‘নারী অবমাননা’র জন্য শফীর গ্রেপ্তার দাবি

ধর্মীয় বক্তৃতায় নারীদের ‘অবমাননা’ করায় কট্টরপন্থী ধর্মীয় সংগঠন হেফাজতে ইসলামের আমির আহমদ শফীর গ্রেপ্তার ও বিচার দাবি করেছে নারীদের কয়েকটি সংগঠন।

নিজস্ব প্রতিবেদকবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 13 July 2013, 08:33 AM
Updated : 13 July 2013, 10:06 PM

‘নারীবিদ্বেষী ও সংবিধানবিরোধী’ বক্তব্য দেয়ার জন্য শফীর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণের দাবিতে শনিবার সকাল ১১টায় জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে মানববন্ধন করে বাংলাদেশ নারী সাংবাদিক কেন্দ্র। সেখানে উপস্থিত হয়ে দাবির প্রতি একাত্মতা জানায় আরেকটি সংগঠন পেশাজীবী নারী সমাজ।

মানববন্ধন পরবর্তী সংক্ষিপ্ত সমাবেশে নারী সাংবাদিক কেন্দ্রের সভাপতি নাসিমুন আরা হক ও সাধারণ সম্পাদক পারভীন সুলতানা,  পেশাজীবী নারী সমাজের সভাপতি মাহফুজা খানম, নারীনেত্রী অধ্যাপক মমতাজ লতিফ বক্তব্য দেন।

নারীনেত্রীরা আহমদ শফীর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে দ্রুত স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের হস্তক্ষেপ চান।

শনিবার সন্ধ্যায় এক বিবৃতিতে বাংলাদেশ নারী মুক্তি সংসদের সভানেত্রী হাজেরা সুলতানা ও সাধারণ সম্পাদক সালেহা সুলতানা বলেন, “শফী তার বক্তব্যে নারীদের অবজ্ঞা নয়, অপমানও করেছেন।

“এ অপরাধে অবিলম্বে তাকে গ্রেপ্তার করে বিচারের আওতায় আনা হোক।”

সম্প্রতি হাটহাজারীতে আহমদ শফীর একটি বক্তৃতার ভিডিও ক্লিপ সামাজিক যোগাযোগের ওয়েবসাইটগুলোতে ছড়িয়ে পড়লে সমালোচনা শুরু হয়।

বক্তৃতায় শফী নারীদের চতুর্থ শ্রেণির বেশি পড়াতে নিষেধ করেন, সমালোচনা করেন সহশিক্ষার। নারীদের চাকরি না করে বাড়িতে রাখার পরামর্শ দেন তিনি। ওই বক্তৃতায় নারীদের পোশাক-আশাক নিয়ন্ত্রণ এবং জন্ম নিয়ন্ত্রণের বিরুদ্ধেও কথা বলেন হাটহাজারী মাদ্রাসার মহাপরিচালক।

শফীর ওই বক্তব্যের সমালোচনা করেছে নাগরিকদের আরো কয়েকটি সংগঠনও।

‘বাংলাদেশ রুখে দাঁড়াও’ এর ব্যানারে ১৭ বিশিষ্ট নাগরিক শনিবার এক বিবৃতিতে শফীর বক্তব্যকে ‘কুরুচিপূর্ণ’ আখ্যায়িত করে বলেন, এই বক্তব্য বিকৃত মানসিকতার পরিচায়ক।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাও ওই বক্তব্যকে ‘জঘন্য’ বলে আখ্যায়িত করেছেন।

অধ্যাপক আনিসুজ্জামান স্বাক্ষরিত বিবৃতিতে বলা হয়, আহমদ শফীর নেতৃত্বে হেফাজতে ইসলামের নারী সমাজ সম্পর্কে এ ধরনের মানসিকতা নারীকে পুনরায় অবরোধবাসিনী এবং উন্নয়নমুখী দেশকে মধ্যযুগে প্রত্যাবর্তন করতে উদ্যত হয়েছে।

অন্যদের মধ্যে অধ্যাপক সিরাজুল ইসলাম চৌধুরী, আকবর আলি খান, অজয় রায়, কাইয়ুম চৌধুরী, কবি সৈয়দ শামসুল হক, ডা. আনোয়ারা সৈয়দ হক, কামাল লোহানী, রামেন্দু মজুমদার, রাশেদা কে চৌধুরী, ডা. সারওয়ার আলী, জিয়াউদ্দিন তারেক আলী, অ্যাডভোকেট রানা দাশগুপ্ত, সৈয়দ মনজুরুল ইসলাম, আবেদ খান, নাসিমুন আরা হক ও এমএম আকাশ বিবৃতিতে স্বাক্ষর করেছেন।

বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টির (সিপিবি) নারী সেলের আহ্বায়ক লক্ষ্মী চক্রবর্তী এক বিবৃতিতে বলেন, আহমদ শফী তার এই বক্তব্যের মধ্য দিয়ে প্রমাণ করেছে হেফাজত ইসলাম মধ্যযুগীয় কায়দায় নারীকে গৃহবন্দী করে রাখতে চায়।

আহমদ শফী তার বক্তব্যে ইসলাম ও নারী সমাজকে মুখোমুখি দাঁড় করিয়ে দুর্নাম রটাচ্ছে বলে অভিযোগ করেছে আহলে সুন্নাত ওয়াল জমা’আত।

শনিবার চট্টগ্রামে এক ইফতার মাহফিলে তারা বলেন, ইসলামই নারীর সত্যিকার মর্যাদা, অধিকার ও মুক্তি নিশ্চিত করেছে। ইসলামের নির্দেশনা মেনে চললে ঘরে-বাইরে কোথাও নারীর নিরাপত্তা ও অধিকার বিপন্ন হবে না।

“অথচ ইসলামের বিকৃত মতাদর্শী ‘ওহাবী-জামাতিরা’ নারী জাতির বিরুদ্ধে বিষোদগার করে ইসলাম ও নারীকে মুখোমুখি অবস্থানে দাঁড় করিয়ে ইসলামের দুর্নাম রটাচ্ছে।”

সংগঠনের প্রধান সমন্বয়ক মাওলানা এম এ মতিনের সভাপতিত্বে ও সদস্য সচিব অ্যাডভোকেট মোছাহেব উদ্দিন বখতিয়ারের সঞ্চালনায় আলোচনা সভায় বক্তব্য রাখেন, সৈয়দ মছিহুদ্দৌলা, এম.এ মান্নান, সৈয়দ অছিয়র রহমান, সোলাইমান আনসারী প্রমুখ।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক