নিখোঁজ হিলালীকে পাওয়া গেল সাভারে

ঢাকার উত্তরার বাসা থেকে তিন দিন আগে বেরিয়ে নিখোঁজ ব্যবসায়ী আমিন মো. হিলালীকে সাভারে পাওয়া গেছে।

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদকবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 3 July 2022, 06:22 PM
Updated : 4 July 2022, 06:59 PM

রোববার মধ্য রাতে এই খবর জানিয়ে তার ভাই রফিকুল ইসলাম হিলালী বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, তিনি ভাইয়ের সঙ্গে ফোনে কথা বলেছেন এবং তাকে আনতে যাচ্ছেন।

রফিকুল রোববারই ঢাকায় সংবাদ সম্মেলন করে নিখোঁজ ভাইয়ের সন্ধান দাবি করেছিলেন। তার ১২ ঘণ্টার মধ্যে সন্ধান মিলল।

আশালয় হাউজিং অ্যান্ড ডেভেলপার্স লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক আমিন হিলালী নর্থ সাউথ বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্যাম্পাসের জমি কেনার নামে কোটি কোটি টাকা আত্মসাতের অভিযোগে দুদকের করা মামলার আসামি।

তিনি আদালত থেকে জামিন নেওয়ার প্রক্রিয়া চালানোর মধ্যে শুক্রবার নিখোঁজ হন। এরপর ঢাকার উত্তরা পশ্চিম থানায় সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করে তার পরিবার। তারপর রোববার করেন সংবাদ সম্মেলন।

রফিকুল বলেন, রাত পৌনে ১১টার দিকে তাকে ফোন করে কথা বলেন তার ভাই। তাকে বলেন, অপহরণকারীরা তাকে সাভারের হেমায়েতপুর এলাকায় ফেলে গেছেন।

সেখানে এক অটোরিকশা চালকের ফোন থেকে হিলালী কথা বলেন বলে রফিকুল জানান।

তিনি বলেন, “এরপর আমি উত্তরা পশ্চিম থানায় জানাই। তারাও নিশ্চিত হয়।”

রাত সোয়া ১২টার দিকে যখন রফিকুলের সঙ্গে কথা হয়, তখন তিনি পুলিশসহ সাভারের পথে ছিলেন।

হিলালীকে কারা তুলে নিয়েছিল, সে বিষয়ে তাৎক্ষণিকভাবে কিছু জানা যায়নি।

নর্থ সাউথের জমি কেনার অনিয়মের অভিযোগে দুদকের মামলায় হিলালী ছাড়াও বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়টির ট্রাস্টি বোর্ডের চেয়ারম্যান আজিম উদ্দিন আহমেদ, চার ট্রাস্টি এম এ কাশেম, বেনজীর আহমেদ, রেহানা রহমান ও মোহাম্মদ শাহজাহান আসামি।

মামলায় নর্থ সাউথ বিশ্ববিদ্যালয়ের সিন্ডিকেট, বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশন এবং শিক্ষা মন্ত্রণালয়কে পাশ কাটিয়ে ট্রাস্টি বোর্ডের কয়েকজন সদস্যের অনুমোদন/সম্মতির মাধ্যমে ক্যাম্পাস উন্নয়নের নামে ৯০৯৬ দশমিক ৮৮ ডেসিমেল জমির দাম ৩০৩ কোটি ৮২ লাখ ১৩ হাজার ৪৯৭ টাকা বেশি দেখিয়ে তা আত্মসাৎ করার অভিযোগ করা হয়।

এম এ কাশেম, বেনজীর আহমেদ, রেহানা রহমান ও শাহজাহান ওই মামলায় এখন কারাগারে রয়েছেন। গত ৩০ জুন তারা জামিনের আবেদন করলেও আদালত তা নাকচ করে।

তার মধ্যেই শুক্রবার হিলালী নিখোঁজ হওয়ার খবর আসে।

রোববার দুপুরে ঢাকা রিপোটার্স ইউনিটিতে সংবাদ সম্মেলনে রফিকুল বলেন, আশালয় হাউজিং অ্যান্ড ডেভেলপার্স লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক হিসেবে তার ভাই নর্থ সাউথ বিশ্ববিদ্যালয়কে জমির দলিল করে দিয়েছেন শুধু। এর বাইরে আর কিছুতে তার কোনো সংশ্লিষ্টতা নেই।

ভাইয়ের সন্ধান দাবি করে তিনি বলেছিলেন, “আমরা আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর কাছে অনুরোধ করছি আমিন মো. হিলালীকে খুঁজে বের করার জন্য।”

রফিকুল বলেন, তার ভাইয়ের কোনো শত্রু থাকার কথা তাদের জানা নেই।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক