বাসে ‘হাফ ভাড়ার’ দাবিতে শিক্ষার্থীদের সড়ক অবরোধ

শিক্ষার্থীদের জন্য বাস ভাড়া অর্ধেক করার দাবিতে দেড় ঘণ্টা সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ দেখিয়েছে ঢাকা কলেজের ছাত্ররা।

নিজস্ব প্রতিবেদকবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 18 Nov 2021, 11:01 AM
Updated : 18 Nov 2021, 11:01 AM

এ কলেজের কয়েকশ শিক্ষার্থী বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ৯টার দিকে ঢাকার মিরপুর সড়কে সড়কে অবস্থান নিলে যান চলাচল বন্ধ হয়ে যায়, আশপাশের এলাকায় সৃষ্টি হয় তীব্র যানজট।

পরে পুলিশ এসে শিক্ষার্থী এবং বাস চালকসহ হেলপারদের সঙ্গে কথা বলে ‘আপাতত’ অর্ধেক ভাড়া নেওয়ার প্রতিশ্রুতি দিলে বেলা ১১টার দিকে শিক্ষার্থীরা সড়ক থেকে সরে যায়।

নিউ মার্কেট থাকার ওসি (তদন্ত) ইয়াছিন আলী বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, “আমরা তাদেরকে বলেছি, বাস মালিক ও উপযুক্ত কর্তৃপক্ষের সঙ্গে আলাপ-আলোচনা করে একটা মীমাংসা করা হবে। আপাতত বাস চালক-হেলপারদের বলা হয়েছে শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে অর্ধেক ভাড়া নিতে।”

ঢাকা কলেজের শিক্ষার্থী তামিম আহসান বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, “শিক্ষক এবং আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী আমাদের বলেছে, শনিবারের মধ্যে হাফ ভাড়া নিশ্চিত করবে। এ জন্য আমরা রাস্তা ছেড়ে দিয়েছি। শনিবারের মধ্যে অর্ধেক ভাড়া চালু না হলে কঠোর কর্মসূচিতে যাবে শিক্ষার্থীরা।”

বাসে ‘হাফ পাস’ চালু করার পাশাপাশি শিক্ষার্থীদের সঙ্গে বাসের চালক ও সহকারীদের ‘দুর্ব্যবহার’ বন্ধ করার দাবি জানান শিক্ষার্থীরা।

এর আগে গত সোমবার দুর্ব্যবহারের প্রতিবাদে এবং বাসে অর্ধেক ভাড়ার দাবিতে রামপুরা বিটিভি ভবন এলাকায় রাইদা পরিবহনের অর্ধশতাধিক বাস আটক করে স্থানীয় শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের কয়েকশ শিক্ষার্থী। পরে বাস মালিকের সঙ্গে পুলিশের আলোচনায় সমঝোতা হলে বাসগুলো ছেড়ে দেয় শিক্ষার্থীরা।

রামপুরা থানার ওসি রফিকুল ইসলাম বৃহস্পতিবার বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, “রাইদা পরিবহনের বেশ কিছু বাস চলাচল করে এই সড়কে। তাদের কোনো এক চেকারম্যানের সঙ্গে এক ছাত্রের সমস্যা হয়েছিল, যে কারণে শিক্ষার্থীরা এর প্রতিবাদ জানিয়ে বাস ভাড়া অর্ধেক করার দাবি জানিয়েছেল।

“আমরা বাস মালিকের সাথে কথা বলেছিলাম, ওইদিন মালিক রাইদা পরিবহনে শিক্ষার্থীদের থেকে হাফ ভাড়া নেওয়ার দাবি মেনে নিয়েছেন।”

তবে ওই সড়কে চলাচল করা অন্যান্য বাসে শিক্ষার্থীদের অর্ধেক ভাড়া নেওয়া হবে কি না- সে বিষয়ে সিদ্ধান্ত হয়নি বলে জানান ওসি।  

“কোনো সিদ্ধান্ত নিতে হলে পুরো বাস মালিক সমিতি বা কর্তৃপক্ষ ও সরকারের সংশ্লিষ্টদের মধ্যে একটি সমঝোতা দরকার। তা না হলে তো যে কোনো সময় এই ধরনের সংকট দেখা দিতে পারে।”

শিক্ষার্থীদের দাবির বিষয়ে কথা বলতে বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমের পক্ষ থেকে ঢাকা সড়ক পরিবহন মালিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক খন্দকার এনায়েত উল্লাহকে একাধিকবার ফোন করলেও তিনি ধরেননি।

সম্প্রতি ডিজেলের দাম ২৩ শতাংশ বাড়ানো হলে তিন দিনের পরিবহন ধর্মঘটের পর গত ৭ নভেম্বর সড়ক পরিবহন কর্তৃপক্ষ এবং বাস মালিকদের সভায় বাস ভাড়া ২৭ শতাংশ বাড়ানো হয়।

এরপর শিক্ষার্থীদের জন্য বাস ভাড়া অর্ধেক করার দাবিতে ঢাকার রামপুরা ও নিউ মার্কেট এলাকায় শিক্ষার্থীদের এই আন্দোলন করতে দেখা গেল।

আরও পড়ুন

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক