‘বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট’ উৎক্ষেপণ ৪ মে

বাংলাদেশের প্রথম কৃত্রিম উপগ্রহ ‘বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট’ আগামী ৪ মে ফ্লোরিডার লঞ্চ প্যাড থেকে উৎক্ষেপণ করা হচ্ছে।

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদকবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 11 April 2018, 06:40 AM
Updated : 11 April 2018, 06:40 AM

বিটিআরসিরচেয়ারম্যান শাহজাহান মাহমুদ বুধবার বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোরডটকমকে বলেন, ‘বঙ্গবন্ধুস্যাটেলাইট’ উৎক্ষেপণের জন্য ৪ মে দিন ঠিক করেছে‘স্পেসএক্স’।

যুক্তরাষ্ট্রেরবেসরকারি মহাকাশ অনুসন্ধান ও প্রযুক্তি কোম্পানি‘স্পেসএক্স’ এর ফ্যালকন-৯রকেটের মাধ্যমে গত ১৬ ডিসেম্বরেফ্লোরিডার কেইপ কেনাভেরালের লঞ্চ প্যাড থেকে বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট উৎক্ষেপণের প্রস্তুতি চলছিল।

কিন্তুহারিকেন আরমায় ফ্লোরিডায় ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হওয়ায় ওই লঞ্চ প্যাডথেকে স্যাটেলাইট উৎক্ষেপণ বন্ধ থাকে। ফলে বিভিন্ন দেশের স্যাটেলাইট উৎক্ষেপণ পিছিয়ে যায় এবং বাংলাদেশ সূচির জটে পড়ে।

বঙ্গবন্ধুস্যাটেলাইটের নির্মাণ কাজ চলে ফ্রান্সের থালেস এলিনিয়া স্পেস ফ্যাসিলিটিতে। নির্মাণ, পরীক্ষা, পর্যালোচনা ও হস্তান্তর শেষেবিশেষ কার্গো বিমানে করে সেটি কেইপ কেনাভেরালের লঞ্চ সাইটে পাঠানোর হয়।

২০১৫সালের ২১ অক্টোবর সরকারিক্রয় সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটির সভায় এই ‘স্যাটেলাইট সিস্টেম’ কেনার প্রস্তাব অনুমোদন দেওয়া হয়। এরপর প্রায় দুই হাজার কোটি টাকায় ‘স্যাটেলাইট সিস্টেম’ কিনতে থালেসের সঙ্গে চুক্তি করে বিটিআরসি।

`বঙ্গবন্ধুস্যাটেলাইট’ উৎক্ষেপণে অর্থায়নের জন্য হংক সাংহাই ব্যাংকিং করপোরেশনের (এইচএসবিসি) সঙ্গে গতবছর প্রায় এক হাজার ৪০০কোটি টাকার ঋণচুক্তি করা হয়।

সরকারআশা করছে, এ উপগ্রহ উৎক্ষেপণেরপর বিদেশি স্যাটেলাইটের ভাড়া বাবদ বছরে ১৪ মিলিয়ন ডলারসাশ্রয় হবে বাংলাদেশের।

বঙ্গবন্ধুস্যাটেলাইটে ৪০টি ট্রান্সপন্ডার থাকবে, যার ২০টি বাংলাদেশের ব্যবহারের জন্য রাখা হবে এবং বাকিগুলো ভাড়া দিয়ে বৈদেশিক মুদ্রা অর্জন সম্ভব হবে।

বঙ্গবন্ধুস্যাটেলাইটের গ্রাউন্ড স্টেশন স্থাপন করা হয়েছে গাজীপুর জেলার জয়দেবপুর ও রাঙ্গামাটির বেতবুনিয়ায়।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক