রানের খোঁজে ‘পাওয়ার হিটার’ চাই বাংলাদেশের

স্কিল হিটার দিয়ে শেষের সমীকরণ মেলাতে পারছে না বাংলাদেশ। টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে দলের হতশ্রী পারফরম্যান্সে মোটামুটি পরিষ্কার হয়ে গেছে, শেষে ঝড় তোলার মতো একজনকে খুব প্রয়োজন। পরিপূর্ণ টি-টোয়েন্টি দল হয়ে উঠতে তাই সামনের দিনে ‘পাওয়ার হিটার’ খোঁজার কথা জানালেন বিশ্বকাপে দলের সঙ্গে থাকা নির্বাচক হাবিবুল বাশার।

ক্রীড়া প্রতিবেদকদুবাই থেকে বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 30 Oct 2021, 07:40 PM
Updated : 30 Oct 2021, 09:39 PM

এমন একজন ব্যাটসম্যানের অভাব বাংলাদেশ খুব করে অনুভব করে স্কটল্যান্ডের বিপক্ষে। প্রাথমিক পর্বের সেই ম্যাচে শেষ ৩০ বলে মাহমুদউল্লাহদের দরকার ছিল ৫৪ রান। শেষ পর্যন্ত তারা হারে ৬ রানে।

এরপর সুপার টুয়েলভে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে শেষ ৩০ বলে প্রয়োজন ছিল ৪৪ রান। একটা বড় রানের ওভার ম্যাচ শেষ করে দিতে পারত অনেক আগেই। কিন্তু শেষ বলে গড়ানো ম্যাচে বাংলাদেশ হেরে যায় ৩ রানে। 

এ তো গেল জিততে জিততে হেরে যাওয়া দুই ম্যাচের কথা। কোনো ম্যাচেই শুরুতে কাজে লাগানো যায়নি পাওয়ার প্লে, শেষে ওঠেনি ঝড়-আর এখানটায় বাংলাদেশের হতাশার চিত্র অনেক দিনের। বিসিবির পাঠানো শনিবারের ভিডিও বার্তায় সাবেক অধিনায়ক ও বিসিবি নির্বাচক হাবিবুল জানালেন, ভবিষ্যতের ভাবনায় ব্যাটিং সবচেয়ে বেশি গুরুত্ব পাচ্ছে তাদের কাছে।

“ব্যাটিংটা আসলেই আমাদের ভুগিয়েছে। শ্রীলঙ্কার সঙ্গে ভালো ব্যাটিং করেছিলাম, তাছাড়া বাকি ম্যাচগুলোতে আমরা ভালো ব্যাটিং করতে পারছি না। পারিনি আসলে। এই টুর্নামেন্টে ব্যাটিংয়ে যে প্রত্যাশা ছিল, আমরা তার কাছাকাছিও যেতে পারিনি।”

“বিশেষ করে পাওয়ার প্লেতে আমাদের ব্যাটিংয়ে অনেক উন্নতি করতে হবে, যদি আমরা টি-টোয়েন্টিতে ধারাবাহিকভাবে ভালো করতে চাই, বড় আসরে ভালো করতে চাই। তাই অবশ্যই ব্যাটিংয়ে আমাদের উন্নতি করতে হবে। আর নিচের দিকেও কিন্তু আমাদের পাওয়ার হিটার দরকার। অন্য দলগুলোতে এমন অনেকেই আছে, যারা ওভারে ১০ থেকে ১২ রান করে তুলতে পারে। এই জায়গায় আমাদের কিছু ঘাটতি আছে, এটা নিয়েও কাজ করতে হবে।”

বিশ্বকাপে এখনও দুটি ম্যাচ আছে বাংলাদেশের। খুব ক্ষীণ হলেও কাগজে কলমে বেঁচে আছে সেমি-ফাইনালের আশা। সেটা থাকুক আর না থাকুক, শেষটা অন্তত ভালো করে দেশে ফিরতে চায় বাংলাদেশ।

বিশ্বকাপ ফাইনালের পাঁচ দিন পরই আবার পাকিস্তানের বিপক্ষে টি-টোয়েন্টি সিরিজ খেলতে নামবে বাংলাদেশ। হাবিবুল বললেন, আপাতত তাদের সম্পূর্ণ মনোযোগ পরের দুই ম্যাচে। এরপর তারা ভাববেন পাকিস্তান সিরিজ নিয়ে। সেখান থেকে শুরু হবে নতুন পরিকল্পনা।

“আমরা এখনও বিশ্বকাপের মধ্যেই আছি। আমাদের এখনও মূল পর্বের দুটো ম্যাচ বাকি আছে। ভবিষ্যতে কী করতে হবে, না করতে হবে, অবশ্যই তা নিয়ে আমাদের কিছু চিন্তা-ভাবনা আছে। সেটা আমরা এই বিশ্বকাপ শেষ করার পরই করতে চাই।

“ভবিষ্যতের কথা ভেবে আমাদের কী করা উচিৎ, পাকিস্তান সিরিজের আগে আমরা যে সময়টা পাব, তখন এ বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেব…আমাদের তো সামনে অনেক খেলা আছে। বিশ্বকাপে আমরা একটা লক্ষ্য নিয়ে এসেছিলাম। সেটা পূরণ করতে পারিনি। সামনে অনেক খেলা আছে, সেখানে কীভাবে ভালো করা যায়, এই ভুলগুলি থেকে শিক্ষা নিয়ে কীভাবে আরও ভালো করা যায়, সেটাই আসলে মূলত আলাপ করব। সেটাই ভবিষ্যতের পরিকল্পনা।”

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক