উইকেট দেখে বাড়তি পেসার নিয়ে সিদ্ধান্ত নেবে বাংলাদেশ

ওমানে তিন ম্যাচে তিন পেসার নিয়ে খেলা বাংলাদেশ সুপার টুয়েলভ পর্বে এসে বদলে ফেলেছে কম্বিনেশন। শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে খেলেছে তিন স্পিনার ও দুই পেসার নিয়ে। ইংল্যান্ডের বিপক্ষে আবার বদল আসতে পারে বোলিং আক্রমণে। পেস বোলিং কোচ ওটিস গিবসন আভাস দিলেন, কন্ডিশন সহায়ক হলে তিন পেসারে ফিরে যেতে পারেন তারা।  

ক্রীড়া প্রতিবেদকদুবাই থেকে বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 26 Oct 2021, 04:31 PM
Updated : 26 Oct 2021, 08:07 PM

শারজাহ ক্রিকেট স্টেডিয়ামে গত রোববার তাসকিন আহমেদের জায়গায় নাসুম আহমেদকে একাদশে আনে বাংলাদেশ। বাঁহাতি স্পিনার প্রথম ওভারে উইকেট পেলেও শেষ পর্যন্ত খরুচে বোলিংই করেন। ২.৫ ওভারে ২৯ রান দিয়ে নেন ২ উইকেট।   

৫ উইকেটে জয়ী হওয়া ওই ম্যাচে শ্রীলঙ্কা খেলে অধিনায়ক দাসুন শানাকাসহ ৫ পেসার নিয়ে। বাংলাদেশ সেদিন কন্ডিশন অনুযায়ী সঠিক একাদশ নিয়ে খেলেছে কী না, এমন প্রশ্ন উঠে। সেদিন দলের প্রতিনিধি হয়ে সংবাদ সম্মেলনে আসা মুশফিকুর রহিম জানান, দলের শক্তি অনুযায়ীই খেলতে নেমেছিলেন তারা। 

ইংল্যান্ডের বিপক্ষে ম্যাচে বাংলাদেশ কোন পথে এগোবে, ম্যাচের আগের দিন সংবাদ সম্মেলনে কিছুটা ধারণা দিলেন বোলিং কোচ।

“আগে আমরা কন্ডিশন দেখব। তবে টুর্নামেন্টের শুরু থেকেই যেটা বলছি, আমাদের হাতে সবকিছুই আছে। আমাদের মুস্তাফিজের স্কিল ও কাটার আছে। ডেথ বোলিংয়ের জন্য সাইফউদ্দিন আছে। তাসকিনের গতি আছে আমাদের এবং বাঁহাতি পেসে বৈচিত্র্যের জন্য শরিফুল আছে আমাদের স্কোয়াডে। অধিনায়ক, কোচ ও নির্বাচক প্যানেলের প্রধান এই সব বিকল্প দেখে ম্যাচের জন্য সম্ভাব্য সেরাটা বেছে নিবেন।”  

কাটারের জন্য মুস্তাফিজ আছে, কোচ বললেন বটে। কিন্তু টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের উইকেটে সেভাবে কার্যকর হচ্ছে না বাঁহাতি এই পেসারের কাটার। প্রথম দুই ম্যাচে ৬ উইকেট নেওয়ার পর টানা দুটিতে উইকেটশূন্য। দলে যে প্রভাব রাখার কথাতা তিনি রাখতে পারছেন কমই। গিবসন যদিও বললেন, মুস্তাফিজকে নিয়ে এখনই ভাবনার কিছু দেখছেন না তারা।  

“মুস্তাফিজ আমাদের জন্য গুরুত্বপূর্ণ বোলার এবং যে কোনো কন্ডিশনে সে ভালো। সম্প্রতি আইপিএলেও আমরা দেখেছি, দলে কতটা মাত্রা সে যোগ করে। অবশ্যই ওর কাটারগুলো বাংলাদেশে বেশি কার্যকর। তবে ওর যেটা আমার সবচেয়ে ভালো লাগে, যে কোনো কন্ডিশনে ওর দ্রুত মানিয়ে নেওয়ার সক্ষমতা। দ্রুত কন্ডিশন বুঝে সেভাবেই বল করে।”

“এখনও সে আমাদের জন্য গুরুত্বপূর্ণ, বিশেষ করে শেষের দিকে। পাশাপাশি সে বল ভেতরে ঢোকাতেও পারে (ডানহাতি ব্যাটসম্যানের জন্য)। যেটি নিয়ে আমরা কঠোর পরিশ্রম করেছি। সে নতুন আর পুরাতন, দুই বলেই আমাদের জন্য অস্ত্র।”

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক