়। নিউ জিল্যান্ডের মাঠে ইতিহাস গড়া জয়। সময় এখন সাফল্য উপভোগ করার। কিন্তু মুমিনুল হক খুব ভালো করেই জানেন, কাজের কেবল অর্ধেক শেষ হয়েছে মাউন্ট মঙ্গানুইয়ে। তাই যত তাড়াতাড়ি সম্ভব এই ম্যাচ ভুলে ক্রাইস্টচার্চ টেস্ট মনোযোগ দিতে চান বাংলাদেশ অধিনায়ক। 
  • সামর্থ্যের বেশি দিয়ে এই জয়, বললেন তাসকিন
    একটিই তো ম্যাচ, অথচ কত অর্জনের হাতছানি। এমন পরিস্থিতিতে অতি রোমাঞ্চে তালগোল পাকিয়ে যাওয়া অস্বাভাবিক কিছু নয়। তবে তেমন কিছু ঘটতে দেয়নি বাংলাদেশ। কাঙ্ক্ষিত লক্ষ্য ছুঁয়ে তাসকিন আহমেদ বললেন, আগেভাগে জয় নিয়ে ভাবেননি তারা। কেবল প্রক্রিয়া ঠিক রেখে খেলে গেছেন সামর্থ্যের বেশি দিয়ে।
  • ইবাদতের রেকর্ড গড়া বোলিংয়ে খরা কাটল বাংলাদেশের
    শেষ দিনে বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় বাধা ছিলেন রস টেইলর। দিনের শুরুতেই কাঙ্ক্ষিত সেই উইকেট বাংলাদেশকে এনে দিলেন ইবাদত হোসেন চৌধুরি। এই ম্যাচে দলের চাওয়া যেমন পূরণ করলেন তিনি, তেমনি অবসান হলো দেশের ক্রিকেটের দীর্ঘদিনের এক অপেক্ষারও।
  • চ্যাম্পিয়নদের হারিয়ে বাংলাদেশের স্মরণীয় টেস্ট জয়
    বাংলাদেশে সবে ভোরের আলো ফুটতে শুরু করেছে। ঠিক সেই সময়টায় ১২ হাজার কিলোমিটার দূরে মাউন্ট মঙ্গানুইতে যা হলো, তাতে কেটে গেল বাংলাদেশ ক্রিকেটের সাম্প্রতিক আঁধার। আইসিসি টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের চ্যাম্পিয়ন, দেশের মাঠে অপ্রতিরোধ্য দল, যাদেরকে তাদের মাঠে কখনোই কোনো সংস্করণে হারাতে পারেনি বাংলাদেশ, এতদিনের সেই অধরা ভুবন নিউ জিল্যান্ডে ধরা দিল বহুকাঙ্ক্ষিত এক স্বপ্নময় জয়।
  • মিঠুনের ২০৬, শুভাগতর ১১৬
    আগের দিন করা সেঞ্চুরিকে দুর্দান্ত ব্যাটিংয়ে ক্যারিয়ারের প্রথম ডাবল সেঞ্চুরিতে রূপ দিলেন মোহাম্মদ মিঠুন। তাকে দারুণ সঙ্গ দেওয়া শুভাগত হোম চৌধুরি করলেন টানা দ্বিতীয় শতক। এই দুইজনের তিনশর কাছাকাছি জুটিতে বিসিবি দক্ষিণাঞ্চলের বিপক্ষে লিড পেয়েছে ওয়ালটন মধ্যাঞ্চল।
  • ‘ইবাদত প্রমাণ করেছে, সে ভালো বোলার’
    টেস্ট প্রতি উইকেট মোটে একটি করে। বোলিং গড় ভীষণ বাজে। ওভারপ্রতি রান অনেক বেশি। মাউন্ট মঙ্গানুই টেস্টের আগে ইবাদত হোসেন চৌধুরির টেস্ট রেকর্ড ছিল একদমই যাচ্ছেতাই। বোলিংয়ে স্কিল, কারুকাজ ও ধারাবাহিকতাও দেখা যায়নি আগে তেমন। সেই ইবাদতই দুর্দান্ত বোলিং করে বাংলাদেশকে নিয়ে গেছেন অভাবনীয় এক জয়ের কাছে।
  • 'এখনও শিখছি', অসাধারণ বোলিংয়ের পর বললেন ইবাদত
    লাল বলে বাংলাদেশের পেস বোলিংয়ের উজ্জ্বল ভবিষ্যতের একটা ছাপ রাখতে পেরেছেন তাসকিন আহমেদ, শরিফুল ইসলাম, ইবাদত হোসেন চৌধুরিরা। মাউন্ট মঙ্গানুই টেস্টে তারা পাল্লা দিয়েছেন নিউ জিল্যান্ডের পেস চতুষ্টয়ের সঙ্গে। সাফল্যের নিরিখে হয়ত সফরকারীরা একটু এগিয়েই থাকবেন। তবে ইবাদত হোসেন বললেন, তাদের সাফল্যের চূড়া এটা নয়। খুঁটিনাটি তো বটেই, পেস বোলিংয়ের অনেক মৌলিক ব্যাপার এখনও তারা শিখছেন।
  • জয়ের ভাবনায় ‘ওভার এক্সাইটেড’ নয় বাংলাদেশ দল
    মাউন্ট মঙ্গানুইতে রাতটি কেমন কাটবে বাংলাদেশ দলের? বাংলাদেশের ক্রিকেটে এমন মুহূর্ত খুব বেশি আসে না। নিউ জিল্যান্ডে গিয়ে এমন সম্ভাবনার হাতছানি নিয়ে রাতে ঘুমুতে যাওয়ার শিহরণও আগে কখনও পেতে হয়নি। রোমাঞ্চ-উত্তেজনার নানা অনুভূতিই তাই ক্রিকেটারদের মনে দোলা দেওয়ার কথা। লিটন দাস যদিও বলছেন, জয়-হার নিয়ে ভাবছেই না দলের কেউ।
  • জয়ের তাড়নায় সম্ভাবনাকে পূর্ণতা দিতে মরিয়া বাংলাদেশ
    আগের দিনের ভাবনায় জয়ের পাশে ড্র’কেও রেখেছিল বাংলাদেশ। চতুর্থ দিন শেষে সেখানে কেবলই জয়ের প্রত্যয়। নিউ জিল্যান্ডের বিপক্ষে তাদের প্রথম টেস্ট এখন যেখানে দাঁড়িয়ে তাতে সম্ভাব্য চার ফলের মধ্যে সফরকারীদের জয়ের সম্ভাবনাই সবচেয়ে উজ্জ্বল। ইবাদত হোসেনের চোখে ভালো করার ধারাবাহিকতা ধরে রেখে এই সম্ভাবনাকে পূর্ণতা দেওয়ার স্বপ্ন।
  • মিঠুনের প্রথম ডাবল সেঞ্চুরি
    প্রথম শ্রেণির ম্যাচ খেলে ফেলেছেন একশর বেশি। সেঞ্চুরি আছে বেশ কয়েকটি। কিন্তু দ্বিশতক স্পর্শ করার মধুর অভিজ্ঞতা একবারও ছিল না মোহাম্মদ মিঠুনের। অবশেষে সেই খরাও কাটল। বিসিএলের ফাইনালে দুর্দান্ত ব্যাটিংয়ে উপহার দিলেন তিনি দারুণ এক ডাবল সেঞ্চুরি।
  • মাহমুদুলের ডান হাতে তিন সেলাই
    নিউ জিল্যান্ডে দ্বিপক্ষীয় সিরিজে প্রথম জয়ের আশা উজ্জ্বল করার দিনে একটা দুঃসংবাদ শুনল বাংলাদেশ। হাতে চোট পেয়েছেন মাহমুদুল হাসান জয়। এই টেস্টের প্রথম ইনিংসে দুর্দান্ত ব্যাট করা তরুণ ব্যাটসম্যানের ডান হাতে পড়েছে তিনটি সেলাই।
  • দ্যুতিময় ইবাদতে উজ্জ্বল বাংলাদেশের জয়ের স্বপ্ন
    দুটি ক্যাচের সঙ্গে একটি রান আউটের সহজ সুযোগ হাতছাড়া। সেসব কাজে লাগিয়ে নিউ জিল্যান্ডের লিড। মনে হচ্ছিল, আরও একবার বুঝি এলো দীর্ঘশ্বাসের পালা। কিন্তু এই দিনটি অন্যরকম। এই ম্যাচটি আলাদা। ম্যাচের পর ম্যাচ ধারহীন বোলিংয়ে যাকে নিয়ে ছিল সমালোচনা, সেই ইবাদত হোসেন চৌধুরি জ্বলে উঠলেন আগুনে বোলিংয়ে। ক্যারিয়ার সেরা বোলিংয়ে তিনি বাংলাদেশকে নিয়ে গেলেন এমন এক জায়গায়, যেখান থেকে জয় খুব নাগালেই!
  • ২ উইকেটের সঙ্গে একটি সুযোগ হাতছাড়ার আক্ষেপ
    প্রথম ইনিংসে ভালো বল করেও উইকেটশূন্য থাকা তাসকিন আহমেদের হাত ধরে এলো প্রথম সাফল্য। গতিময় বোলিংয়ে ইবাদত হোসেন নিলেন আরেকটি। উইকেট পেতে পারতেন মেহেদী হাসান মিরাজও। তবে সুযোগ কাজে লাগাতে পারেননি লিটন দাস। তাই নিউ জিল্যান্ডের দুই উইকেটের সঙ্গে একটি সুযোগ হাতছাড়ার আক্ষেপ নিয়ে চা-বিরতিতে গেছে বাংলাদেশ। 
  • ১৩০ রানের লিড নিয়ে থামল বাংলাদেশ
    ইয়াসির আলি চৌধুরির সঙ্গে মেহেদী হাসান মিরাজের জুটি ভাঙার পর দ্রুতই গুটিয়ে গেল বাংলাদেশের প্রথম ইনিংস। তৃতীয় নতুন বলে দ্রুত শেষ চার উইকেট হারানোর আগে অবশ্য নিউ জিল্যান্ডের বিপক্ষে লিড শতরানে নিতে পেরেছে মুমিনুল হকের দল।
  • আশরাফুল-মিনহাজুলের পাল্টাপাল্টি বক্তব্য ঘিরে বিতর্ক
    দেশের ইতিহাসের সেরা ব্যাটসম্যানদের মধ্যে থাকে মিনহাজুল আবেদীন ও মোহাম্মদ আশরাফুলের নাম। দুই যুগে জাতীয় দলকে নেতৃত্বও দিয়েছেন দুজন। এখন ক্রিকেটের জগতেও দুজনের বিচরণ দুই দিকে। মিনহাজুল দীর্ঘদিন ধরে কাজ করছেন প্রধান নির্বাচক হিসেবে, স্পট ফিক্সিংয়ের কারণে নিষেধাজ্ঞা কাটিয়ে ফিরে আশরাফুল খেলছেন এখনও। সংবাদমাধ্যমে পাল্টপাল্টি বক্তব্য দিয়ে এই দুজন এখন মুখোমুখি। দেশের ক্রিকেটে যা জন্ম দিয়েছে তুমুল আলোচনার।
  • ফরহাদ ঝলকের পর মিঠুনের দুর্দান্ত সেঞ্চুরি
    ১৬ রানে নেই ৪ উইকেট! ফরহাদ রেজার দারুণ বোলিংয়ে ওয়ালটন মধ্যাঞ্চল তখন কাঁপছে। খাদের কিনার থেকে দলকে টেনে তুললেন মোহাম্মদ মিঠুন। উপহার দিলেন সেঞ্চুরি। তার সঙ্গে অবিচ্ছিন্ন দেড়শ রানের জুটি গড়ে বিসিবি দক্ষিণাঞ্চলের বিপক্ষে দলকে লড়াইয়ে রেখেছেন শুভাগত হোম চৌধুরি।
  • বাংলাদেশের বিপক্ষে ‘পছন্দের উইকেট’ পায়নি নিউ জিল‍্যান্ড
    দেশের মাটিতে সাধারণত যতটা সুবিধা মেলে মাউন্ট মঙ্গানুই টেস্টে ততটা পাচ্ছেন না নিউ জিল‍্যান্ডের বোলাররা। উইকেট নিতে নিজেদের নিংড়ে দিতে হচ্ছে তাদের। পেসার ট্রেন্ট বোল্ট বললেন, বাংলাদেশের বিপক্ষে প্রথম টেস্টে এতো ভালো উইকেট তারা আশা করেননি।
  • ‘অসাধারণ খেলেছে মুমিনুল ও লিটন’
    নিজেদের ব্যাটিং লাইনআপ অনভিজ্ঞ, প্রতিপক্ষের পেস আক্রমণ ক্ষুরধার। কন্ডিশনের চ্যালেঞ্জ তো আছেই। বাংলাদেশের ব্যাটিং নিয়ে তাই ছিল বড় শঙ্কার জায়গা। কিন্তু চমক উপহার দিয়ে সেই ব্যাটসম্যানরাই দেখাল অসাধারণ দৃঢ়তা। এমন পারফরম্যান্সে মুগ্ধ টিম ডিরেক্টর খালেদ মাহমুদ ব্যাটসম্যানদের জানালেন কুর্নিশ।
  • প্রস্তুতি ম‍্যাচের আত্মবিশ্বাস থেকে মাহমুদুলের এই ইনিংস
    জাতীয় দলের হয়ে নিউ জিল‍্যান্ডে এটাই প্রথম সফর। তবে ক্রিকেটার হিসেবে প্রথম নয়। দুই বছর আগে অনূর্ধ্ব-১৯ দলের হয়ে নিউ জিল‍্যান্ডে খেলার অভিজ্ঞতা আছে মাহমুদুল হাসানের। কন্ডিশনের সঙ্গে আগে থেকে পরিচিত এই টপ অর্ডার ব‍্যাটসম‍্যানের জন‍্য আরও সহায়ক হয় প্রস্তুতি ম‍্যাচ। জানালেন, সেই ম‍্যাচে রান পাওয়াটা তাকে টেস্টে ভালো করার আত্মবিশ্বাস জুগিয়েছে।
  • ভয়ে ছিলেন মাহমুদ, এখন জয় না পেলেও চান অন্তত ড্র
    টিম ডিরেক্টর খালেদ মাহমুদের একটা বড় দায়িত্ব, দলকে চাঙা করা। সেই চেষ্টা তিনি করে যাচ্ছেন। তবে নিজেই ভেতরে ভেতরে ছিলেন চুপসে। এমন অনভিজ্ঞ ব্যাটিং লাইন আপ নিয়ে নিউ জিল্যান্ডে না জানি কী হয়! কিন্তু দল যেভাবে খেলছে, তাতে উচ্ছ্বসিত তিনি। এখন তার চাওয়া, টেস্টের বাকি দুই দিনেও ধারাবাহিকতা ধরে রেখে অন্তত ড্র আদায় করা।
  • যে কৌশলে মাহমুদুলের অনন‍্য কীর্তি
    দলের শক্ত ভিত গড়ে দিতে মাহমুদুল হাসান ছিলেন অগ্রগামী। যেন ধৈর্য‍্যের প্রতিমূর্তি। খেলতে থাকলে রান আসবেই-এই ভাবনায় নিল ওয়‍্যাগনার, ট্রেন্ট বোল্টদের আক্রমণ সামলে ক্রিজে কাটিয়ে দেন প্রায় ৫ ঘণ্টা। ক্যারিয়ারে দ্বিতীয় টেস্ট খেলতে নেমে দুরূহ কন্ডিশনে তার এমন ব্যাটিং অনেকের কাছেই বিস্ময়ের। তৃতীয় দিনের খেলা শেষে মাহমুদুল জানালেন, কীভাবে খেলেছেন এই ইনিংস।
  • লিড পাওয়ার দিনে তিন সেঞ্চুরি হাতছাড়ার হতাশা
    প্রত্যাশাকে ছাড়িয়ে যাওয়ার প্রাপ্তি আছে। আশা জাগিয়ে পূরণ করতে না পারার আক্ষেপও আছে। দিনজুড়ে এমনই হর্ষ-বিষাদের নানা রঙের খেলা। তবে দিন শেষের সমীকরণে ড্রেসিং রুমে হয়তো বসছে হাসিমুখের মেলা। নিউ জিল্যান্ডে আরও একটি দিন কাটাল বাংলাদেশ তৃপ্তির হিল্লোল জাগানিয়া সুন্দর।
  • লিটনের নান্দনিকতা ও মুমিনুলের দৃঢ়তায় দারুণ এক সেশন
    কাইলে জেমিসনের বলে লিটন দাসের নান্দনিক ড্রাইভে তিন রান। সেশনের প্রথম বলেই যে ইঙ্গিত, পরের সময়টায় সেটি রূপ পেল পূর্ণতার। প্রথম সেশনের সব অস্বস্তি আর জড়তা পরের সেশনে গেল মিলিয়ে। লিটনের চোখ জুড়ানো সব শটের মহড়া আর মুমিনুল হকের চোয়ালবদ্ধ দৃঢ়তায় নিউ জিল্যান্ডকে হতাশ করে বাংলাদেশ কাটাল দুর্দান্ত এক সেশন।
  • এনামুল ও পিনাকের দুর্দান্ত শুরুর পর মুরাদের ছোবল
    কুশায়ায় আচ্ছন্ন চারপাশ, উইকেটে ঘাসের ছোঁয়া। ব্যাটসম্যানদের জন্য কঠিন কন্ডিশন। চ্যালেঞ্জ সামলে বিসিবি দক্ষিণাঞ্চলকে অসাধারণ শুরু এনে দিলেন এনামুল হক ও পিনাক ঘোষ। হাসান মুরাদের স্পিনে পরে ঘুরে দাঁড়ায় ওয়ালটন মধ্যাঞ্চল। জাকির হাসান ও ফরহাদ রেজার অবিচ্ছিন্ন জুটিতে অবশ্য ভালোভাবেই প্রথম দিন শেষ করেছে দক্ষিণাঞ্চল।
  • সাকিব-তামিমদের চেয়ে ‘ভিন্ন ব্র্যান্ডের ক্রিকেট’ মাহমুদুল-শান্তদের
    এমনিতেই বাংলাদেশের ব্যাটিংয়ে বড় আস্থার জায়গা তামিম ইকবাল ও সাকিব আল হাসান। নিউ জিল্যান্ডে টেস্টে তাদের রেকর্ড আরও বেশি ভালো। সেই দুজনই এবারের সফরে নেই। তবে তরুণ যে ব্যাটসম্যানরা খেললেন, তাদের দেখে মুগ্ধ নিল ওয়্যাগনার। নিউ জিল্যান্ডের এই পেসার বললেন, সাবধানী ক্রিকেট খেলে বাংলাদেশের এই তরুণরা তেমন কোনো সুযোগই দেননি প্রতিপক্ষকে।
  • শতরানের জুটির গল্প শোনালেন শান্ত
    বাংলাদেশের ব‍্যাটসম‍্যানদের কতই না ভুগিয়েছে নিল ওয়‍্যাগনারের খুনে বাউন্সার। নতুন বলে কতবার দুঃস্বপ্ন হয়ে এসেছে ট্রেন্ট বোল্ট কিংবা টিম সাউদির বিষ মাখানো সুইং। তাদের সঙ্গে এবার ছিলেন কাইল জেমিসন। তবে সবুজের ছোঁয়া থাকা উইকেটে এবার আর ভেঙে পড়েনি বাংলাদেশের ব‍্যাটিং। দলকে দারুণ একটি দিন উপহার দেওয়ার বড় কৃতিত্ব দ্বিতীয় উইকেটে শতরানের জুটির। দিনের খেলা শেষে মাহমুদুল হাসান জয়ের সঙ্গে সেই জুটির গল্প শোনালেন নাজমুল হোসেন শান্ত।
  • মিরাজের ‘দশে মিলে’ কাজের তৃপ্তি
    নিউ জিল‍্যান্ডকে সাড়ে তিনশর আগে থামাতে দারুণ অবদান রেখেছেন মেহেদী হাসান মিরাজ। তবে নিজের ভূমিকাকে অতো বড় করে দেখছেন না এই অফ স্পিনিং অলরাউন্ডার। শরিফুল ইসলামসহ সব সতীর্থ বোলার এবং শত রানের জুটি গড়া মাহমুদুল হাসান ও নাজমুল হোসেন শান্তর অবদানকে দিচ্ছেন কৃতিত্ব। মিরাজের মতে, সবার মিলিত অবদানেই প্রথম টেস্টে ভালো অবস্থানে এসেছে বাংলাদেশ।
  • নিউ জিল্যান্ডে বাংলাদেশের সোনালি দিন
    প্রথম দিনের শেষ সেশনে ছিল ম্যাচে ফেরার ইঙ্গিত, দ্বিতীয় দিনে ফেরার সেই অভিযান পেল পূর্ণতা। মাউন্ট মঙ্গানুই টেস্টে ব্যাটে-বলে ঝলমলে একটি দিন কাটাল বাংলাদেশ। সকালের সেশনে বোলারদের দারুণ সাফল্য আর পরে মাহমুদুল হাসান জয় ও নাজমুল হোসেন শান্তর ব্যাটিং দৃঢ়তায় দুই দিন শেষে শক্ত অবস্থানে দল।
  • মাহমুদুল-শান্তর দৃঢ়তায় বাংলাদেশের লড়াই
    বলা হয়, টেস্টে ব‍্যাটিংয়ের জন‍্য সেরা সময় দ্বিতীয় দিনের দ্বিতীয় সেশন। এই সময়েও বাংলাদেশের ব‍্যাটসম‍্যানদের বেশ পরীক্ষা নিলেন নিল ওয়‍্যাগনার। ভাঙলেন সফরকারীদের উদ্বোধনী জুটি। তবে বাকি সময়টা নিরাপদেই কাটিয়ে দিলেন মাহমুদুল হাসান ও নাজমুল হোসেন শান্ত। এতে অবশ‍্য ভাগ‍্যেরও একটু ছোঁয়া ছিল।
  • সৌম্যর ক্যাচের রেকর্ড ছুঁলেন সাদমান
    প্রথম দিনের পাঁচ উইকেটে সাদমান ইসলামের ক্যাচ ছিল একটি। মাউন্ট মঙ্গানুই টেস্টের দ্বিতীয় সকালে নিউ জিল্যান্ডের আরও তিন ব্যাটসম্যানকে মুঠোবন্দি করলেন সাদমান ইসলাম। তাতে বাংলাদেশের এই ওপেনারের নাম লেখা হয়ে গেল রেকর্ড বইয়ে।
  • প্রথম সেশনেই নিউ জিল‍্যান্ডকে গুটিয়ে দিল বাংলাদেশ
    আগের দিন ভালো বোলিং করলেও পাননি কোনো উইকেট। দ্বিতীয় দিন দারুণ বোলিংয়ে মেহেদী হাসান মিরাজ ধরলেন তিন শিকার। অফ স্পিনারের হাত ধরে প্রথম সেশনেই নিউ জিল‍্যান্ডকে থামিয়ে দিল বাংলাদেশ।
  • দুই দলকেই সমতায় দেখছেন গিবসন
    খেলা শেষ হওয়ার আধ ঘণ্টা আগে দাপুটে অবস্থায় ছিল নিউ জিল্যান্ড। শক্ত ভিত গড়েই দিনের খেলা শেষ করার পথে ছিল তারা। কিন্তু শেষ সময়ে দুটি উইকেট নিয়ে বাংলাদেশ ম্যাচে ফেরে দারুণভাবে। দিন শেষে স্কোরবোর্ডের যা চিত্র, তাতে দুই দলকেই পাশাপাশি রাখছেন বাংলাদেশের বোলিং কোচ ওটিস গিবসন।
  • শরিফুলের খুশি মনে আছে 'কিন্তুও'
    বলা হয়, ‘নিউ জিল্যান্ডের সবুজ ঘাসের আড়ালে রান হাসে।’ শুরুর কঠিন সময় পার করে দিতে পারলে হাতছানি দেয় বড় রান। সেখানেই ডেভন কনওয়ের সেঞ্চুরির পরও স্বাগতিকদের খুব বেশি রান করতে দেয়নি বাংলাদেশ। প্রতিপক্ষকে বেঁধে রাখতে চমৎকার বোলিংয়ে বড় অবদান রাখেন শরিফুল ইসলাম। নিজেদের প্রথম দিনের পারফরম্যান্সে খুশি বাঁহাতি এই পেসার। একটু আফসোসও আছে, দিনটা হতে পারত যে আরও ভালো।
  • নিউ জিল্যান্ডে বোলিং করে যেমন লেগেছে শরিফুলের
    নিউ জিল্যান্ডে স্বাভাবিকের তুলনায় এবার ততটা সবুজ নয় উইকেট। তবে সবুজের ছোঁয়া ভালোভাবেই আছে। দুই দলেরই চাওয়া ছিল আগে বোলিং। ইচ্ছে পূরণ হয় বাংলাদেশের। নিজেকে মেলে ধরেন শরিফুল ইসলাম। তার শরীরী ভাষায় যা ফুটে উঠছিল দিনের খেলা শেষে বললেনও তাই, দারুণ উপভোগ্য ছিল প্রথম ঘণ্টায় বোলিং।
  • দুই সেশনে বাংলাদেশের প্রাপ্তি দুই উইকেট
    ‘প্রথম ঘণ্টা বোলারদের দাও, বাকি দিনটা নিজেদের করে নাও’, টেস্ট ক্রিকেটে বহু পুরনো এক কথা এটি। নিউ জিল্যান্ড হাঁটল যেন সেই পথেই। টম ল্যাথামকে শুরুতে হারানোর পর উইল ইয়াং ও ডেভন কনওয়ে মাথা গুঁজে পড়ে রইলেন প্রথম ঘণ্টা। দিনটা নিজেদের করে নেওয়ার আয়োজনও হয়ে গেল তাতে। ইয়াং পরে আউট হলেও সেই কনওয়ে এখন সেঞ্চুরির দুয়ারে।
  • বোল্ট-সাউদিদের নিয়ে ‘দুর্ভাবনা’, তাসকিন-ইবাদতদের নিয়ে রোমাঞ্চ
    নিউ জিল‍্যান্ড দল ঘোষণার মধ‍্যেই ছিল বিপদের বার্তা। আগের টেস্টে এক ইনিংসে ১০ উইকেট নেওয়া বাঁহাতি স্পিনার এজাজ প‍্যাটেল যেখানে দলে নেই, সেখানে আছেন পাঁচ পেসার। তাদের চার জনই হয়তো খেলবেন প্রথম টেস্টে। বাড়তি বাউন্স ও সুইং আছে এমন উইকেটে কিউইদের পেস চতুষ্টয় নিয়ে দুর্ভাবনা থাকাই স্বাভাবিক। তবে এই চ‍্যালেঞ্জ জিততে আত্মবিশ্বাসী বাংলাদেশ অধিনায়ক মুমিনুল হক।