বাউল নির্যাতন: সাংসদের মধ্যস্থতায় আপোস

স্থানীয় সংসদ সদস্যের মধ্যস্থতায় আপসের পর মামলা প্রত্যাহারের জন্য আদালতে আবেদন করেছেন রাজবাড়ীর বাউলরা।

বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 20 April 2011, 06:29 AM
Updated : 20 April 2011, 06:29 AM
রাজবাড়ী, এপ্রিল ২০ (বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম)- স্থানীয় সংসদ সদস্যের মধ্যস্থতায় আপসের পর মামলা প্রত্যাহারের জন্য আদালতে আবেদন করেছেন রাজবাড়ীর বাউলরা।
বুধবার জেলার বিচার বিভাগীয় হাকিমের আদালতে এ আবেদন করেন মামলার বাদি মোহাম্মদ ফকীর। আবেদনের সঙ্গে একটি আপসনামাও দাখিল করেছেন তিনি।
হাকিম জাহিদুল আজাদ এ বিষয়ে পরবর্তী ব্যবস্থা নিতে পাংশা থানার ওসিকে নির্দেশ দিয়েছেন। নির্যাতিত বাউলদের পক্ষে ফকীর থানায় ওই মামলা করেছিলেন।
মামলার ১৩ আসামির নয় জন এদিন আদালতে হাজির হয়ে আবেদন জানালে তাদের জামিন দেন হাকিম জাহিদুল।
গত ৫ এপ্রিল রাজবাড়ীর পাংশা উপজেলার হাবাসপুর ইউনিয়নের চররামনগর গ্রামে ২৮ বাউলের চুল ও দাড়ি-গোঁফ কেটে দেওয়া হয়। এরপর মামলা হলে এক আসামিকে গ্রেপ্তারও করে পুলিশ।
বাউল নির্যাতনের এ ঘটনা নিয়ে সারাদেশে সমালোচনা ওঠে। বিভিন্ন সংগঠন কর্মসূচিও পালন করে। হাইকোর্টে একটি রিট আবেদনও হয়।
বাউলদের ওপর নির্যাতনের ঘটনায় দায়ীদের গ্রেপ্তার করে কেন বিচারের আওতায় আনা হবে না, তা জানাতে মঙ্গলবার নির্দেশও দেয় হাইকোর্ট। পাশাপাশি বাউলদের জীবন ও সম্পদের নিরাপত্তা বিধান, বাউল স
তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক