সব জেলায় দুধ সংরক্ষণাগার তৈরির সম্ভাব্যতা যাচাইয়ের সিদ্ধান্ত

দেশে উৎপাদিত দুধ সংরক্ষণে জেলায় জেলায় সংরক্ষণাগার তৈরির সম্ভাব্যতা যাচাই করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার।

নিজস্ব প্রতিবেদকবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 3 July 2022, 11:01 AM
Updated : 3 July 2022, 11:01 AM

রোববার সচিবালয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে মন্ত্রিসভার বৈঠকে এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয় বলে মন্ত্রিপরিষদ সচিব খন্দকার আনোয়ারুল ইসলাম জানিয়েছেন।

বৈঠকের পরে ব্রিফিংয়ে তিনি বলেন, “বাংলাদেশ ডেইরি উন্নয়ন বোর্ড আইন-২০২২ এর নীতিগত অনুমোদনের জন্য নিয়ে এসেছে মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রণালয়। এটার উদ্দেশ্য হল আমাদের দেশে যে পরিমাণ দুধ উৎপাদন হয় গরু বা ছাগলের, সেগুলো মনিটরিং করা হচ্ছে না, কোয়ালিটি এনশিওর করা হচ্ছে না বা টেকনিক্যাল সাপোর্ট আমরা দিতে পারছি না। 

“আমরা যদি কম্প্রিহেনসিভভাবে মানুষকে টেকনোলজি দিতে পারি, আরও উন্নত গাভী বা খাদ্যের ব্যবস্থা যদি করতে পারি এবং এগুলোকে প্রসেস করতে পারি। একই সাথে দুধগুলো যদি স্টোর করার যেভাবে খাদ্যদ্রব্য কোল্ডস্টোরে আমরা রাখি, এভাবেই যদি প্রতিটি জেলায় স্টোরেজ ফ্যাসিলিটি করা যায়; তাহলে আমাদের উৎপাদনকারীদের সুবিধা হবে। এতে ব্যপক পরিবর্তন আসবে প্রোটিন গ্রহণের ক্ষেত্রে।”

মিল্কভিটাও প্রায় একই কাজ করছে জানিয়ে খন্দকার আনোয়ারুল বলেন, “তবে মিল্কভিটারটা কোঅপারেটিভভাবে হচ্ছে। এটা কীভাবে হবে, যারা ইনডিভিজুয়ালি দুধ উৎপাদন করে, তাদের উপর কঠোর কোনো ইমপোজিশন আসে কি না সেজন্য আইনটায় সম্মতি না দিয়ে বলা হয়েছে, দু মাস সময় দেওয়া হয়েছে আরডি, মিল্কভিটা, বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের সাথে বসে বিশেষ করে নিরাপদ খাদ্য কর্তৃপক্ষ, ক্যাবের সাথে বসে যাতে কোনোভাবেই ডুপ্লিকেশন না হয়, বা কোনো ইন্টারাপশন না হয়, এজন্য আইনটা আবার নিয়ে আসবেন। 

“এটা অবজারভেশন দিয়ে ফেরত দেওয়া হয়েছে।”

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক