স্ট্যান্ডার্ড চার্টার্ডের মাধ্যমে হল দেশের প্রথম পূর্ণাঙ্গ ডিজিটাল এলসি

দেশে প্রথমবারের মত কোনো ধরনের কাগজ ব্যবহার না করে সম্পূর্ণ ডিজিটাল প্রক্রিয়ায় আন্তর্জাতিক ঋণপত্রের লেনদেন সম্পন্ন করার কথা জানিয়েছে স্ট্যান্ডার্ড চার্টার্ড বাংলাদেশ।

নিজস্ব প্রতিবেদকবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 5 July 2022, 03:30 PM
Updated : 5 July 2022, 03:30 PM

মঙ্গলবার এই বহুজাতিক ব্যাংকের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, তাদের গ্রাহক হাইডেলবার্গ সিমেন্ট বাংলাদেশ লিমিটেডের পণ্য আমদানি প্রক্রিয়ার অংশ হিসেবে সম্প্রতি এই এলসি সম্পাদন করা হয়।

দেশের আমদানি নীতি আদেশের সাম্প্রতিক সংশোধনীর কারণে এ লেনদেন সম্ভব হয়েছে।

চলতি বছরের ২৪ এপ্রিল বাণিজ্য মন্ত্রণালয় প্রকাশিত নতুন আদেশ আনুযায়ী, গ্রাহকরা ব্যাংকের অনলাইন পোর্টাল ব্যবহার করে এলসির জন্য আবেদন করতে পারবেন। এক্ষেত্রে আবেদনপত্রের কোনো ফিজিক্যাল কপি জমা দেওয়ার প্রয়োজন নেই।

স্ট্যান্ডার্ড চার্টার্ড বাংলাদেশের সিইও নাসের এজাজ বিজয় বলেন, “অর্থনৈতিক উন্নয়ন ত্বরান্বিত করতে ও উৎপাদনশীলতা আরও উন্নত করার জন্য বাণিজ্য ব্যবস্থা আধুনিকীকরণ অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। আমদানি নীতি আদেশের এই যুগোপযোগী সংশোধনীর জন্য বাণিজ্য মন্ত্রণালয়, আমদানি-রপ্তানি প্রধান নিয়ন্ত্রক, বাংলাদেশ ব্যাংকসহ সংশ্লিষ্ট সকলকে আন্তরিক ধন্যবাদ।”

হাইডেলবার্গ সিমেন্ট বাংলাদেশ লিমিটেডের সিএফও জসিম উদ্দিন চৌধুরী বলেন, “আমরা স্ট্যান্ডার্ড চার্টার্ডের মাধ্যমে জানতে পারি যে, আমদানি নীতি আদেশ সংশোধিত হয়েছে এবং এখন থেকে ব্যাংকের গ্রাহকরা অনলাইনের মাধ্যমে এলসি ইস্যু করতে পারবে। এটি সত্যিই আনন্দের সংবাদ, কারণ এখন ব্যাংকে এলসির জন্য আবেদন করা আরও সহজ হবে এবং স্বাক্ষরকারীদের সশরীরে উপস্থিত থাকারও প্রয়োজন হবে না।”

স্ট্যান্ডার্ড চার্টার্ড এশিয়া’র ডিজিটাল চ্যানেলস ও ডেটা অ্যানালাইটিকস-এর কো-হেড এবং ম্যানেজিং ডিরেক্টর স্ট্যানলি সিয়া বলেন, “আমরা দীর্ঘদিন যাবত এই আমদানি নীতি আদেশের সংশোধনীর অপেক্ষায় ছিলাম। আমার বিশ্বাস, এই পরিবর্তন বাংলাদেশের বাণিজ্যকে বিশ্বব্যাপী আরও প্রতিযোগিতামূলক করে তুলতে ইতিবাচক ও বৃহৎ একটি পদক্ষেপ।”

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক