‘তারা বাংলাদেশের হয়ে খেলে না, খেলি আমরাই’

বিশ্বকাপের পথচলায় সময় গড়িয়েছে বেশ। ওমান থেকে বাংলাদেশ দল এসেছে সংযুক্ত আরব আমিরাতে। প্রথম রাউন্ড শেষে সুপার টুয়েলভের লড়াই শুরু হয়েছে। কিন্তু বাংলাদেশের ক্রিকেটারদের ক্ষোভের আগুন কমেনি। মাহমুদউল্লাহর পর ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া জানালেন মুশফিকুর রহিম। সমালোচনাকারীদের তিনি বললেন আয়নায় নিজেদের মুখ দেখতে।

ক্রীড়া প্রতিবেদকবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 24 Oct 2021, 05:04 PM
Updated : 24 Oct 2021, 09:47 PM

মাসকাটে গত বৃহস্পতিবার পাপুয়া নিউ গিনিকে হারিয়ে সুপার টুয়েলভ নিশ্চিত করার পর সংবাদ সম্মেলনে বিস্ফোরক প্রতিক্রিয়া জানান মাহমুদউল্লাহ। স্কটল্যান্ডের কাছে প্রথম ম্যাচে হারার পর দলকে ছোট করা হয়েছে বলে অভিযোগ করেন তিনি।

স্কটিশদের কাছে হারার পর বাংলাদেশ দলকে নিয়ে সমালোচনার ঝড় বয়ে যায়। মাসকাটে বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান হারের জন্য কাঠগড়ায় তোলেন তিন সিনিয়র ক্রিকেটার মাহমুদউল্লাহ, সাকিব আল হাসান ও মুশফিককে।

সমালোচনা নিয়ে আপত্তি না থাকলেও দলকে খাটো করায় ক্রিকেটাররা আহত হয়েছে জানিয়ে বাংলাদেশ অধিনায়ক আঙুল তোলেন সাংবাদমাধ্যম, সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম, ক্রিকেট অনুসারীদের, এমনকি বোর্ড সভাপতির দিকেও। মাহমুদউল্লাহর সেই প্রতিক্রিয়ার পর সংবাদমাধ্যমে আবার পাল্টা প্রতিক্রিয়া জানান বিসিবি প্রধান।

মাঠের বাইরের এসব নিয়ে রোববার প্রশ্ন করা হয় মুশফিকের সংবাদ সম্মেলনে। শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে তিনি দারুণ এক ইনিংস খেললেও হেরে যায় দল। তবে মুশফিকের কণ্ঠে ক্ষোভের তেজ ঠিকই ফুটে ওঠে।

“এটা তো সবসময় হতেই থাকবে (মাঠের বাইরে কথা)। ক্রিকেটার হিসেবে ভালো করলে সবাই তালি দেবে, খারাপ করলে গালি দেবে। এটাই স্বাভাবিক, তাই না? আর এটা আমার প্রথম নয়, গত ১৬ বছর ধরে খেলছি, এটা আমার কাছে নতুন কিছু নয়। আমার কাছে খুবই নরম্যাল লাগে।”

“যারা এরকম কথা বলেন, তাদের নিজেদের মুখটা আয়নায় দেখা উচিত। তারা বাংলাদেশের হয়ে খেলেন না, খেলি আমরা ক্রিকেটাররাই। শুধু আমি নই, টেস্ট স্ট্যাটাস বা তার আগে থেকেও যারা খেলেছেন, সবাই ইনপুট দেওয়ার চেষ্টা করে। ভালো করার চেষ্টা করে। কখনও হয়, কোনোদিন হয় না। আমরা মনে করি, আমরা দেশের প্রতিনিধিত্ব করি, এই গর্বটা নিয়ে মাঠে যাই এবং ভালো করার চেষ্টা করি।”

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক