‘সোনার খনি’ আবিষ্কার

স্বর্ণের ওপর শুল্ক হার বৃদ্ধির বিষয়টি অনেক আগেই করা উচিত ছিলো বলে মনে করেন অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত।

অর্থনৈতিক প্রতিবেদকবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 6 June 2014, 03:21 PM
Updated : 7 June 2014, 12:07 PM

বাজেটোত্তর সংবাদ সম্মেলনে এক প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী এ কথা বলেন।

এক সাংবাদিক প্রশ্ন করেন, “শেষ পর্যন্ত ... হাত দিলেন কেন? শেষ বয়সে এত কঠোর হলেন কেন?”

এ প্রশ্নে উপস্থিত সাংবাদিক ও মন্ত্রীরা উচ্চস্বরে হেসে উঠেন।

স্বর্ণ চোরাচালান খুব বেশি বেড়ে যাওয়ায় বিনা শুল্কে ১০০ গ্রাম ‌পর্যন্ত স্বর্ণালংকার এবং অতিরিক্ত সর্বোচ্চ ২০০ গ্রাম পর্যন্ত স্বর্ণবার প্রতিযাত্রী প্রতি ভরি ৩ হাজার টাকা করে শুল্ক পরিশোধ করে আনতে পারবে বলে প্রস্তাব করা হয় বাজেট বক্তৃতায়।

বৈধপথে প্রতি যাত্রী ২০০ গ্রাম স্বর্ণালঙ্কার বিনা শুল্কে আনতে পারেন এবং ২০০ গ্রাম পর্যন্ত স্বর্ণবার প্রতি ভরিতে ১৫০ টাকা শুল্ক পরিশোধ করে আনতে পারেন।

এ বিষয়ে প্রশ্ন করার পর অর্থমন্ত্রী সাংবাদিকদের আরো কয়েকটি প্রশ্ন নিয়ে উত্তর দেয়া শুরু করেন।

অর্থমন্ত্রী বলেন, “এখন বলবো ... ওপর নজর কেন পড়লো, খুবই আশ্চর্য হচ্ছি কেন আগে ...  ওপর দৃষ্টি পড়েনি, এনবিআর’র চেয়ারম্যান যখন বিষয়টি আমার গোচরে আনলেন, তখন আমি তাকে বললাম- ‘এত দিন কোথায় ছিলেন’।

“এটি একটি উত্তম প্রস্তাব, পাশ্ববর্তী দেশগুলোতে তিন হাজার থেকে ৫ হাজার শুল্ক আরোপ করা হয়।”

স্বর্ণ সঞ্চয় এখন কোন ভাল সঞ্চয়ের উপায় নয় উল্লেখ করে মন্ত্রী বলেন, “সোনার চেয়ে এখন ব্যাংকিং সেক্টর ভালো, সোনার আকর্ষণ থেকে আমরা দূরে সরে যাচ্ছি।”

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক