পরীমনি, হেলেনাসহ ৬ জনের বাসায় সিআইডির তল্লাশি

মামলার তদন্তভার পাওয়ার পর চিত্রনায়িকা পরীমনি ও ব্যবসায়ী হেলেনা জাহাঙ্গীরসহ সম্প্রতি গ্রেপ্তার ছয়জনের বাসায় নতুন করে তল্লাশি চালিয়েছে পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগ- সিআইডি।

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদকবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 7 August 2021, 06:40 PM
Updated : 7 August 2021, 06:40 PM

এই অভিযানে পাসপোর্ট ও ল্যাপটপ জব্দ করা হয় বলে জানিয়েছেন সিআইডির অতিরিক্ত ডিআইজি ওমর ফারুক।

চিত্রনায়িকা পরীমনি, ব্যবসায়ী হেলেনা জাহাঙ্গীর, মডেল পিয়াসা ও মরিয়ম মৌ, চলচ্চিত্র প্রযোজক নজরুল ইসলাম রাজ, শরিফুল হাসান মিশুর বাসায় শনিবার বিকাল থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত একযোগে তল্লাশি চলে।

এর আগে এই ব্যক্তিদের বাড়িতে অভিযান চালিয়েই গ্রেপ্তার করেছিল র‌্যাব ও পুলিশ। তখন বাড়িতে তল্লাশি চালিয়ে মদ ও মাদকদ্রব্য উদ্ধারের কথা জানিয়ে মামলা হয়। নানা নাটকীয়তার পর সেই মামলাগুলোর তদন্ত করছে সিআইডি।

সিআইডি কর্মকর্তা ওমর ফারুক বলেন, “আমাদের একাধিক টিম একসাথে ৬ জনের বাসায় অভিযান চালিয়ে বেশ কিছু সামগ্রী জব্দ করেছে। এটাকে আমরা তল্লাশি অভিযান বলছি।

“আমরা এসব বাসা থেকে পাসপোর্ট, ডেস্কটপ কম্পিউটার, ল্যাপটপ ও মোবাইলসহ বিভিন্ন আলামত জব্দ করেছি।”

মাদক বা এ ধরনের কোনো কিছু পাওয়া গেছে কি না- এ প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, সেসব কিছু পাওয়া যায়নি। তবে পরে এ বিষয়ে বিস্তারিত জানানো হবে।

আওয়ামী লীগে পদ হারানো হেলেনা জাহাঙ্গীরকে ২৯ জুলাই তার বাসা থেকে গ্রেপ্তার করে র‍্যাব। তার বিরুদ্ধে গুলশান থানায় দুটি ও পল্লবী থানায় একটি মামলা হয়।

হেলেনা জাহাঙ্গীরের বাড়িতে অভিযানের সময় এসব উদ্ধারের কথা জানিয়েছিল র‌্যাব। ফাইল ছবি

পরদিন গোয়েন্দা পুলিশ ফারিয়া মাহবুব পিয়াসা এবং মরিয়ম আক্তার মৌ নামে কথিত দুই মডেলকে গ্রেপ্তার করে। তাদের বিরুদ্ধে মোহাম্মদপুর এবং গুলশান থানায় মাদকের মামলা হয়।

এরপর র‌্যাব গত মঙ্গলবার ‘ডিজে পার্টি’ আয়োজনের আড়ালে অবৈধ কর্মকাণ্ডে জড়িত থাকার অভিযোগে শরিফুল হাসান ওরফে মিশুকে গ্রেপ্তার করে।

পরদিন পরীমনি ও চলচ্চিত্র প্রযোজক রাজকে গ্রেপ্তার করে র‌্যাব। তাদের বিরুদ্ধে বনানী থানায় মাদক মামলা ছাড়াও রাজের বিরুদ্ধে পর্নগ্রাফি আইনে আরেকটি মামলা হয়।

পরীমনি, পিয়াসা, মৌ, রাজ, শরিফুল হাসান মিশুর বিরুদ্ধে একটি করে মামলা এবং হেলেনা জাহাঙ্গীরের বিরুদ্ধে করা দুটি মামলার তদন্তভার এখন সিআইডির কাছে।

শুক্রবার এসব মামলার তদন্তের দায়িত্ব পেয়েই শনিবার তাদের বাসায় অভিযান চালায় সিআইডি। এই ৬ জনের মধ্যে চারজন এখন সিআইডি হেফাজতে রয়েছে।

সিআইডির অতিরিক্ত ডিউআইজি ওমর ফারুক বলেন, “হেলেনা জাহাঙ্গীর ও মিশু ছাড়া অন্যরা এখন সিআইডি হেফাজতে রয়েছে। তাদের জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে।”

হেলেনা ও মিশুকেও জিজ্ঞাসাবাদের জন্য হেফাজতে নেওয়া হবে বলে জানান এই সিআইডি কর্মকর্তা।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক