নাসির ও অমির বিরুদ্ধে আরও দুই মামলা হবে: পুলিশ

চিত্রনায়িকা পরীমনিকে নির্যাতনের অভিযোগে গ্রেপ্তার ব্যবসায়ী নাসির উদ্দিন মাহমুদ ও তুহিন সিদ্দিকী অমির বিরুদ্ধে আরও দুটি মামলা দায়েরের প্রস্তুতির কথা জানিয়েছে পুলিশ।

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদকবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 14 June 2021, 03:28 PM
Updated : 14 June 2021, 03:28 PM

সোমবার বিকালে উত্তরার এক নম্বর সেক্টরের ১২ নম্বর সড়কের একটি বাসা থেকে এই দু’জনের সঙ্গে তিন নারীকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ।

নারীরা হলেন- লিপি আক্তার (১৮), সুমি আক্তার (১৯) ও নাজমা আমিন স্নিগ্ধা (২৪)।

গোয়েন্দা পুলিশের উপ-কমিশনার মশিউর রহমান বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, “সাভার থানার মামলা ছাড়াও তাদের বিরুদ্ধে মাদক মামলা হবে উত্তরা পশ্চিম থানায়।

“ওই তিন নারী যদি রাজি হয়, তাহলে তাদের বিরুদ্ধে জোরপূর্বক যৌন কাজ করানোর অভিযোগ এনে আরও একটি মামলা হবে।“

মামলার বিষয়টি প্রক্রিয়াধীন বলে তিনি জানান।

এই গোয়েন্দা কর্মকর্তা জানান, উত্তরার যে বাসা থেকে তাদের গ্রেপ্তার করা হয়েছে সেটি স্নিগ্ধা নামের নারীর।

“এই বাসায় নাসির ও অমি ‘আমোদ-ফুর্তি’ করতে আসতেন,” বলে দাবি করেন তিনি।

গ্রেপ্তার অভিযানের সময় ওই বাসা থেকে এক হাজার ইয়াবা ও বিভিন্ন ব্র্যান্ডের বিদেশি মদ-বিয়ার উদ্ধার করা হয়।

পরীমনির অভিযোগের পর রোববার রাত থেকে ঘটনাটি আলোচনায় রয়েছে। সোমবার সাভার থানায় নির্যাতন ও ধর্ষণ চেষ্টার অভিযোগে নাসির উদ্দিন মাহমুদসহ ছয়জনের নামে মামলা দায়ের করেন এই অভিনেত্রী।

এরপর তাদের গ্রেপ্তার করে পুলিশ।

এই পাঁচ আসামি রাতে ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশের কার্যালয়ে থাকবে জানিয়ে ঢাকা জেলা পুলিশের অতিরিক্ত সুপার আব্দুল্লাহিল কাফী বলেন, “মঙ্গলবার শোন অ্যারেস্ট দেখিয়ে তাদের আদালতে হাজির করা হবে।“

প্রথমে ফেইসবুকে এবং পরে বনানীতে নিজের বাসায় সংবাদ সম্মেলন করে পরীমনি অভিযোগ করেন, গত ৮ জুন রাতে অমি তাকে তুরাগ নদীর তীরে ঢাকা বোট ক্লাবে নিয়ে গিয়েছিলেন। সেখানে নাসির তাকে ধর্ষণ ও হত্যার চেষ্টা চালিয়েছিলেন।

যেখানে এই নির্যাতনের ঘটনা ঘটেছে বলে দাবি পরীমনির, সেই বোট ক্লাব মামলা ও গ্রেপ্তারের পর এই অভিযোগের কারণে নাসির ও অমিসহ তিন সদস্যকে বহিষ্কার করেছে ।

বহিষ্কৃত অপর সদস্য হলেন শাহ এস আলম।

আরও পড়ুন:

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক