জেল হত্যার পুনর্বিচারের কথা বললেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

জেলখানায় জাতীয় চার নেতা হত্যার বিচার পুনরায় করতে উচ্চ আদালতে আবেদন করা হবে বলে জানালেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী সাহারা খাতুন।

বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 3 Nov 2010, 00:50 AM
Updated : 3 Nov 2010, 00:50 AM
ঢাকা, নভেম্বর ০৩ (বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম)- জেলখানায় জাতীয় চার নেতা হত্যার বিচার পুনরায় করতে উচ্চ আদালতে আবেদন করা হবে বলে জানালেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী সাহারা খাতুন।
তিনি বুধবার সাংবাদিকদের বলেন, "এ মামলার রায়ে বর্তমান সরকার সন্তুষ্ট নয়। তাই সরকার আইন মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমে মামলাটি পুনরায় শুরুর জন্য আদালতে আবেদন করবে।"
বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান হত্যার পর ১৯৭৫ সালের ৩ নভেম্বর তার ঘনিষ্ঠ রাজনৈতিক সহচর সৈয়দ নজরুল ইসলাম, তাজউদ্দিন আহমেদ, এম মনসুর আলী ও এএইচএম কামরুজ্জামানকে ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগারে হত্যা করা হয়।
এ নিয়ে মামলা দায়েরের ২৩ বছর পর ১৯৯৮ সালের ১৫ অক্টোবর ২৩ জনের বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র দেওয়া হয়। ২০০৪ সালের ২০ অক্টোবর ঢাকা মহানগর দায়রা জজ মো. মতিউর রহমান রায় দেন।
রায়ে রিসালদার মোসলেম উদ্দিন (পলাতক), দফাদার মারফত আলী শাহ (পলাতক) ও এল.ডি. (দফাদার) আবুল হাসেম মৃধাকে (পলাতক) মৃত্যুদণ্ড দেওয়া হয়। যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দেওয়া হয় সৈয়দ ফারুক রহমান, সুলতান শাহরিয়ার রশিদ খান, বজলুল হুদাসহ ১৫ জনকে। খালাস পান কেএম ওবায়দুর রহমান, শাহ মোয়াজ্জেম হোসেন, নুরুল ইসলাম মঞ্জুর ও তাহেরউদ্দিন ঠাকুরসহ অন্য একজন।
এর বিরুদ্ধে আপিল হলে হাইকোর্ট ২০০৮ সালে মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত দুই আসামি মারফত ও হাশেম মৃধাকে অব্যাহতি দেয়। মোসলেমকে আট বছর সাজা দেওয়া হয়। খালাস পায় যাবজ্জীবন কারাদণ্ডপ্রাপ্ত অধিকাংশ জন।
সকালে কেন্দ্রীয় চার নেতার স্মৃতির স্মরণে নির্মিত 'মৃত্যুঞ্জয়ী শহীদ স্মৃতি কারাকক্ষ' পরিদর্শন করেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী। এ সময় তার সঙ্গে ছিলেন সৈয়দ নজরুল ইসলামের ছেলে সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম, তাজউদ্দিন আহমেদের ছেলে তানজীম আহমেদ, মনসুর আলীর ছেলে মোহাম্মদ নাসিম।
আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য নাসিম বলেন, "জিয়াউর রহমানের সরকার খুনিদের ইচ্ছাকৃতভাবে পুরস্কৃত করে।"
সংসদ সদস্য তানজিম বলেন, "আজ আমাদের পরিবারের জন্য শোকের দিন। আমি এই শোককে শক্তিতে পরিণত করতে চাই।"
সংসদ উপনেতা সৈয়দা সাজো চৌধুরী, স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শামসুল হক টুকু, আইন প্রতিমন্ত্রী কামরুল ইসলাম, আওয়ামী লীগ নেতা বাহাউদ্দিন নাছিম, সংসদ সদস্য মোস্তফা জালাল মহিউদ্দিনও সেখানে ছিলেন।
এর আগে তারা বনানী কবরস্থানে সৈয়দ নজরুল ইসলাম, তাজউদ্দিন আহমেদ ও এম মনসুর আলীর কবরে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানান।
বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম/কেটি/এমআই/১২৪৫ ঘ.
তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক