আরো লিঙ্গ সংবেদনশীল বাজেট হওয়া প্রয়োজন

জাতিসংঘ ঘোষিত সহস্রাব্দের উন্নয়ন লক্ষ্য অর্জনে আরো অধিক পরিমানে লিঙ্গ সংবেদনশীল বাজেট হওয়া প্রয়োজন বলে উল্লেখ করেছে বাংলাদেশ প্রগতি নারী সংঘ।

বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 17 June 2010, 07:54 AM
Updated : 17 June 2010, 07:54 AM
ঢাকা, জুন ১৭ (বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম)- জাতিসংঘ ঘোষিত সহস্রাব্দের উন্নয়ন লক্ষ্য অর্জনে আরো অধিক পরিমানে লিঙ্গ সংবেদনশীল বাজেট হওয়া প্রয়োজন বলে উল্লেখ করেছে বাংলাদেশ প্রগতি নারী সংঘ।
বৃহস্পতিবার দুপুরে জাতীয় প্রেসক্লাবের ভিআইপি লাউঞ্জে এক সংবাদ সম্মেলনে তারা এ কথা উল্লেখ করে।
সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে সংঘের সহযোগী পরিচালক শাহনাজ সুমি বলেন, সহস্রাব্দ উন্নয়ন লক্ষ্য অর্জনে হাতে আর মাত্র ৫ বছর সময় আছে। এ রকম একটি ক্রান্তিকালের বাজেট বক্তৃতায় অর্থমন্ত্রী একবারের জন্যও এ লক্ষ্যমাত্রার বিষয়টি উল্লেখ করেননি।
তিনি বলেন, এ লক্ষ্যমাত্রা অর্জনে বাজেটে নারীদের জন্য জিডিপির ৭শতাংশ বরাদ্দ দেয়ার দাবি উঠলেও বাস্তবে দেওয়া হয়েছে ৪ দশমিক ৫ শতাংশেরও কম।
"নারীদের প্রতি বৈষম্য ও দারিদ্রের মধ্যে একটি নিবিড় সম্পর্ক রয়েছে। নারী-পুরুষের সমতা বিধান এবং অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি ও দারিদ্র নিরসনের লক্ষ্য ও উদ্দেশ্য একই।"
সংবাদ সম্মেলনে মাতৃমৃত্যুর হার হ্রাসে গ্রামীণ ধাত্রী প্রশিক্ষণ চালু, ভ্রাম্যমাণ ক্লিনিকের ব্যবস্থা, নারীর জন্য কেবল মাতৃস্বাস্থ্য সেবার পরিবর্তে সাধারণ স্বাস্থ্যসেবা নিশ্চিত করা, বাল্য বিবাহ নিরোধ আইনের কঠোর বাস্তবায়ন এবং জনসচেতনতা তৈরির সুপারিশ করা হয়।
এ ছাড়া বিদ্যালয় থেকে মেয়েদের ঝরে পড়া হ্রাসে ২০১০-১১ সালে নির্দিষ্ট জেলায় পাইলট প্রকল্প বাস্তবায়নের সুপারিশ করা হয়।
সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ প্রগতি নারী সংঘের নির্বাহী পরিচালক রোকেয়া কবির, ড. রোকেয়া খাতুন, মনীষা বিশ্বাস, প্রতিমা পারুল মজুমদার প্রমুখ।
২০০০ সালের সেপ্টেম্বর মাসে জাতিসংঘের সহস্রাব্দ সম্মেলনে ৮টি লক্ষ্য নির্ধারণ করা হয়। এগুলো সহস্রাব্দ উন্নয়ন লক্ষ্য নামে পরিচিত। এ লক্ষ্যগুলোর অগ্রগতি পর্যালোচনায় জাতিসংঘের উদ্যোগে আগামী ২০-২২ সেপ্টেম্বর নিউইয়র্কে বিশ্বনেতাদের নিয়ে একটি শীর্ষ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হবে।
বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম/প্রতিনিধি/কেএমএস/১৯৪৯ ঘ.
তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক