আবরার হত্যা: ১০ আসামি পাঁচদিনের রিমান্ডে

বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট) ছাত্র আবরার ফাহাদ হত্যা মামলার গ্রেপ্তার ১০ আসামিকে পাঁচদিন হেফাজতে রেখে জিজ্ঞাসাবাদ করবে পুলিশ।

আদালত প্রতিবেদকবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 8 Oct 2019, 10:42 AM
Updated : 17 Oct 2019, 08:41 AM

চকবাজার থানায় আবরারের বাবার করা মামলায় মঙ্গলবার গ্রেপ্তারদের আদালতে হাজির করে ১০ দিনের রিমান্ডের আবেদন করেছিল পুলিশ।

শুনানি নিয়ে ঢাকার মহানগর হাকিম সাদবির ইয়াছির আহসান চৌধুরী পাঁচদিন রিমান্ডের আদেশ দেন বলে জানিয়েছেন মহানগর পুলিশের অপরাধ তথ্য ও প্রসিকিউশন বিভাগের উপ-কমিশনার জাফর হোসেন।

যাদেরকে পুলিশ হেফাজতে পাঠানো হয়েছে তারা হলেন- বুয়েট ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক মেহেদী হাসান রাসেল (সিভিল ইঞ্জিনিয়ারিং, দ্বিতীয় বর্ষ), সহ-সভাপতি মুহতাসিম ফুয়াদ (সিভিল ইঞ্জিনিয়ারিং, দ্বিতীয় বর্ষ), সাংগঠনিক সম্পাদক মেহেদী হাসান রবিন (মেকানিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং, চতুর্থ বর্ষ), তথ্য ও গবেষণা সম্পাদক অনিক সরকার (মেকানিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং, চতুর্থ বর্ষ), ক্রীড়া সম্পাদক মেফতাহুল ইসলাম জিয়ন (নেভাল আর্কিটেকচার অ্যান্ড মেরিন ইঞ্জিনিয়ারিং, চতুর্থ বর্ষ), উপসমাজসেবা সম্পাদক ইফতি মোশাররফ সকাল (বায়ো মেডিকেল ইঞ্জিনিয়ারিং, তৃতীয় বর্ষ), সদস্য মুনতাসির আল জেমি (মেকানিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগ, দ্বিতীয় বর্ষ), মো. মুজাহিদুর রহমান মুজাহিদ (ইলেকট্রিক্যাল অ্যান্ড ইলেক্ট্রনিক ইঞ্জিনিয়ারিং, তৃতীয় বর্ষ) এবং মেকানিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের তৃতীয় বর্ষের খন্দকার তাবাখখারুল ইসলাম তানভীর ও একই বিভাগের চতুর্থ বর্ষের ইসতিয়াক আহমেদ মুন্না।

বুয়েটছাত্র আবরার ফাহাদ হত্যা মামলায় গ্রেপ্তার বুয়েটের ছাত্রলীগ নেতাকর্মীদের মঙ্গলবার আদালতে হাজির করে পুলিশ।

আসামি মুজাহিদুর রহমান মুজাহিদের পক্ষে আইনজীবী মাহবুবুর রহমান, খন্দকার তাবাখখারুল ইসলাম তানভিরের পক্ষে আবেদুর রহমান সবুজ, ইশতিয়াক আহমেদ মুন্নার পক্ষে হুমায়ুন কবির, ইফতি মোশাররফ সকালের পক্ষে আমিরুল ইসলাম জামিনের আবেদন করেন।

আইনজীবীরা বলেন, তাদের মক্কেলরা নেতা বলেই তাদের নাম এজহারে লেখা হয়েছে। তারা আবরারকে মারধরে যুক্ত নন। আবেগের বশবর্তী হয়ে তাদেরকে রিমান্ডে পাঠানোর আবেদন করা হয়েছে।

আবারর হত্যার ঘটনাকে ‘দুঃখজনক’ উল্লেখ করে তারা আসল আসামিদের বিচার দাবি করেন।

তাদের এ বক্তব্যের বিরোধিতা করেন রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী সহকারী পাবলিক প্রসিকিউটর হেমায়েত হোসেন হিরণ।

শুনানি নিয়ে বিচারক জামিন আবেদন নাকচ করে রিমান্ডের আদেশ দেন।

চকবাজার থানার পরিদর্শক কবির হোসেন বলেন, “জিজ্ঞাবাদের জন্য ১০ দিন রিমান্ডের আবেদন করেছিলাম। পাঁচদিন মঞ্জুর হয়েছে।”

এদিকে চকবাজার থানা পুলিশের কাছ থেকে মঙ্গলবারই মামলাটির তদন্তের দায়িত্ব পেয়েছে ঢাকার গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি)।

আবরারের বাবা বরকতুল্লাহ সোমবার চকবাজার থানায় এই দশজনসহ মোট ১৯ জনের বিরুদ্ধে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন।

গ্রেপ্তারদের মধ্যে সাতজনের নাম ছাত্রলীগের বহিষ্কৃতদের তালিকাতেও আছে। এরা হলেন- মেহেদী হাসান রাসেল, মুহতাসিম ফুয়াদ, মেহেদী হাসান রবিন, অনিক সরকার, মেফতাহুল ইসলাম জিয়ন, ইফতি মোশাররফ সকাল ও মুনতাসির আল জেমি।

এই হত্যাকাণ্ডের পর সোমবার রাতে ১১ জনকে স্থায়ীভাবে সংগঠন থেকে বহিষ্কারের কথা জানায় ছাত্রলীগ।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক