আবরার হত্যা: ক্লাস-পরীক্ষা বর্জনের ডাক বুয়েট শিক্ষার্থীদের

আবরার ফাহাদ খুনের বিচার দাবিতে আন্দোলনে নামা বুয়েট শিক্ষার্থীরা মামলার অভিযোগপত্র না হওয়া পর্যন্ত ক্লাস-পরীক্ষা বর্জনের ডাক দিয়েছেন।

নিজস্ব প্রতিবেদকবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 8 Oct 2019, 04:20 PM
Updated : 8 Oct 2019, 04:20 PM

মঙ্গলবারদিনভর ক্ষোভ-বিক্ষোভে উত্তাল বুয়েটে ক্যাম্পাসে উপাচার্যের কথায় সন্তুষ্ট না হওয়ারপর আন্দোলনরতদের মুখপাত্র হিসেবে সন্ধ্যায় এই ঘোষণা দেন ২০১৫ ব্যাচের শিক্ষার্থী আবুলমনসুর।

তিনিবলেন, “যাদেরকে গ্রেপ্তার করা হয়নি, তাদেরকে দ্রুত গ্রেপ্তার করতে হবে। মামলার চার্জশিটনা হওয়া পর্যন্ত বুয়েটের আসন্ন ভর্তি পরীক্ষাসহ সব ধরনের একাডেমিক এবং প্রশাসনিক কাজস্থগিত থাকবে। পাশাপাশি আন্দোলনও চলবে।”

হত্যাকাণ্ডেরদুদিন পর আন্দোলনরতদের দাবির মুখে তাদের সামনে হাজির হয়ে তোপের মুখে পড়েন উপাচার্যঅধ্যাপক সাইফুল ইসলাম।

গত রোববাররাতে বুয়েটের শেরে বাংলা হলে ছাত্রলীগের একদল নেতা-কর্মীর নির্যাতনের শিকার হয়ে তড়িৎকৌশল বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী আবরার মারা যান বলে অভিযোগ উঠেছে।

শেরেবাংলা হলের প্রাধ্যক্ষ জাফর ইকবাল খানের পদত্যাগের দাবি তুলে মনসুর বলেন, “প্রভোস্টঘটনার পরেও দায়িত্ব পালন করেনি; বরং ঘটনা ধামাচাপা দেওয়ার চেষ্টা করেছেন। এজন্য অবিলম্বেপ্রভোস্টের পদত্যাগ দাবি করছি।”

আবরারেরবাবা কুষ্টিয়াবাসী অবসরপ্রাপ্ত ব্র্যাককর্মী বরকতুল্লাহ মোট ১৯ জনকে আসামি করে চকবাজারথানায় মামলা করেন। ওই মামলায় ১৩ জনকে ইতোমধ্যে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

আবরারহত্যামামলা ডিবিতে হস্তান্তর করা হয়েছে। দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনালে নিয়ে অতিসত্বর মামলারনিষ্পত্তি করতে অপরাধীদের সাজা কার্যকর করতে প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কামনা করেছেনআন্দোলনকারীরা।

আবরারকেনির্যাতনের ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগ ওঠায় বুয়েট ছাত্রলীগের ১১ নেতাকর্মীকে সংগঠন থেকেবহিষ্কার করেছে সংগঠনটি।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক