কোভিড: আরেকটি মৃত্যুহীন দিন পার

করোনাভাইরাসে কারও মৃত্যু হয়নি, এমন আরেকটি দিন পার করল বাংলাদেশ।

নিজস্ব প্রতিবেদকবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 9 Dec 2021, 10:28 AM
Updated : 9 Dec 2021, 11:11 AM

স্বাস্থ্য অধিদপ্তর বৃহস্পতিবার যে বুলেটিন দিয়েছে, তাতে আগের ২৪ ঘণ্টায় কোভিডে মৃতের সংখ্যা শূন্য দেখানো হয়েছে। ফলে দেশে এ ভাইরাসে মোট মৃতের সংখ্যা আগের দিনের মতোই ২৮ হাজার ১৬ জন রয়েছে।

গত এক দিনে দেশে আরও ২৬২ জনের মধ্যে সংক্রমণ ধরা পড়ায় এ পর্যন্ত শনাক্ত মোট রোগীর সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ১৫ লাখ ৭৮ হাজার ৫৫০ জন।

আক্রান্তদের মধ্যে গত ২৪ ঘণ্টায় আরও ২৮৭ জন সেরে উঠেছেন। তাদের নিয়ে মোট ১৫ লাখ ৪৩ হাজার ৪৯১ জন এ পর্যন্ত সুস্থ হয়ে উঠলেন।

এর আগে সর্বশেষ গত ২০ নভেম্বর করোনাভাইরাসে মৃত্যুহীন একটি দিন পেয়েছিল বাংলাদেশ। সেজন্য অপেক্ষা করতে হয়েছিল ২০ মাস। 

বাংলাদেশে ২০২০ সালের ৮ মার্চ করোনাভাইরাসের প্রথম রোগী ধরা পড়ার পর প্রথম মৃত্যুর খবর এসেছিল ১০ দিন পর ১৮ মার্চ।

মহামারী শুরুর ওই পর্যায়ে দৈনিক মৃত্যু ০, ১, ৩ এর মধ্যে ঘোরাফেরা করছিল। ১৫ দিন পর ৩ এপ্রিল কোনো মৃত্যুর খবর ছিল না। তারপর মৃত্যুর সংখ্যা দিনকে দিন বাড়তে থাকে।

চলতি বছর জুলাই-অগাস্টে পরিস্থিতি ভয়াবহ রূপ পায়। ৫ অগাস্ট ও ১০ অগাস্ট ২৬৪ জন করে মৃত্যুর খবর আসে, যা মহামারীর মধ্যে এক দিনের সর্বোচ্চ সংখ্যা।

করোনাভাইরাসের ডেল্টা ভ্যারিয়েন্টের সংক্রমণের ওই সময়টায় প্রতি পাঁচ দিনে মৃত্যুর তালিকায় ১ হাজার নতুন নাম যোগ হচ্ছিল। সেপ্টেম্বর থেকে সংক্রমণ কমতে শুরু করলে মৃত্যুর গ্রাফও নেমে আসে।

শীতের শুরুতে ইউরোপ-আমেরিকায় নতুন করে সংক্রমণ ও মৃত্যুর বাড়ছে, দক্ষিণ আফ্রিকায় শনাক্ত করোনাভাইরাসের নতুন ধরন ওমিক্রন দ্রুত ছড়িয়ে পড়ছে বিভিন্ন দেশে। তবে বাংলাদেশে পরিস্থিতি এখনও নিয়ন্ত্রণে।

জনস হপকিন্স ইউনিভার্সিটির তথ্য অনুযায়ী, বাংলাদেশে গত ২৮ দিনে ১১০ জনের মৃত্যু ঘটেছে, রোগী ধরা পড়েছে ৬ হাজার ৭৪১ জন।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের তথ্য অনুযায়ী, বাংলাদেশে এখন সক্রিয় রোগীর সংখ্যা ৭ হাজার ৪৩ জন।

অর্থাৎ, জানা হিসেবে এই সংখ্যক মানুষ এখন করোনাভাইরাস সংক্রমিত অবস্থায় রয়েছে। গত জুলাই মাসে এই সংখ্যা দেড় লাখের উপরে ছিল।

গত একদিনে শনাক্ত রোগীদের মধ্যে ২১৩ জনই ঢাকা বিভাগের, যা দিনের মোট শনাক্তের ৮০ শতাংশের বেশি। গত একদিনে সারাদেশের ৩৭টি জেলায় কেউ করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়নি।

গত বছরের ৮ মার্চ বাংলাদেশে করোনাভাইরাসের প্রথম সংক্রমণ ধরা পড়ার পর এ বছর ৩১ অগাস্ট তা ১৫ লাখ পেরিয়ে যায়। এর মধ্যে ডেল্টা ভ্যারিয়েন্টের ব্যাপক বিস্তারের মধ্যে ২৮ জুলাই দেশে রেকর্ড ১৬ হাজার ২৩০ জন নতুন রোগী শনাক্ত হয়।

গত বছরের ১৮ মার্চ দেশে প্রথম মৃত্যুর পর এ বছর ৫ ডিসেম্বর কোভিডে মোট মৃত্যু ২৮ হাজার ছাড়িয়ে যায়। তার আগে ৫ অগাস্ট ও ১০ অগাস্ট ২৬৪ জন করে মৃত্যুর খবর আসে, যা মহামারীর মধ্যে এক দিনের সর্বোচ্চ সংখ্যা।

বিশ্বে করোনাভাইরাসে মৃতের সংখ্যা ইতোমধ্যে ৫২ লাখ ৮২ হাজার ছাড়িয়েছে। আর শনাক্ত হয়েছে ২৬ কোটি ৭৯ লাখের বেশি রোগী।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তর জানিয়েছে, গত এক দিনে সারা দেশে মোট ২১ হাজার ৪৯৬টি নমুনা পরীক্ষা হয়েছে। এ পর্যন্ত পরীক্ষা হয়েছে ১ কোটি ১০ লাখ ৬২ হাজার ৯০২টি নমুনা।

গত ২৪ ঘণ্টায় নমুনা পরীক্ষা অনুযায়ী শনাক্তের হার ১ দশমিক ২২ শতাংশ, যা আগেরদিন ১ দশমিক ৩৫ শতাংশ ছিল। এ পর্যন্ত নমুনা পরীক্ষা অনুযায়ী শনাক্তের হার ১৪ দশমিক ২৭ শতাংশ। মৃত্যুর হার ১ দশমিক ৭৭ শতাংশ।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক