শ্রীলঙ্কার ভাবনায় কিংবা দুর্ভাবনায় সাকিব-মুস্তাফিজ

নিদাহাস ট্রফির পর টি-টোয়েন্টিতে দুই দলের দেখা হয়নি আর। সাড়ে তিন বছর আগের আলোচিত সেই ম্যাচের পর এই সংস্করণে বেশ বদল এসেছে দুই দলে। তবে বাংলাদেশের মূল শক্তির জায়গা প্রায় একই। দাসুন শানাকা তা জানেন ভালো করেই। অভিজ্ঞতা আছে তার বিপিএলে খেলারও। প্রতিপক্ষ সম্পর্কে তাই স্পষ্ট ধারণাই আছে দাসুন শানাকার। শ্রীলঙ্কা অধিনায়ককে ভাবাচ্ছে বাংলাদেশের বোলিং। বিশেষ করে সাকিব আল হাসান ও মুস্তাফিজুর রহমান। 

ক্রীড়া প্রতিবেদকদুবাই থেকে বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 23 Oct 2021, 12:04 PM
Updated : 23 Oct 2021, 08:28 PM

পুরনো এই লড়াইয়ের নতুন পর্ব রোববার। টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের সুপার টুয়েলভের দুই নম্বর গ্রুপে মুখোমুখি হবে শ্রীলঙ্কা ও বাংলাদেশ।

নিদাহাস ট্রফিতে দুই দলের লড়াই জমেছিল তুমুল। এবারও ম্যাচের আগের দিন সংবাদ সম্মেলনে শানাকা বললেন, জমজমাট লড়াই হবে বলেই আশা তার।

“আমরা কাল খুব ভালো ম্যাচ আশা করছি। কোয়ালিফায়ার থেকে তারা ভালোভাবেই উঠেছে। টি-টোয়েন্টিতে নিজেদের দিনে আমরা কী করতে পারি, সবাই জানে। আমার মনে হয়, জমজমাট লড়াই হতে যাচ্ছে।”

বিশ্বকাপের আগেই অবশ্য এক দফায় দেখা হয়ে গেছে দুই দলের। সেই ম্যাচও উত্তেজনা ছড়ায় দারুণ। শেষ পর্যন্ত সেখানে আভিশকা ফার্নান্দো ও চামিকা করুনারত্নের ব্যাটে খাদের কিনারা থেকে ঘুরে দাঁড়িয়ে জেতে শ্রীলঙ্কা।

তবে সেই ম্যাচে বাংলাদেশ পায়নি সাকিব, মুস্তাফিজ ও মাহমুদউল্লাহকে। এবার তারা আছেন। তাই লঙ্কান অধিনায়কের দুর্ভাবনাও বেশি।   

“পিচ নিয়ে বেশি ভাবছি না। আইপিএলে এই উইকেট ব্যবহার হওয়ায় একটু মন্থর আছে শারজাহতে। আমরা আমাদের শক্তির জায়গা দিয়ে খেলব। তারা ভালো দল। সাকিব, ফিজ, মাহমুদউল্লাহরা আছে।

“বাংলাদেশের ভালো কজন বোলার আছে। বিশেষ করে সাকিব ও ফিজ আছে। তাদের অনেক ভালো স্পিনার আছে।”

সাকিব টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে বেশ ছন্দে আছেন, ৩ ম্যাচে নিয়েছেন ৯ উইকেট। পাপুয়া নিউ গিনির বিপক্ষে শেষ ম্যাচে উইকেট পাননি মুস্তাফিজুর রহমান। অন্য দুই ম্যাচে পেয়েছেন ৬টি।

শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে সাকিব ও মুস্তাফিজ খেলেছেন সাতটি করে টি-টোয়েন্টি। বাঁহাতি স্পিনে সাকিব ১৪ গড়ে নিয়েছেন ১০ উইকেট। ওভার প্রতি দিয়েছেন ৬.৩৬ রান। বাঁহাতি পেসার মুস্তাফিজ ১০.১৮ গড়ে নিয়েছেন ১১ উইকেট, ওভার প্রতি দিয়েছেন ৮.৮৮ রান।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক