ভাষাসৈনিক সুফিয়া আহমেদের জীবনাবসান

ভাষাসৈনিক জাতীয় অধ্যাপক সুফিয়া আহমেদ আর নেই।

নিজস্ব প্রতিবেদকবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 9 April 2020, 07:21 PM
Updated : 9 April 2020, 08:11 PM

ঢাকার একটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় বৃহস্পতিবার রাতে তার মৃত্যু হয়েছে।

সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোটের সভাপতি গোলাম কুদ্দুছ বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে এই খবরটি জানিয়েছেন।

তিনি বলেন, “ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে ১৯৫২ সালে ১৪৪ ধারা ভঙ্গ করে মিছিলকারী নারীদের মধ্যে একজন ছিলেন তিনি।”

ভাষা আন্দোলনে অবদানের জন্য ২০০২ সালে একুশে পদকে ভূষিত হন সুফিয়া আহমেদ।

সুফিয়া আহমেদের বয়স হয়েছিল ৮৭ বছর। তার স্বামী প্রয়াত ব্যারিস্টার সৈয়দ ইশতিয়াক আহমেদ ছিলেন খ্যাতনামা আইনজীবী।

বাংলাদেশের তৃতীয় অ্যাটর্নি জেনারেল সৈয়দ ইশতিয়াক আহমেদ ১৯৯৬ ও ২০০১ সালের তত্ত্বাবধায়ক সরকারে উপদেষ্টার দায়িত্ব পালন করেন।

বিচারপতি সৈয়দ রেফাত আহমেদ প্রয়াত ইশতিয়াক ও সুফিয়া আহমেদের সন্তান।

মৃত্যুর সময় সুফিয়ার পাশে ছিলেন তার মেয়ে রাইনা ফাতেহ।

সুফিয়া আহমেদের জামাতা আনাতুল ফাতেহ জানিয়েছেন, নিউমোনিয়ায় আক্রান্ত হয়ে ১৫ মার্চ থেকে হাসপাতালে ছিলেন সুফিয়া আহমেদ। এর মধ্যে বৃহস্পতিবার হৃদযন্ত্রের ক্রিয়া বন্ধ হয়ে তিনি মারা যান।

সুফিয়া আহমেদ ১৯৩২ সালে ফরিদপুর জেলায় জন্মগ্রহণ করেন। ১৯৫০ সালে তিনি ভর্তি হন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে। ইসলামের ইতিহাস ও সংস্কৃতি বিভাগে অধ্যয়নরত অবস্থায় তিনি ভাষা আন্দোলনে জড়িয়ে পড়েন।

সুফিয়া আহমেদ ষাটের দশকে নিজ বিভাগে অধ্যাপনায় যুক্ত হন। দেশের বাইরেও তিনি কয়েকটি প্রতিষ্ঠানে শিক্ষাদান করেছেন।

বাংলাদেশ ব্যাংকের বোর্ড অব ডিরেক্টরের সদস্য ছাড়াও তিনি বাংলাদেশ ইতিহাস পরিষদের সভাপতির দায়িত্ব পালন করেন।