হাওরের বুকে ভেসে চলা পথ

‘বর্ষায় নাও, শুকনায় পাও'- কিশোরগঞ্জের হাওর অঞ্চলের মানুষের সেই সব কষ্টের দিন এখন বদলেছে। ইটনা-মিঠামইন-অষ্টগ্রাম‘আবুরা সড়ক’ বা অলওয়েদার রোড তাদের জন্য নিয়ে এসেছে নতুন দিনের বার্তা। হাওরের অথৈ জলরাশির ভেদ করে দিগন্তে হারিয়ে যাওয়া সড়কটি দেখলে মনে হতে পারে সমুদ্রের বুকে ভাসমান এক পথ।
  • বর্ষা মৌসুমে বিস্তীর্ণ জলরাশি আর শুকনো মৌসুমে দিগন্ত বিস্তৃত ফসলের মাঠ। বর্ষায় নৌকায় যাতায়ত চললেও শুকনো মৌসুমে পায় হাঁটা ছাড়া উপায় ছিল না কিশোরগঞ্জের হাওরবেষ্টিত তিন উপজেলার মানুষের। রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদের আগ্রহে আর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উদ্যোগে সারা বছর চলাচলের জন্য নির্মিত হয়েছে ইটনা-মিঠামইন-অষ্টগ্রাম সড়ক।

    বর্ষা মৌসুমে বিস্তীর্ণ জলরাশি আর শুকনো মৌসুমে দিগন্ত বিস্তৃত ফসলের মাঠ। বর্ষায় নৌকায় যাতায়ত চললেও শুকনো মৌসুমে পায় হাঁটা ছাড়া উপায় ছিল না কিশোরগঞ্জের হাওরবেষ্টিত তিন উপজেলার মানুষের। রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদের আগ্রহে আর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উদ্যোগে সারা বছর চলাচলের জন্য নির্মিত হয়েছে ইটনা-মিঠামইন-অষ্টগ্রাম সড়ক।

  • রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ ২০১৬ সালের ২১ এপ্রিল হাওরের মাঝে এই অলওয়েদার সড়কের নির্মাণ কাজের উদ্বোধন করেন।

    রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ ২০১৬ সালের ২১ এপ্রিল হাওরের মাঝে এই অলওয়েদার সড়কের নির্মাণ কাজের উদ্বোধন করেন।

  • প্রায় পাঁচ বছর ধরে নির্মাণ কাজ শেষে চলতি বছরের ৮ অক্টোবর গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে সড়কটির উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

    প্রায় পাঁচ বছর ধরে নির্মাণ কাজ শেষে চলতি বছরের ৮ অক্টোবর গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে সড়কটির উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

  • এই সড়কের মাধ্যমে স্থলপথে সরাসরি যুক্ত হয়েছে কিশোরগঞ্জের হাওর বেষ্টিত তিন উপজেলা ইটনা, মিঠামইন ও অষ্টগ্রাম।

    এই সড়কের মাধ্যমে স্থলপথে সরাসরি যুক্ত হয়েছে কিশোরগঞ্জের হাওর বেষ্টিত তিন উপজেলা ইটনা, মিঠামইন ও অষ্টগ্রাম।

  • ৮৭৪ কোটি টাকা ব্যয়ে প্রায় ত্রিশ কিলোমিটার দীর্ঘ এ অলওয়েদার সড়কটি নির্মাণ করেছে সড়ক ও জনপথ অধিদপ্তর।

    ৮৭৪ কোটি টাকা ব্যয়ে প্রায় ত্রিশ কিলোমিটার দীর্ঘ এ অলওয়েদার সড়কটি নির্মাণ করেছে সড়ক ও জনপথ অধিদপ্তর।

  • কিশোরগঞ্জ জেলার নিকলীর হাওরে দৃষ্টিনন্দন এ সড়কটি এখন বাংলাদেশের অন্যতম ভ্রমণ গন্তব্যে পরিণত হয়েছে। প্রতিদিন পর্যটকরা আসছেন নৈসর্গিক সৌন্দর্যের হাওরের মাঝে বিস্ময় জাগানো এ সড়কটি দেখতে।

    কিশোরগঞ্জ জেলার নিকলীর হাওরে দৃষ্টিনন্দন এ সড়কটি এখন বাংলাদেশের অন্যতম ভ্রমণ গন্তব্যে পরিণত হয়েছে। প্রতিদিন পর্যটকরা আসছেন নৈসর্গিক সৌন্দর্যের হাওরের মাঝে বিস্ময় জাগানো এ সড়কটি দেখতে।

  • ইটনা-মিঠামইন-অষ্টগ্রাম সড়ক কেবল হাওরের মাঝে চলার পথ করে দেয়নি, তৈরি করেছে কর্মসংস্থানের সুযোগ।

    ইটনা-মিঠামইন-অষ্টগ্রাম সড়ক কেবল হাওরের মাঝে চলার পথ করে দেয়নি, তৈরি করেছে কর্মসংস্থানের সুযোগ।

  • হাওরের মাঝে এ সড়কে ভ্রমণের জন্য আছে ব্যাটারি চালিত অটোরিকশা এবং হিউম্যান হলার। স্থানীয় প্রশাসন এর ভাড়াও নির্ধারণ করে দিয়েছে।

    হাওরের মাঝে এ সড়কে ভ্রমণের জন্য আছে ব্যাটারি চালিত অটোরিকশা এবং হিউম্যান হলার। স্থানীয় প্রশাসন এর ভাড়াও নির্ধারণ করে দিয়েছে।

  • সকাল ও সন্ধ্যায় হাওরের মাঝে এ সড়কের রূপ অনবদ্য। হাওরের মানুষের বৈচিত্রময় জীবনধারার ছোঁয়াও মেলে সেখানে।

    সকাল ও সন্ধ্যায় হাওরের মাঝে এ সড়কের রূপ অনবদ্য। হাওরের মানুষের বৈচিত্রময় জীবনধারার ছোঁয়াও মেলে সেখানে।

  • প্রায় ত্রিশ কিলোমিটার এ সড়কে আছে ১১টি আরসিসি গার্ডার ব্রিজ। এর মধ্যে ভাতশালা সেতু ২৬১.৮১ মিটার, ঢাকী সেতু ১৭১.৯৬৪ মিটার এবং ছিলনী সেতু ১৫৬.৭২ মিটার দীর্ঘ।

    প্রায় ত্রিশ কিলোমিটার এ সড়কে আছে ১১টি আরসিসি গার্ডার ব্রিজ। এর মধ্যে ভাতশালা সেতু ২৬১.৮১ মিটার, ঢাকী সেতু ১৭১.৯৬৪ মিটার এবং ছিলনী সেতু ১৫৬.৭২ মিটার দীর্ঘ।

  • বর্ষায় ভাঙ্গন রোধে ৭.৬০ লাখ বর্গমিটার সিসি ব্লক দিয়ে স্লোপ প্রটেকশনের কাজ করা হয়েছে এ সড়কে।

    বর্ষায় ভাঙ্গন রোধে ৭.৬০ লাখ বর্গমিটার সিসি ব্লক দিয়ে স্লোপ প্রটেকশনের কাজ করা হয়েছে এ সড়কে।

Print Friendly and PDF