র‌্যাবে ‘জবাবদিহির’ অভাব, মত পাঠকের

অভিযোগ ওঠার প্রেক্ষাপটে সরিয়ে আনার পর বাহিনীর ১৮ সদস্যকে পুনর্বহালে র‌্যাবের সিদ্ধান্তে ‘জবাবদিহির অভাব’ দেখছেন বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমের পাঠকরা।

নিজস্ব প্রতিবেদকবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 20 May 2014, 06:00 PM
Updated : 13 June 2014, 11:39 AM

মঙ্গলবার প্রকাশিত এই সংবাদে বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমের ফেইসবুক পাতার পাঠকদের মধ্যে নেতিবাচক প্রতিক্রিয়াই বেশি এসেছে।

আবু সুফিয়ান নামে এক পাঠক লিখেছেন, “জবাবদিহিতা হলে এসব কিছু হত না।”

“অবাক হইনি, কারণ এই দেশে সবি সম্ভব,” লিখেছেন ‘ক্লান্ত ফেবি’।

সাব্বির আহমেদ মাঈনুল মাঈনুল লিখেছেন, “এটা সোনার বাংলা গড়ার অঙ্গীকার।”

রুমিকা আক্তার মিশু এই ঘটনা ধরে সরকারেরও সমালোচনা করেছেন।

নারায়ণগঞ্জের সাত খুনের প্রেক্ষাপটে কুমিল্লার চার ব্যক্তিকে ঢাকায় আটকের পর তাদের কাছ থেকে অর্থ সরিয়ে নেয়ার অভিযোগ ওঠার পর রোববার সরিয়ে আনা হয়েছিল র‌্যাব-৩ এর ১৮ সদস্যকে।

এনিয়ে পুলিশ ও র‌্যাবের পাল্টাপাল্টি বক্তব্যের মধ্যে মঙ্গলবার ১৮ সদস্যকে পুনর্বহালের কথা জানায় র‌্যাব।

র‌্যাব-৩ এর অপরাধ প্রতিরোধ কোম্পানি (সিপিসি)-৩ এর কমান্ডার মেজর আলী আহসানসহ ওই কোম্পানির ১৮ সদস্য এখন আগের দায়িত্বই পুনরায় পেলেন।

র‌্যাবের কর্মকর্তাদের সরিয়ে আনাকে পুলিশ ‘প্রত্যাহার’ বললেও র‌্যাব বলছিল, ওই ১৮ কর্মকর্তাকে সদর দপ্তরে সংযুক্ত করা হয়েছিল।

র‌্যাবের মুখপাত্র হাবিবুর রহমান বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, “এটি র‌্যাবের নিয়মিত কাজের একটি অংশ। এটাকে অন্য কোনোভাবে দেখার সুযোগ নেই।”

পাঠকদের জবাবদিহি না থাকার অভিযোগ তুললেও র‌্যাবের মুখপাত্র একদিন আগেই বলেছিলেন, “র‌্যাবে সবসময় স্বচ্ছতা ও জবাবদিহি নিশ্চিত করা হয়। কোনো সদস্যের বিরুদ্ধে অভিযোগ পাওয়া গেলে তা যথাযথভাবে যাচাইবাছাই করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হয়ে থাকে।”

বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমের ফেইসবুক পেইজ (https://www.facebook.com/bdnews24) বাংলাদেশের গণমাধ্যমের ফ্যান পেইজগুলোর মধ্যে লাইক-দাতার সংখ্যা অনুযায়ী নিয়মিত শী‍র্ষে অবস্থান করে। এই পেইজের মন্তব্য উন্মুক্ত এবং দায় মন্তব্যদাতার।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক