ওয়ালটনের প্রধান কার্যালয়ে ২ মেগাওয়াট সৌর বিদ্যুৎকেন্দ্র

গাজীপুরের চন্দ্রায় ওয়ালটন হাই-টেক ইন্ডাস্ট্রিজ পিএলসির প্রধান কার্যালয়ে ২ দশমিক ১৬ মেগাওয়াট সৌরবিদ্যুৎ কেন্দ্র নির্মাণ করা হয়েছে।

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদকবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 4 April 2022, 05:42 PM
Updated : 4 April 2022, 05:42 PM

গত রোববার কেন্দ্রটি উদ্বোধন করেন বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ। এসময় তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন।

অনুষ্ঠানে ওয়ালটন হাই-টেকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও প্রধান নির্বাহী গোলাম মুর্শেদ, ডিএমডি লিয়াকত আলী ভুঁইয়াসহ ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন বলে সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানিয়েছে কোম্পানিটি।

ওয়ালটন জানায়, আগামী বছরের মধ্যে ১৮ মেগাওয়াট সৌরবিদ্যুৎ উৎপাদন করবে বাংলাদেশি এ ইলেকট্রনিক্স ও টেক জায়ান্ট। এর প্রথম ধাপে ওয়ালটনের প্রধান কার্যালয়ে এ কেন্দ্র চালু করা হলো। চলতি বছরের মধ্যে এর উৎপাদন শক্তি ১০ মেগাওয়াটে উন্নীত করা হবে।

প্রকল্পের উদ্বোধন অনুষ্ঠানে নসরুল হামিদ বলেন, “এনার্জি সেভিংয়ে ওয়ালটন খুবই অ্যাডভান্সড। এজন্য তারা বিরাট পরিকল্পনা নিয়েছে। পানির উত্তম ব্যবহার করছে। ওয়ালটন মোস্ট সাসটেইনেবলের দিকে যাচ্ছে। এটা বাংলাদেশের জন্য অনেক বড় বিষয়।

“বিদ্যুতের ব্যবহার যত বাড়বে, এনার্জির যোগান যত নিশ্চিত হবে, মানবসূচক উন্নয়ন ও শিল্পের ততই উন্নয়ন হবে।”

বিদ্যুৎ প্রতিমন্ত্রী জানান, আগামি বছর থেকে বাংলাদেশ উৎপাদিত এবং আমদানিকৃত পণ্যের বিদ্যুৎ সাশ্রয়ের সক্ষমতা নির্ধারণে স্টার লেভেলিং করা হবে।

জুনাইদ আহমেদ পলক বলেন, সরকারের দেওয়া নীতি সহায়তা কাজে লাগিয়ে ওয়ালটন অল্প সময়ের মধ্যে বিপুল কর্মসংস্থান সৃষ্টি করেছে। জাতীয় অর্থনীতিতে অবদান রাখছে। ওয়ালটনের এগিয়ে যাওয়ার গল্পটা আমাদের আরও বেশি সাহসী করে, অনুপ্রাণিত করে।

গোলাম মুর্শেদ বলেন, শতভাগ বিদ্যুতায়নের কারণে এই শিল্পের উন্নয়ন হয়েছে। গত এক যুগে যেসব শিল্পবান্ধব নীতি প্রণয়ন করা হয়েছে, সেটা চলমান থাকলে অদূর ভবিষ্যতে ওয়ালটনের মতো আরও অন্তত ১০টি বিলিয়ন ডলারের কোম্পানি তৈরি হবে।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক