বিমানের ঢাকা-টরন্টো ফ্লাইট ২৭ জুলাই থেকে, টিকেট বিক্রি শুরু

আরও একবার তারিখ পিছিয়ে আগামী ২৭ জুলাই ঢাকা থেকে টরন্টোর পথে উড়তে যাচ্ছে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের ফ্লাইট; এই রুটের টিকেটও বিক্রি শুরু হয়েছে।

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদকবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 27 June 2022, 08:53 AM
Updated : 27 June 2022, 08:53 AM

রোববার রাতে এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে ঢাকা থেকে কানাডা যাওয়ার ফ্লাইটের সময়সূচি ও টিকেটের দাম জানায় বিমান।

সেখানে বলা হয়, আগামী ২৭ জুলাই ঢাকা থেকে টরন্টোর উদ্দেশে প্রথম ফ্লাইট ছেড়ে যাবে। যাত্রীরা বাংলাদেশ বিমান অনুমোদিত যে  কোনো ট্র্যাভেল এজেন্সি, সেলস সেন্টার  এবং বিমানের বাণিজ্যিক ওয়েবসাইট ও কলসেন্টার (০১৯৯০৯৯৭৯৯৭) থেকে টিকেট কিনতে পারবেন।

তবে কানাডা থেকে ঢাকা রুটের ফ্লাইটের টিকেট এখনও ছাড়া হয়নি, বিষয়টি এখনও ‘অ্যাকটিভেশন’ পর্যায়ে আছে বলে জানানো হয় বিজ্ঞপ্তিতে।

বিমান বলছে, সপ্তাহে তাদের দুটি ফ্লাইট ঢাকা-টরন্টো রুটে যাতায়াত করবে। প্রতি বুধ ও রোবাবর ঢাকা থেকে টরন্টোর উদ্দেশ যাত্রা করবে বিমানের ফ্লাইট। এবং একই দিন টরন্টো থেকে ফিরতি ফ্লাইট ঢাকার উদ্দেশে রওনা হবে।

ঢাকা-টরন্টো রুটে বিমানের বোয়িং ৭৮৭-৯ ড্রিমলাইনার উড়োজাহাজ ব্যবহৃত হবে। যাত্রীরা ২০ জুলাইয়ের মধ্যে টিকেট কিনলে ঢাকা থেকে যাত্রা শুরুর ক্ষেত্রে (একমুখী ও রিটার্ন) টিকেটের মূল ভাড়ার উপর ১৫ শতাংশ ছাড় পাবেন।

আর ওই সময়ের মধ্যে কানাডা থেকে যাত্রা শুরুর টিকেট কিনলে (একমুখী ও রিটার্ন) তাতে মূল ভাড়ার উপর ২৫ শতাংশ ছাড় মিলবে। সেক্ষেত্রে যাত্রীকে ২৭ জুলাই থেকে ২০ অগাস্টের মধ্যে ভ্রমণের বাধ্যবাধকতা দিয়েছে বিমান। ২০ অগাস্টের পর ভ্রমণ করলে এই ছাড় কমে ১৫ শতাংশ হবে।

দীর্ঘদিন ধরে এ রুটে ফ্লাইট চালানোর চেষ্টা করে আসছে বিমান বাংলাদেশ। এর আগে ২০২০ সালের অক্টোবরে টরন্টোতে সরাসরি ফ্লাইট চালুর পরিকল্পনার কথা জানালেও মহামারীর কারণে সেটি বাস্তবায়ন করতে পারেনি রাষ্ট্রায়ত্ত এ কোম্পানি।

ওই চেষ্টার ধারাবাহিকতায় চলতি বছরের ২৬ মার্চ টরন্টোর পথে ৭০ জন যাত্রী নিয়ে ‘পরীক্ষামূলক বাণিজ্যিক’ ফ্লাইটটি ঢাকা ছাড়ে। এরপর বিমানের পক্ষ থেকে কয়েক দফা ফ্লাইট চালুর দিনক্ষণ ঘোষণা করা হয়।

গত ১ জুন বিমান বাংলাদেশের ব্যবস্থাপনা পরিচালক আবু সালেহ মোস্তফা কামাল জানান, ২৮ জুন থেকে এই ফ্লাইট চলাচল করবে। কিন্তু রোববার রাতে সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতকে ফ্লাইট চলাচলের নতুন এই তারিখ ঘোষণা করে বিমান।

ফ্লাইটের সময়সূচি:

২৭ জুলাই থেকে প্রতি বুধবার বিজি ৩০৫ রাত সাড়ে ৩টায় ঢাকার শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে টরন্টোর উদ্দেশে ছেড়ে যাবে।

ফ্লাইটটি যাত্রাপথে রিফুয়েলিংয়ের জন্য তুরস্কের স্থানীয় সময় সকাল ৯টায় ইস্তাম্বুলে অবতরণ করবে। এক ঘণ্টা বিরতি শেষে ইস্তাম্বুল থেকে রওনা দিয়ে স্থানীয় সময় দুপুর ১টা ৫৫ মিনিটে টরন্টো পৌঁছাবে।    

আর রোববার বিজি৩০৫ ফ্লাইট ভোর রাত ৩টায় ঢাকার শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে যাত্রা করে রিফুয়েলিং এর জন্য তুরস্কের ইস্তাম্বুলে অবতরণ করবে স্থানীয় সময় সকাল সাড়ে ৮টায়। এক ঘণ্টা বিরতি শেষে ইস্তাম্বুল থেকে রওনা দিয়ে কানাডার স্থানীয় সময় দুপুর ১টা ২৫ মিনিটে টরন্টো পৌঁছাবে।        

টরন্টো থেকে প্রতি বুধবার স্থানীয় সময় সন্ধ্যা সাড়ে ৭টায় ঢাকার উদ্দেশ্যে ছেড়ে আসবে বিমানের ফ্লাইট। যাত্রাবিরতি ছাড়াই এক টানা ১৬ ঘণ্টা উড়ে বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে ৯টায় ঢাকার হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে অবতরণ করবে।  

একইভাবে প্রতি রবিবার টরন্টো থেকে স্থানীয় সময় রাত ৯ টায় উড্ডয়ন করে সরাসরি ঢাকায় পৌঁছাবে সোমবার স্থানীয় সময় রাত ১১টায়।

ঢাকা থেকে টরন্টোর ভাড়া

ইকোনমি ক্লাস: ইকনোমিতে একমুখী যাত্রায় ১৫ শতাংশ মূল্যছাড় দিয়ে সর্বনিম্ন মূল্য ট্যাক্সসহ ৯০ হাজার ৫১০ টাকা থেকে শুরু করা হয়েছে বিমানের ভাড়া। রিটার্ন টিকেটের সর্বনিম্ন মূল্য ট্যাক্সসহ ১ লাখ ৫৩ হাজার ৩৭০ টাকা, এখানেও ১৫ শতাংশ মুল্য ছাড় রাখা হয়েছে।         

প্রিমিয়াম ইকোনমি ক্লাস: প্রিমিয়াম ইকোনমিতে একমুখী যাত্রায় ১৫ শতাংশ ছাড় দিয়ে প্রতিটি টিকেটের সর্বনিম্ন মূল্য ট্যাক্সসহ ১ লাখ ২৭ হাজার ৩০০ টাকা থেকে শুরু হয়েছে। ১৫ শতাংশ ছাড়ের ব্যবস্থা রেখে রিটার্ন টিকেটের সর্বনিম্ন মূল্য ট্যাক্সসহ ধরা হয়েছে ২ লাখ ৩৪ হাজার ৩৫৫ টাকা।   

বিজনেস ক্লাস: এই ক্লাসেও ভাড়ায় ১৫ শতাংশ মূল্যছাড় দিয়েছে বিমান। একমুখী সর্বনিম্ন ভাড়া ট্যাক্সসহ ১ লাখ ৬৪ হাজার ১০০ টাকা থেকে শুরু এবং রিটার্ন টিকেটে ১৫ শতাংশ ছাড় দিয়ে সর্বনিম্ন মূল্য ট্যাক্সসহ ৩ লাখ ৪ হাজার ৩০২ টাকা। 

মুদ্রা বিনিময়ের হার অনুযায়ী টিকিটের মূল্য কিছুটা তারতম্য হতে পারে বলে বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে। বিমানের ওয়েবসাইট থেকে প্রোমোকোড BGWEB2022 ব্যবহার করে টিকেট কিনলে অতিরিক্ত ১০ শতাংশ ছাড় পাওয়া যাবে।                                                     

টরন্টো থেকে ঢাকার ভাড়া

ইকোনমি ক্লাস: টরন্টো থেকে আসার ক্ষেত্রে ২৫ শতাংশ মূল্যছাড় দিয়ে ইকোনমি ক্লাসের প্রতিটি টিকেটের একমুখী সর্বনিম্ন ভাড়া ট্যাক্সসহ ৬৯০ কানাডিয়ান ডলার থেকে শুরু এবং রিটার্ন টিকেটের সর্বনিম্ন মূল্য ট্যাক্সসহ ১২৩৩ কানাডিয়ান ডলার ধরা হয়েছে রিটার্ন টিকেটের ক্ষেত্রেও ২৫ শতাংশ ছাড় রাখা হয়েছে। 

প্রিমিয়াম ইকোনমি ক্লাস: টরন্টো থেকে প্রিমিয়াম ইকোনমি ক্লাসের একমুখী সর্বনিম্ন ভাড়া ট্যাক্সসহ ১২৩০ কানাডিয়ান ডলার এবং রিটার্ন টিকেটের সর্বনিম্ন মূল্য ট্যাক্সসহ ২১৭৮ কানাডিয়ান ডলার। একমুখী ও রিটার্ন উভয় ক্ষেত্রেই ২৫ শতাংশ মূল্যছাড় দিচ্ছে বিমান।

বিজনেস ক্লাস: বিজনেস ক্লাসের একমুখী সর্বনিম্ন ভাড়া ২৫ শতাংশ মূল্যছাড় দিয়ে ট্যাক্সসহ ১৮৬০ কানাডিয়ান ডলার এবং রিটার্ন টিকেটের সর্বনিম্ন মূল্য ২৫ শতাংশ মূল্যছাড় দিয়ে ট্যাক্সসহ ৩০৭৮ কানাডিয়ান ডলার।

এখানেও মুদ্রা বিনিময়ের হার অনুযায়ী টিকিটের মূল্য কিছুটা তারতম্য হতে পারে। বিমানের ওয়েবসাইট থেকে প্রোমোকোড BGWEB2022 ব্যবহার করে টিকেট কিনলে করলে অতিরিক্ত ১০ শতাংশ ছাড় পাওয়া যাবে।                      

পুরনো খবর:

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক