ইউল্যাবে অষ্টম এসএসইএএসআর  আন্তর্জাতিক সম্মেলন

ইউনিভার্সিটি অব লিবারেল আর্টস বাংলাদেশ-ইউল্যাব আয়োজিত অষ্টম এসএসইএএসআর  আন্তর্জাতিক সম্মেলন ২০১৯ শেষ হয়েছে।

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদকবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 16 June 2019, 03:18 PM
Updated : 16 June 2019, 03:18 PM

এবারের সম্মেলনের প্রতিপাদ্য বিষয় ছিল ‘নদী ও ধর্মঃ দক্ষিণও দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার সাংস্কৃতিক সম্পর্ক।’

শনিবার রাজধানীর ধানমণ্ডিতে ইউল্যাব মিলনায়তনে এই সম্মেলনেরসমাপনী অনুষ্ঠান হয়। এতে প্রধান অতিথি ছিলেন পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান। বিশেষঅতিথি ছিলেন ব্রিটিশ দূতাবাসের ভারপ্রাপ্ত হাইকমিশনার ক্যানবার হোসেন-বার।

এম এ মান্নান বলেন, “নদী ও মানুষকে আলাদা করা যাবে না, তাই সম্মেলনের থিম ‘নদী ও ধর্ম’খুবই  যথাযথ এটা স্বীকার করা করতে হবে।”

বাংলাদেশে গবেষণার প্রয়োজনের উপর জোর দিয়ে আশ্বস্ত করে তিনি বলেন, “আমি ব্যক্তিগতভাবে শিক্ষা ক্ষেত্রে আরও তহবিল নিশ্চিত করার দিকে নজরদেবো।”

ক্যানবার হোসেন-বার,গ্রেট ব্রিটেনের সাথে বাংলাদেশের শিক্ষা সম্পর্ক নিয়ে কথা বলেন এবং আশা প্রকাশ করেন যে, তার দেশ ভবিষ্যতে বাংলাদেশের শিক্ষার্থীদের জন্য আরও সহজতর করবে।

অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য দেন ইউল্যাবের উপউপাচার্য অধ্যাপকসামসাদ মর্তূজা।

সম্মেলনে বিশ্বের৩০ দেশের বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের  অধ্যাপকও গবেষকরা  ১৫টি শিরোনামের অধীনে ৩৭টি অধিবেশনেমাধ্যমে মোট ১৭০টি গবেষণা প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন। আয়োজকরা আশা প্রকাশ করেন এই সম্মেলনেরমাধ্যমে শতাধিক দেশি ও বিদেশি বিশেষজ্ঞের উপস্থিতিতে দক্ষিণ ও দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ায়ধর্ম ও সংস্কৃতি বিষয়ক গবেষণায় বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের মধ্যে একটি টেকসই ও কার্যকরযোগাযোগ তৈরি হয়েছে যা বাংলাদেশের জন্য আন্তর্জাতিক একাডেমিক পরিমন্ডলে নিজেদের তুলেধরার জন্য একটি সুবর্ণ সুযোগ।

এই সম্মেলনকেসাফল্যমন্ডিত করার জন্য লোকশিল্প মেলা, বই মেলা এবং ইউল্যাবের ছাত্রদের ‘বাংলাদেশেরনদী’ শিরনামে আলোকচিত্র প্রদর্শনী এবং ‘গ্রুপ টেম্পল অব পুঠিয়া’ শিরনামে ট্রাডিশনালফটো গ্যালারীর আলোকচিত্র প্রদর্শনীর আয়োজন করা হয়।

ধন্যবাদ জ্ঞাপনেরমধ্য দিয়ে ইউল্যাবের উপাচার্য অধ্যাপক এইচ এম জহিরুল হক সম্মেলনের সমাপ্তি ঘোষণা করেন।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক